ডেটা স্টোরেজ আইন না মানায় ভারতে ব্যান হল Mastercard, আপনি অসুবিধায় পড়বেন?

rbi-bans-mastercard-in-india-for-adding-new-customer
Mastercard কে কেন ব্যান করা হল

আর্থিক লেনদেনের জন্য ব্যবহৃত বিশেষ ধরনের ব্যাঙ্ক কার্ডগুলির মধ্যে অন্যতম Mastercard (মাস্টার কার্ড), যার গ্রহণযোগ্যতা আন্তর্জাতিক সীমানা ছাড়িয়ে যায়। বিশেষ করে যারা অনলাইনে কাজ করেন তাদের জন্যও এই ইন্টারন্যাশনাল কার্ড অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু এবার আমেরিকান সংস্থা পরিচালিত এই কার্ডের ওপরেই নেমে এল ভারতের নিষেধাজ্ঞার খাঁড়া! রিপোর্ট অনুযায়ী, মাস্টারকার্ড এদেশের ডেটা স্টোরেজ আইন বা বিধিমালা (২০১৮) অনুসরণ না করায় আর্থিক খাতে গণ্ডগোল বেঁধেছে। আর নিয়মভঙ্গের এই অভিযোগের ভিত্তিতে গতকাল অর্থাৎ বুধবার, মাস্টার কার্ড কে ব্যান করেছে RBI (রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া)। এক্ষেত্রে, ব্যানের সিদ্ধান্ত শুধুমাত্র সংস্থার নতুন গ্রাহক সংযোজনের বিষয়ে কার্যকরী হবে।

Mastercard-এর ওপর‌ এই মাসেই বিশেষ বিধিনিষেধ লাগু হচ্ছে

রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক (RBI), মাস্টারকার্ডকে আগামী ২২ জুলাই থেকে নেটওয়ার্কে নতুন গ্রাহক সংযোগ না করার আদেশ দিয়েছে। এর ফলে, আগামী দিনে দেশের সমস্ত কার্ড ইস্যু-কারী ব্যাঙ্ক বা অন্যান্য আর্থিক প্রতিষ্ঠান নতুন করে কাউকে এই কার্ড (ডেবিট/ক্রেডিট) দিতে পারবে না। যদিও পুরনো অর্থাৎ বিদ্যমান গ্রাহকদের এই বিষয়ে হয়রানির কোনো প্রয়োজন নেই। কারণ, ভারতের এই নতুন বিধিনিষেধের জেরে মাস্টারকার্ডের বর্তমান গ্রাহকদের কোনো সমস্যা হবেনা বলেই জানা গিয়েছে। সেক্ষেত্রে ব্যাংকগুলিকে Visa (ভিসা)-র মত প্রতিদ্বন্দ্বী নেটওয়ার্কগুলির সাথে নতুন বাণিজ্যিক চুক্তি স্বাক্ষর করতে হবে।

ঠিক কী কারণে Mastercard-এর বিরুদ্ধে এই পদক্ষেপ

বলা হচ্ছে, রিজার্ভ ব্যাঙ্ক পূর্বে বিদেশী আর্থিক পরিষেবা সরবরাহকারী সংস্থাগুলির জন্য ইউজার ডেটা স্টোরেজ সম্পর্কিত যে নির্দেশ দিয়েছিল – মাস্টারকার্ড সেই নির্দেশ পালন করেনি। এতে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক কর্তৃক গৃহীত ২০১৮ সালের বিধিগুলি লঙ্ঘিত হয়েছে। আর তাই এই বিদেশী সংস্থার পরিষেবার জন্য নির্দিষ্ট নিয়ম ধার্য করেছে ভারতের কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্কটি।

সেক্ষেত্রে প্রাথমিকভাবে গ্লোবাল পেমেন্ট পরিষেবা সরবরাহকারীটির কাছ থেকে কোনো সাড়া পাওয়া না গেলেও, আজ মাস্টার কার্ডের এক মুখপাত্র বলেছেন যে, মাস্টার কার্ড ডিজিটাল ইন্ডিয়া ভিশনকে এগিয়ে রাখতে সচেষ্ট। তাই তারা ভারতের বাজারের জন্য বিনিয়োগ করতে থাকবে।

এই প্রসঙ্গে বলে রাখি, বিদেশী ফিনান্সিয়াল সার্ভিসগুলির প্রতি গৃহীত RBI-এর এই জাতীয় সিদ্ধান্ত কোনো নতুন বিষয় নয়। এর আগে, এপ্রিল মাসে আমেরিকান এক্সপ্রেসের বিরুদ্ধেও একই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছিল। তাছাড়া নির্দিষ্ট নিয়ম না মানায় ডাইনার্স ক্লাব ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেডের ওপরেও কিছু সীমাবদ্ধতা জারি করেছিল RBI।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

A person who enjoys creating, buying, testing, evaluating and learning about new technology.