Redmi K40 Game Enhanced Edition ভারতে আসছে Poco F3 GT নামে

redmi-k40-game-enhanced-edition-may-launch-in-india-as

পরশুদিন Redmi K40 Game Enhanched Edition লঞ্চের মাধ্যমে Xiaomi-র সাব ব্র্যান্ড Redmi শেষমেষ গেমিং স্মার্টফোন ব্র্যান্ডগুলির তালিকায় নিজের নাম উজ্জ্বল অক্ষরে তুলে ফেলেছে। তবে মজার বিষয় হল, রেডমির ঘরেলু মার্কেটে কোম্পানির এই প্রথম গেমিং ফোকাসড স্মার্টফোনটি লঞ্চ হওয়ার আগেই একটি বিষয় নিয়ে প্রবল জল্পনা চলতে থাকে। গুরুতর কোনো বিষয় নয়, এটি রিব্র্যান্ডেড হয়ে পোকো এফ সিরিজের ফ্ল্যাগশিপ ফোন হিসেবে ভারতে পা রাখতে পারে বলে অনেকেই দাবি করতে থাকেন৷ সেই দাবি যে নিছক অমূলক নয়, তা এবার নয়া রিপোর্টে উঠে এল।

টুইটার ব্যবহারকারী Kacper Skrzpek রীতিমতো প্রমাণ জোগাড় করে বলছেন, রেডমি কে৪০ গেম এনহ্যান্সড এডিশন ভারতে পোকো এফ৩ জিটি (Poco F3 GT) নামে লঞ্চ হতে চলেছে। ফোনটি কত দাম বা এদেশে কবে লঞ্চ হবে সে বিষয়ে যদিও তিনি কিছু বলেননি। এই প্রসঙ্গে বলে রাখি, রেডমি কে৪০ গেম এনহ্যান্সড এডিশন চীনে M2104K10C মডেল নম্বর সহ লঞ্চ হয়েছে, যেখানে ভারতে এর মডেল নম্বর হবে M2104K10I (I = India)। সম্প্রতি ফোনটি ব্যুরো অফ ইন্ডিয়ান স্ট্যান্ডার্ডস (BIS)-এর ছাড়পত্র পেয়েছে।

উল্লেখ্য, কয়েক সপ্তাহ আগে ভারতে পোকোর কান্ট্রি ডিরেক্টর অনুজ শর্মা টুইটারে এক ইউজারের প্রশ্নের জবাবে বলেছিলেন, কোম্পানি ভারতের জন্য এফ-সিরিজের ডিভাইসের ওপর কাজ করছে। তিনি এও বলেছিলেন, পোকো এফ১-এর তুলনায় আপকামিং স্মার্টফোনটি আরও বেশি দাম সহ আসবে। যদিও তিনি তখন ফোনটির নাম জানাননি। তবে এখন আমরা নিশ্চিত, অনুজ, Poco F3 GT ফোনটির কথাই বলেছিলেন।

Redmi K40 Game Enhanced Edition : স্পেসিফিকেশন ও ফিচার

রেডমি কে৪০ গেম এনহ্যান্সড এডিশন ৬.৬৭ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস (১০৮০ x ২৪০০ পিক্সেল) AMOLED ডিসপ্লে সহ এসেছে। এটি এইচডিআর১০+, ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেটএবং ৪৮০ হার্টজ টাচ স্যাম্পলিং রেট সাপোর্ট করবে। ফোনে ৬ এনএম মিডিয়াটেক ডায়মেনসিটি ১২০০ প্রসেসর ১২ জিবি পর্যন্ত র‌্যাম ও ২৫৬ জিবি পর্যন্ত স্টোরেজ রয়েছে। গেমিং স্মার্টফোন হওয়ায়এতে ভেপার কুলিং সিস্টেম পাওয়া যাবে। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য রয়েছে ৫,০৬৫ এমএএইচ ব্যাটারি, যা ৬৭ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করবে।

ফোনে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ রাখা হয়েছে। এর প্রাইমারি ক্যামেরা এফ/১.৬৫ অ্যাপারচার সহ ৬৪ মেগাপিক্সেল। এছাড়াও আছে ১২০ ডিগ্রি ফিল্ড অফ ভিউ সহ ৮ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা ওয়াইড লেন্স, ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো সেন্সর। সেলফি ও ভিডিও কলের জন্য এতে ২০ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে। ফোনটির ক্যামেরা সেটআপের চারিপাশে আছে অ্যাম্বিয়েন্ট লাইট। এই লাইটের কালার বিভিন্ন সময় পরিবর্তন হয় এবং নোটিফিকেশন এলইডি হিসেবে কাজ করে। আবার এই ফোনটি IP53 রেটিং সহ এসেছে। ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১১ বেসড এমআইইউআই ১২.৫ কাস্টম ওএস-এ চলবে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন