আজ ভারতে আসছে Redmi 9 Prime, জানুন সম্ভাব্য দাম ও স্পেসিফিকেশন

redmi-9-prime-launch-in-india-today-price-and-specifications-how-to-watch-livestream

অবশেষে আজ ভারতে আসছে Redmi 9 Prime। মনে করা হচ্ছে এই ফোনটি গ্লোবাল মার্কেটে লঞ্চ করা Redmi 9 এর রিব্রান্ডেড ভার্সন হবে। আজ দুপুর ১২ টায় এই ফোনটি ভারতে আসবে। কোম্পানির সোশ্যাল মিডিয়া পেজ ও ইউটিউব চ্যানেল থেকে এই ইভেন্ট লাইভ দেখা যাবে। রেডমি ৯ প্রাইম এর সেল ৬ আগস্ট থেকে শুরু হওয়া Amazon Prime Day সেলে শুরু হবে। যদিও Mi.com থেকেও ফোনটি কেনা যাবে।

কিছুদিন আগে Xiaomi তাদের ভারতীয় ইউটিউব চ্যানেলে এই ফোনের টিজার আপলোড করেছিল। ইউটিউবে দেখা টিজার অনুসারে, ফোনটি পাতলা বেজেল সহ একটি ড্রপ নচ ডিসপ্লের সঙ্গে আসবে। এতে ফুল এইচডি প্লাস ডিসপ্লে থাকবে। অ্যামাজনে দেখা আরেকটি টিজারে ফোনের ইউএসবি টাইপ-সি পোর্ট এবং ৩.৫ মিমি হেডফোন জ্যাক দেখা গেছে। ২০১৬ সালের পর কোম্পানি আবার তাদের কোনো ফোনে প্রাইম নাম ব্যবহার করবে। ২০১৬ সালে শেষবারের মত কোম্পানি Redmi 3S Prime লঞ্চ করেছিল।

Redmi 9 Prime ফোনের দাম এখনও জানা যায়নি। যদিও গ্লোবাল মার্কেটে রেডমি ৯ এর ৩ জিবি র‌্যাম ও ৩২ জিবি স্টোরেজের দাম প্রায় ১০,০০০ টাকা। আবার ৪ জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজের দাম প্রায় ১২,৬৫০ টাকা। এর ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজও লঞ্চ করা হয়েছে, যার দাম প্রায় ১৪,৬০০ টাকা। মনে করা হচ্ছে রেডমি ৯ প্রাইমও একই দামে আসবে।

Redmi 9 স্পেসিফিকেশন:

রেডমি ৯ এর ফিচারের কথা বললে এটি ওয়াটারড্রপ নচ ডিজাইন সহ ৬.৫ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস এলসিডি প্যানেলের সাথে এসেছে। যার রেজুলেশন ১০৮০x২৩৪০ পিক্সেল এবং আসপেক্ট রেশিও ১৯.৫:৯। এই ফোনে হালকা বেজেল উপলব্ধ এবং ডিসপ্লের প্রটেকশনের জন্য আছে কর্নিং গরিলা গ্লাস ৩। রেডমি ৯ ফোনে পাবেন মিডিয়াটেক হেলিও জি৮০ অক্টা কোর প্রসেসর, ৪ জিবি পর্যন্ত র‌্যাম ও ৬৪ জিবি পর্যন্ত স্টোরেজ। মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে এর স্টোরেজ বাড়ানো যাবে। ফোনটি ১৮ ওয়াট কুইক চার্জার ৩.০ সাপোর্টের সাথে শক্তিশালী ৫,০২০ এমএএইচ ব্যাটারির সাথে এসেছে। যদিও বক্সের মধ্যে ১০ ওয়াট ফাস্ট চার্জার উপলব্ধ। চার্জিংয়ের জন্য এখানে পাবেন ইউএসবি টাইপ সি পোর্ট।

রেডমি ৯ ফোনে কোম্পানি কোয়াড রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ দিয়েছে। যার প্রাইমারি ক্যামেরা এফ/২.২ অ্যাপারচার সহ ১৩ মেগাপিক্সেল। এছাড়াও আছে ৮ মেগাপিক্সেল আলট্রা ওয়াইড সেন্সর, ৫ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো সেন্সর ও ২ মেগাপিক্সেল ডেপ্ত সেন্সর। পিছনের ক্যামেরা দিয়ে ৩০ এফপিএস এ ১০৮০পি ভিডিও রেকর্ড করা যাবে। এছাড়াও পোর্ট্রেট মোড, ওয়াইড এঙ্গেল মোড প্রভৃতি উপলব্ধ। ভিডিও কল ও সেলফির জন্য ফোনের সামনে ৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা রয়েছে। সিকিউরিটির জন্য এতে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর আছে।