ভারতে ফিরছে PUBG Mobile? টিজার আপলোড করেও ডিলিট করলো কোম্পানি

pubg-mobile-return-in-india-teaser-uploaded-though-deleted-after-few-minutes

ডেটা সুরক্ষা জনিত উদ্বেগ এবং চীনের সাথে সম্পর্ক থাকার কারণে, গত সেপ্টেম্বরে এদেশে জনপ্রিয় ব্যাটেল-রয়্যাল গেম PUBG Mobile ব্যান হওয়ার পর কেটে গেছে ছয় মাসেরও বেশি সময়। কিন্তু গেমটি পুনরায় ভারতবাসীর জন্য উপলব্ধ হবে কিনা, সেবিষয়ে এখনো কোনো নিশ্চয়তা পাওয়া যায়নি। ইতিমধ্যে বহুবার এই পরিচিত গেমটির রি-লঞ্চ সম্পর্কে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে; বিভিন্ন টিপস্টাররা PUBG-র প্রত্যাবর্তন সম্পর্কে নিজের মত জানিয়েছেন। এমনকি গেমটির মূল ডেভলপার সংস্থা নিজেও এটির নতুন টিজার প্রকাশ করেছে। কিন্তু এত কিছু সত্ত্বেও জল গড়িয়ে আটকে রয়েছে একই জায়গায়! তবে মাসের শেষে পাবজি (PUBG) প্রেমীরা এই বিষয়ে আশার আলো দেখার মত একটি খবর পেয়েছেন। আসলে সম্প্রতি সংস্থার অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানেল থেকে PUBG Mobile-এর প্রবর্তন সংক্রান্ত একটি নতুন টিজার প্রকাশিত হয়েছে। যদিও ভিডিওটি আপলোড হওয়ার কয়েক সেকেন্ডের মধ্যেই সেটি ডিলিট বা প্রাইভেট করে দেওয়া হয়। সেক্ষেত্রে এই টিজার ভিডিওটি সবার দৃষ্টিগোচর না হলেও, যাবতীয় বিধিনিষেধ কাটিয়ে গেমটি ফের উপলব্ধ হবে – এই জল্পনা আবার মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে।

রিপোর্ট অনুযায়ী, ওই টিজার ভিডিওটির দৈর্ঘ্য ছিল মাত্র ৬ সেকেন্ড যেখানে গেমটি নতুন রূপে শীঘ্রই চালু হবে এমন ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু ঠিক কবে এটিকে ফের উপভোগ করা যাবে সে বিষয়ে কোনো স্পষ্ট দিনক্ষণ প্রকাশিত হয়নি। এদিকে মজার বিষয় হল, স্বল্পসময় পরে টিজারটিকে সাধারণ ইউজারদের চোখের সামনে থেকে সরিয়ে নিলেও, কিছু টুইটার ইউজার সেটির স্ক্রিনশট তুলে রাখতে সক্ষম হন।

ওই স্ক্রিনশটগুলি দেখে মনে হচ্ছে সংস্থাটি গত নভেম্বরে প্রকাশিত টিজারটিই (যেখানে জনপ্রিয় তিন লাইভ গেম স্ট্রিমারকে দেখা গিয়েছিল) ফের আপলোড করেছিল। তাই এটির নির্ভরযোগ্যতা কতটা তা এখনই বলা যাচ্ছে না। হতে পারে সংস্থাটি ভুলবশত এই ভিডিওটি আপলোড করেছিল। তাছাড়া ভারত সরকারের তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রক, PUBG Mobile গেমকে প্রয়োজনীয় ছাড়পত্র দিয়েছে এমন কথাও শোনা যায়নি।

এদিকে, PUBG-র মূল নির্মাতা সংস্থা ক্রাফ্টন এদেশে নিজের ব্যবসা বিস্তার করার জন্য একাধিক পদক্ষেপ নিয়েছে। বর্তমানে এটি ভারতে কর্মচারী নিয়োগ করে চলেছে এবং স্থানীয় ভিডিও গেম, ই-স্পোর্টস, বিনোদন এবং তথ্যপ্রযুক্তি শিল্পের ক্ষেত্র গড়ে তুলতে ১০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বিনিয়োগের পরিকল্পনা ঘোষণা করেছে। তাছাড়া এটি কাস্টমাইজড ইন-গেম সামগ্রী বিকাশ করার কথাও জানিয়েছে। কিন্তু আগামী দিনে আদৌ জনপ্রিয় মোবাইল গেমটি ফিরবে কিনা বা ফিরলেও কবে ফিরবে, সেই বিষয়ে অনিশ্চয়তা থেকেই যাচ্ছে! তাই উক্ত টিজারের কথা শুনে উচ্ছ্বাস প্রকাশ না করাটাই বোধহয় শ্রেয়।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন