কোয়ালকম লঞ্চ করলো স্ন্যাপড্রাগন ৮৭০ প্রসেসর, কোন কোন ফোনে ব্যবহার হবে দেখে নিন

qualcomm-snapdragon-870-soc-launched-upcoming-smartphone-motorola-edge-s

গত ডিসেম্বরে স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ লঞ্চ করার পর কোয়ালকম (Qualcomm) এবার আরও একটি ফ্ল্যাগশিপ এসওসি (সিস্টেম অন চিপ) স্ন্যাপড্রাগন ৮৭০ (Snapdragon 870) নিয়ে হাজির হল। যদিও স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮-এর মতো এটি ততটা শক্তিশালী নয়। একে মূলত গতবছর আত্মপ্রকাশ করা স্ন্যাপড্রাগন ৮৬৫/৮৬৫+ চিপসেটের আপগ্রেড ভার্সন হিসেবে আনা হয়েছে। স্ন্যাপড্রাগন ৮৬৫-এর অনুকরণে এটি একই প্রসেসিং নোডের (৭ ন্যানোমিটার) ওপর ভিত্তি করে নির্মিত এবং এটিতে রয়েছে অনুরূপ বৈশিষ্ট্যযুক্ত ৫জি মোডেম। স্ন্যাপড্রাগন ৮৬৫-এর মতো এতে একই Kryo কোর এবং Adreno জিপিইউ ব্যবহার করা হয়েছে৷ তবে পার্থক্য রয়েছে প্রাইম কোরের ক্লক স্পিডে। গেমারদের আনুকূল্যে স্ন্যাপড্রাগন ৮৭০ প্রসসরে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন এলিট গেমিং টেকনোলজি অর্ন্তভুক্ত। ডিভাইসে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্সের অভিজ্ঞতা দেওয়ার জন্য চিপসেটে কোয়ালকমের ফিফথ-জেনারেশন AI ইঞ্জিন রাখা হয়েছে।

কোয়ালকম স্ন্যাপডাগন ৮৭০ কোন কোন ডিভাইসে থাকবে

স্মার্টফোন নির্মাতাদের মধ্যে ভিভোর সাব ব্রান্ড iQOO, Motorola, OnePlus, Oppo এবং Xiaomi তাঁদের আপকামিং স্মার্টফোনে এই এসওসি ব্যবহার করবে (ফোনগুলির নাম প্রকাশ্যে আসেনি)। এদিকে স্ন্যাপডাগন ৮৭০ বেসড প্রথম ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন হিসেবে মোটোরোলা আগামী ২৬ জানুয়ারি চীনে লঞ্চ করছে Motorola Edge S।

স্ন্যাপড্রাগন ৮৭০-এর স্পেসিফিকেশন ও ফিচার

গতবছর লঞ্চ হওয়া স্ন্যাপড্রাগন ৮৬৫+ এর মতো এটিকে ৭ ন্যানোমিটার ফ্যাব্রিকেশন প্রসেসের ওপর ভিত্তি করে তৈরি করা হয়েছে এবং এটি Kryo 585 সিপিইউ-এর সাথে এসেছে যার মধ্যে ট্রাই-ক্লাস্টার আর্কিটেকচার বর্তমান। স্ন্যাপড্রাগন ৮৭০ চিপসেটের সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন এর প্রাইম কোরে পরিলক্ষিত হয়েছে। চিপসেটের কর্টেক্স এ৭৭ প্রাইম কোরের ক্লক স্পিড ৩.২ গিগাহার্টজে চলে যা স্ন্যাপড্রাগন ৮৬৫-এর ২.৮৪ গিগাহার্টজ সীমার তুলনায় বেশ দ্রুত বলা চলে। আবার সর্বোচ্চ ক্লক স্পিডের দিক থেকে এটি স্ন্যাপডাগন ৮৬৫ প্লাস (ক্লকস্পিড ৩.১ গিগাহার্টজ)- এর ঘাড়েও নিঃশ্বাস ফেলছে। এর অন্য সাতটি কোরের মধ্যে আছে ২.৪ গিগাহার্টজ ক্লক স্পিডের তিনটি কর্টেক্স এ-৭৭ কোর ও ১.৮ গিগাহার্টজ ক্লক স্পীড যুক্ত চারটি কর্টেক্স এ-৫৫ কোর। এই চিপসেটে পাবেন Adeno 650 জিপিইউ।

স্ন্যাপড্রাগন ৮৬৫+ ও ৮৬৫-এর অনুরূপে স্ন্যাপড্রাগন ৮৭০-এ ২০০ মেগাপিক্সেলের ফটো ক্যাপচার সাপোর্ট পাওয়া যাবে। এর ISP স্পেকট্রা ৪৮০ ইমেজ সিগন্যাল প্রসেসর ২৫ মেগাপিক্সেলের ডুয়াল ক্যামেরা বা ৬৪ মেগাপিক্সেল সিঙ্গেল ক্যামেরা সাপোর্ট করবে। এটি ৩০ ফ্রেম পার সেকেন্ডে 8K ভিডিও রেকর্ডিং সাপোর্ট রয়েছে। এছাড়া স্ন্যাপড্রাগন ৮৬৫+ ও ৮৬৫-এর মতো এটি কুইক চার্জ ৪+ টেকনোলজি বহন করবে।

টেকগাপে শুভ্রর প্রথম প্রযুক্তি বিষয়ক লেখায় হাতেখরি৷ স্নাতক স্তরের পড়াশোনার পাশাপাশি এখানেই চলতে থাকে শুভ্রর লেখালেখি৷ কলেজের অধ্যায় শেষ হওয়ার পর শুভ্র এখন টেকগাপের কনটেন্ট টিমের একজন গুরুত্বপূর্ণ সদস্য৷