লঞ্চ হল Redmi Note 9 5G, Redmi Note 9 Pro 5G ও Redmi Note 9 4G, সস্তায় নজরকাড়া ফিচার

ঘোষণা অনুযায়ী Xiaomi এর সাব ব্র্যান্ড Redmi আজ ঘরেলু মার্কেটে লঞ্চ করলো Redmi Note 9 সিরিজ। এই সিরিজে তিনটি ফোন আছে Redmi Note 9 5G, Redmi Note 9 Pro 5G ও Redmi Note 9 4G। জানিয়ে রাখি ভারতে এবছরের মার্চে রেডমি নোট ৯ সিরিজ লঞ্চ হয়েছিল। যদিও এই সিরিজের ফোনগুলি সবই 4G কানেক্টিভিটির সাথে এসেছিল। এবার এদের 5G কানেক্টিভিটি সহ চীনের বাজারে লঞ্চ করা হল (একটি ফোন ৪জি কানেক্টিভিটি সহ এসেছে)।

যদিও এই ফোনগুলি পুরোপুরি নতুন স্পেসিফিকেশন সহ বাজারে আসেনি। কারণ Redmi Note 9 Pro 5G ফোনটি আদতে গ্লোবাল মার্কেটে লঞ্চ হওয়া Mi 10T Lite এর রিব্রান্ডেড ভার্সন। যদিও ক্যামেরার ক্ষেত্রে পরিবর্তন আনা হয়েছে। আবার Redmi Note 9 4G ফোনটির স্পেসিফিকেশনের সাথে কোনো অমিল নেই কিছুদিন আগে ইউরোপে লঞ্চ হওয়া Poco M3 এর। এই সিরিজের ফোনগুলিতে কোয়ালকমের প্রসেসরের সাথে মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটির চিপসেটও ব্যবহার করা হয়েছে। আসুন রেডমি নোট ৯ ৫জি, রেডমি নোট ৯ প্রো ৫জি ও রেডমি নোট ৯ ৪জি এর দাম ও স্পেসিফিকেশন জেনে নিই।

Redmi Note 9 5G, Redmi Note 9 Pro 5G ও Redmi Note 9 4G এর দাম

রেডমি নোট ৯ ৫জি এর দাম শুরু হয়েছে ১২৯৯ ইউয়ান থেকে, যা প্রায় ১৪,৫৭৮ টাকার সমান। এই দাম ফোনটির ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজের। আবার ফোনটির ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ এবং ৮ জিবি র‌্যাম ও ২৫৬ জিবি স্টোরেজের দাম যথাক্রমে ১,৪৯৯ ইউয়ান ( প্রায় ১৬,৮৩০ টাকা) ও ১,৬৯৯ ইউয়ান (প্রায় ১৯,০৭০ টাকা)। Redmi Note 9 5G ফোনটি ক্লাউড ইন গ্রে, ফ্লইং শ্যাডো পার্পেল ও আউটসাইড দা ক্যাসেল পিক (ট্রান্সলেট) কালারে পাওয়া যাবে।

এদিকে রেডমি নোট ৯ প্রো ৫জি ফোনটিও তিনটি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের সাথে লঞ্চ হয়েছে। যেগুলি হল ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ, ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ ও ৮ জিবি র‌্যাম ও ২৫৬ জিবি স্টোরেজে। যাদের দাম যথাক্রমে ১,৫৯৯ ইউয়ান ( প্রায় ১৭,৯৫০ টাকা), ১,৭৯৯ ইউয়ান ( প্রায় ২০,২০০ টাকা) ও ১,৯৯৯ ইউয়ান ( প্রায় ২২,৪৪০ টাকা)। Redmi Note 9 Pro 5G ফোনটি সাইলেন্ট স্কাই, ব্লু সি এন্ড স্টার এবং লেক লাইট এন্ড অটোম সিনারিও কালারে (ট্রান্সলেট) উপলব্ধ।

এদিকে রেডমি নোট ৯ ৪জি ফোনটির দাম শুরু হয়েছে ৯৯৯ ইউয়ান থেকে, যা ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ১১,২১৬ টাকা। এই দাম ফোনটির ৪ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজের। এছাড়াও ফোনটি ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ, ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ এবং ৮ জিবি র‌্যাম ও ২৫৬ জিবি স্টোরেজ বিকল্পে উপলব্ধ। যাদের দাম যথাক্রমে ১,০৯৯ ইউয়ান (প্রায় ১২,৩৪০ টাকা) ও ১,২৯৯ ইউয়ান (প্রায় ১৪,৫৮২ টাকা) ও ১৪৯৯ ইউয়ান (প্রায় ১৬,৮৩৪ টাকা)। Redmi Note 9 4G ফোনটি স্মোক ওয়েভ ব্লু, মিস্ট্রি গ্রীন ও ফেদার ব্ল্যাক (ট্রান্সলেট) কালারে উপলব্ধ।

Redmi Note 9 5G এর স্পেসিফিকেশন 

রেডমি নোট ৯ ৫জি ফোনটি ৬.৫৩ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস পাঞ্চ হোল ডিসপ্লে সহ লঞ্চ হয়েছে। এর পিক্সেল রেজোলিউশন ২৩৪০ X ১০৮০, আসপেক্ট রেশিও ১৯.৫:৯, স্ক্রিন টু বডি রেশিও ৯০.৮ শতাংশ ও ব্রাইটনেস ৪৫০ নিটস। ডিসপ্লের সুরক্ষার জন্য আছে কর্নিং গরিলা গ্লাস ৫ প্রটেকশন। ফোনটিতে সাইড মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর দেওয়া হয়েছে

Redmi Note 9 5G ফোনে ব্যবহার করা হয়েছে ২.৪ গিগাহার্টজ অক্টা কোর মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ৮০০ইউ প্রসেসর। সাথে আছে Mali-G57 MC3 জিপিইউ। ফোনটিতে পাবেন ৮ জিবি পর্যন্ত র‌্যাম ও ২৫৬ জিবি পর্যন্ত স্টোরেজ (UFS 2.2)।

ক্যামেরার কথা বললে, ফোনটি ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সহ এসেছে। যার প্রাইমারি ক্যামেরা এফ/১.৭৯ অ্যাপারচার সহ ৪৮ মেগাপিক্সেল। এছাড়াও অন্য দুটি ক্যামেরা হল ৮ মেগাপিক্সেল সুপার ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স (এফ/২.২ অ্যাপারচার ও ১১৮ ডিগ্রী ফিল্ড অফ ভিউ) ও ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো লেন্স। সেলফি ও ভিডিও কলের জন্য এতে আছে ১৩ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা। রিয়ার ক্যামেরায় এইচডিআর, এআই ক্যামেরা, রিয়ার বিউটি, পোর্ট্রেট, ফিল্ম ফ্রেম, রিয়ার পোর্ট্রেট ব্লার অ্যাডজাস্টমেন্ট, নাইট মোড, প্যানোরামা মোড ও প্রফেশনাল মোড প্রভৃতি ফিচার আছে।

পাওয়ারের জন্য এতে ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি উপলব্ধ। যার সাথে ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে। চার্জিংয়ের জন্য এতে আছে ইউএসবি টাইপ সি  পোর্ট। ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১০ বেসড এমআইইউআই ১২ স্কিনে চলে। এর ওজন ১৯৯ গ্রাম।

Redmi Note 9 Pro 5G এর স্পেসিফিকেশন

রেডমি নোট ৯ প্রো ৫জি ফোনে আছে ৬.৬৭ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাসস্ম,স্মল হোল ডিসপ্লে। এর রিফ্রেশ রেট ১২০ হার্টজ, টাচ স্যাম্পেলিং রেট ২৪০ হার্টজ, পিক্সেল রেজুলেশন ১০৮০ x ২৪০০, আসপেক্ট রেশিও ২০:৯ এবং ব্রাইটনেস ৪৫০ নিটস। এই ডিসপ্লে TÜV Rheinland ব্লু রে সার্টিফায়েড। ডিসপ্লের সুরক্ষার জন্য এতে পাবেন কর্নিং গরিলা গ্লাস ৫।

Redmi Note 9 Pro 5G ফোনে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৭৫০জি প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। সাথে আছে এড্রেনো ৬১৯ গ্রাফিক্স। স্টোরেজের কথা বললে রয়েছে, ৮ জিবি পর্যন্ত র‌্যাম ও ২৫৬ জিবি পর্যন্ত স্টোরেজ। মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে এর স্টোরেজ ৫১২ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে। এতে লিকুইডকুল টেকনোলজি ব্যবহার করা হয়েছে। ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১০ বেসড এমআইইউআই ১২ ইন্টারফেস সহ এসেছে।

ফটোগ্রাফির জন্য নোট ৯ প্রো ৫জি ফোনে কোয়াড রিয়ার ক্যামেরা আছে। এর প্রাইমারি ক্যামেরা এফ/১.৭৫ অ্যাপারচার সহ ১০৮ মেগাপিক্সেল। এছাড়াও আছে ১২০ ডিগ্রি ফিলড অফ ভিউ সহ ৮ মেগাপিক্সেল আলট্রা ওয়াইড এঙ্গেল সেন্সর (এফ/২.২), ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো লেন্স ও ২ মেগাপিক্সেল পোর্ট্রেট ডেপ্থ অফ ফিল্ড সেন্সর। সেলফি ক্যামেরার হিসাবে এখানে আছে ১৬ মেগাপিক্সেল সেন্সর। যার সাথে ইলেকট্রনিক ইমেজ স্টেবিলাইজেশান সাপোর্ট করে।

পাওয়ারের জন্য এই ফোনে আছে ৪,৮২০ এমএএইচ ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে। যার সাথে ৩৩ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করবে। চার্জিংয়ের জন্য এতে ইউএসবি টাইপ সি পোর্ট আছে। এতে ডুয়েল স্টেরিও স্পিকার উপলব্ধ।

Redmi Note 9 4G এর স্পেসিফিকেশন

Redmi Note 9 4G ফোনে দেওয়া হয়েছে ৬.৫৩ ইঞ্চি ফুল এইচডি এলসিডি ডিসপ্লে। যার ডিজাইন ওয়াটারড্রপ নচ। এই ডিসপ্লের পিক্সেল রেজোলিউশন ১০৮০ x ২৩৪০ ও স্ক্রিন টু বডি রেশিও ৯০.৩৪ শতাংশ। ডিসপ্লের প্রোটেকশানের জন্য কর্নিং গোরিলা গ্লাস ৩ ব্যবহার করা হয়েছে। এটি TUV Rheinland এর লো ব্লু লাইট সার্টিফিকেশনও পেয়েছে।

Redmi Note 9 4G ফোনটি চলবে ২.০ গিগাহার্টজ অক্টা কোর কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৬৬২ প্রসেসর। ফোনে ৮ জিবি পর্যন্ত র‌্যাম এবং ২৫৬ জিবি পর্যন্ত অনবোর্ড স্টোরেজ পাওয়া যাবে। মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে এর স্টোরেজ ৫১২ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে। ডুয়েল সিমের এই ফোনে অ্যান্ড্রয়েড ১০ নির্ভর এমআইইউআই ১২ অপারেটিং সিস্টেম আছে। ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর ফোনের পাশে অবস্থিত৷

ফটোগ্রাফির জন্য রেডমি নোট নাইন ৪জি ফোনে আছে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ। যার প্রাইমারি ক্যামেরা এফ/১.৭৯ অ্যাপারচার সহ ৪৮ মেগাপিক্সেল। অন্য দুটি ক্যামেরা হল ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো সেন্সর (এফ/২.২) ও ২ মেগাপিক্সেল ডেপ্থ সেন্সর (এফ/২.৪)। সেলফির জন্য ফোনের সামনে  ৮ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা উপলব্ধ, যার অ্যাপারচার এফ/২.০।

দীর্ঘক্ষণ ফোন ব্যবহারের জন্য এতে ৬,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি আছে৷ যা ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করবে। যদিও বক্সের মধ্যে ২২.৫ ওয়াট চার্জিং কেবল উপলব্ধ। ইউএসবি টাইপ সি পোর্টের মাধ্যমে ফোন চার্জ দেওয়া যাবে। এছাড়াও এই ফোনে পাওয়া যাবে আইআর ট্রান্সমিটার ,৩.৫ মিমি হেডফোন জ্যাক, ও ডুয়েল স্টিরিও  স্পিকার৷