Redmi Note 10S এই বিশেষ বিশেষ ফিচার সহ ভারতে আসছে, দেখা গেল গুগল প্লে কনসোলে

redmi-note-10s-spotted-on-google-play-console-with-mediatek-helio-g95-soc-6gb-ram-ahead-of-india-launch

Redmi Note 10 সিরিজের নতুন স্মার্টফোন Redmi Note 10S ১৩ মে ভারতে লঞ্চ হচ্ছে। কয়েকদিন আগে Xiaomi-এর সিইও মনু কুমার জৈন টুইট করে ফোনটির ভারতে আগমনের কথা জানিয়েছেন। Redmi Note 10S যেহেতু আগেই গ্লোবাল মার্কেটে লঞ্চ হয়েছে, তাই ফোনটির ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টে কেমন স্পেসিফিকেশন ও ফিচার থাকবে তার ধারণা আমরা করতে পারছি। ভারতে লঞ্চের আগেই আজ রেডমি নোট ১০এস-এর ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টকে গুগল সাপোর্টেড ডিভাইসের তালিকায় ও গুগল প্লে কনসোল লিস্টিংয়ে খুঁজে পাওয়া গিয়েছে। সেখান থেকে কী কী তথ্য উঠে এল আসুন জানি…

Xiaomi M2101K7BI মডেল নম্বর সহ Redmi Note 10S স্মার্টফোনটিকে গুগল সাপোর্টেড ডিভাইসের তালিকা এবং গুগল প্লে কনসোল লিস্টিংয়ে স্পট করা হয়েছে। জানা গিয়েছে যে, ভারতে স্মার্টফোনটি অন্তত ৬ জিবি র‌্যাম অপশনে আসবে। যদিও ফোনটি একাধিক র‌্যাম ভ্যারিয়েন্টে পাওয়া যাবে বলে আমরা আশা করতে পারি। আবার এটি অ্যান্ড্রয়েড ১১ অপারেটিং সিস্টেম সহ শিপিং করা হবে।

এছাড়াও, রেডমি নোট১০এস-এর গ্লোবাল ভার্সনের মতো ইন্ডিয়ান ভ্যারিয়েন্টে অক্টা-কোর মিডিয়াটেক হেলিও জি৯৫ প্রসেসর ব্যবহার করা হবে। মূলত গেমিং প্রসেসর হিসেবে পরিচিত হেলিও জি৯৫ -এ দু’টি আর্ম কর্টেক্স এ৭৬ কোর এবং ছটি আর্ম কর্টেক্স এ৫৫ কোর রয়েছে। গ্রাফিক্সের জন্য এটি আর্ম মালি জি৭৬ জিপিইউ সহ আসবে।

Redmi Note 10S এর স্পেসিফিকেশন

রেডমি নোট১০ এস-এর গ্লোবাল ভ্যারিয়েন্ট আর ইন্ডিয়ান ভ্যারিয়েন্টের মধ্যে বৈশিষ্ট্যের কোনো পার্থক্য থাকবে না বলেই আমরা আশা করছি। এখন ইউরোপের বাজারে উপলব্ধ রেডমি নোট ১০এস ফোনে রয়েছে ৬.৪৩ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস (১০৮০ x ২৪০০ পিক্সেল) পাঞ্চ হোল ডিসপ্লে। ডিসপ্লের প্রোটেকশনের জন্য এতে ব্যবহার করা হয়েছে কর্নিং গরিলা গ্লাস ৩। ডুয়েল সিমের এই ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১১ বেসড এমএআইইউআই ১২ ওএসে চলে। এই ফোনে আছে মিডিয়াটেক হেলিও জি৯৫ প্রসেসর, ৬ জিবি/৮ জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি/ ১২৮ জিবি স্টোরেজ। মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে এর স্টোরেজ আরও বাড়ানো যাবে।

ফটোগ্রাফির জন্য Redmi Note 10S ফোনে কোয়াড ক্যামেরা বর্তমান। এর প্রাইমারি ক্যামেরা ৬৪ মেগাপিক্সেল। এছাড়াও অন্য তিনটি ক্যামেরা হল ৮ মেগাপিক্সেল ওয়াইড এঙ্গেল লেন্স, ২ মেগাপিক্সেল ডেপ্থ সেন্সর ও ২ মেগাপিক্সেল মাক্রো সেন্সর। সেলফি ও ভিডিও কলের জন্য এতে ১৩ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা আছে। সিকিউরিটির জন্য ফোনে পাওয়া যাবে সাইড মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য এতে আছে ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি। এই ফোনে ৩৩ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করবে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

টেকগাপে শুভ্রর প্রথম প্রযুক্তি বিষয়ক লেখায় হাতেখরি৷ স্নাতক স্তরের পড়াশোনার পাশাপাশি এখানেই চলতে থাকে শুভ্রর লেখালেখি৷ কলেজের অধ্যায় শেষ হওয়ার পর শুভ্র এখন টেকগাপের কনটেন্ট টিমের একজন গুরুত্বপূর্ণ সদস্য৷