মাত্র 6 মাসে 1.5 কোটি বিক্রি হলো রেডমির এই ফোন

চীনা স্মার্টফোন কোম্পানি শাওমি Redmi Note 7 সিরিজ লঞ্চ করার পর, এর বিক্রি খুব হয়েছে। কোম্পানি প্রথমে এই সিরিজের দুটি স্মার্টফোন লঞ্চ করেছিল- রেডমি নোট 7 ও রেডমি নোট 7 প্রো । এরমধ্যে রেডমি নোট 7 ভারতে 2019 জানুয়ারীতে লঞ্চ করা হয়েছিল। আবার রেডমি নোট 7 প্রো মার্চে ভারতে এসেছিলো। এই দুইফোন এতদিন ফ্ল্যাশ সেলেই পাওয়া যাচ্ছিলো। তারপরও এই ফোনকে ঘিরে মানুষের আগ্রহ একটুকুও কমেনি। কোম্পানি জানিয়েছে গত 6 মাসে রেডমি নোট 7 সিরিজের 1.5 কোটি ইউনিট বিক্রি হয়ে গেছে। এর আগে মে মাসে কোম্পানি জানিয়েছিল এই সিরিজ 1 কোটি ইউনিট বিক্রি হওয়ার মাইলস্টোন ছুঁয়েছে।

শাওমির গ্লোবাল মুখপাত্র ডোনোভান সুং, রেডমি নোট 7 সিরিজের এই সাফল্যতে খুশি এবং টুইটারে প্রথম তিনি এই খবর জানান। টুইটে তিনি বলেন, এই পরিসংখ্যান প্রমাণ করার পক্ষে যথেষ্ট যে রেডমি নোট 7 সিরিজের স্মার্টফোনগুলি সারা বিশ্বের মানুষের চিহিদা মিটিয়েছে।

ভারতের কথা যদি বলা হয় তবে, রেডমি নোট 7 সিরিজের সেলের একমাসের মধ্যে 10 লাখ ইউনিট বিক্রি হয়েছিল। মে মাসে তা ছাড়িয়ে 20 লাখে পৌঁছেছিল। এবার জুলাই মাসে এসে কোম্পানি জানালো গত 6 মাসে রেডমি নোট 7 সিরিজের 1.5 কোটি ইউনিট বিক্রি হয়েছে।

Redmi Note 7:

রেডমি নোট 7 ফোনে 6.3 ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস LTPS ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে,যার আসপেক্ট রেশিও হলো 19.5:9 এবং স্ক্রিন রেজোলিউশন 1080 × 2340 পিক্সেল।স্ক্রিনের সুরক্ষার জন্য কর্নিং গরিলা গ্লাস ও 2.5ডি কার্ভাড গ্লাস আছে। এই ফোন 2.2 গিগাহার্টজ স্ন্যাপড্রাগন 660 অক্টা কোর প্রসেসরের সাথে লঞ্চ হয়েছে। ফোনটি 3 জিবি ও 4 জিবি র‍্যামের সাথে এসেছে। এছাড়াও ফোনে 32 জিবি ও 64 জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ রয়েছে।

ফটোগ্রাফির জন্য এই ফোনে ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরার দেওয়া হয়েছে। যার প্রাথমিক ক্যামেরাটি 12 মেগাপিক্সেলের (এফ/1.8 অ্যাপারচার) এবং দ্বিতীয়টি LED ফ্লাশের সাথে 2 মেগাপিক্সেলের। আবার সেলফির জন্য 13 মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা আছে। ফোনটিতে কুইক চার্জ প্রযুক্তি যুক্ত 4,000 এমএএইচ ব্যাটারি রয়েছে।

Redmi Note 7 Pro:

এই ফোনে 6.3 ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস LTPS ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে,যার আসপেক্ট রেশিও হলো 19.5:9 এবং স্ক্রিন রেজোলিউশন 1080 × 2340 পিক্সেল।স্ক্রিনের সুরক্ষার জন্য কর্নিং গরিলা গ্লাস 5 আছে। এই ফোন 2.0 গিগাহার্টজ স্ন্যাপড্রাগন 675 অক্টা কোর প্রসেসরের সাথে লঞ্চ হয়েছে। ফোনটি 4 জিবি ও 6 জিবি র‍্যামের সাথে এসেছে।এছাড়াও ফোনে 64 জিবি ও 128 জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ রয়েছে।

ফটোগ্রাফির জন্য এই ফোনে ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরার দেওয়া হয়েছে। যার প্রাথমিক ক্যামেরাটি Sony IMX586 সেন্সরের সাথে 48 মেগাপিক্সেলের (এফ/1.8 অ্যাপারচার) এবং দ্বিতীয়টি LED ফ্লাশের সাথে 5 মেগাপিক্সেলের। আবার সেলফির জন্য 13 মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা আছে। ফোনটিতে কুইক চার্জ প্রযুক্তি যুক্ত 4,000 এমএএইচ ব্যাটারি রয়েছে।

পড়ুন : Realme X এর সাথে লঞ্চ হবে Realme 3i, কি থাকবে এই স্মার্টফোনের চ্যাম্পিয়নে

প্রযুক্তির সাম্প্রতিক খবর আর রিভিউস জানতে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা Whatsapp গ্রুপে যুক্ত হোন আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube.

সমস্ত খবরের আপডেট পেতে এখানে লাইক দিন!