গ্লোবাল মার্কেটে লঞ্চ হল Redmi Note 9T এবং Redmi 9T

redmi-note-9t-and-redmi-9t-launched-with-5g-support-price-eur-229-159

অবশেষে আজ গ্লোবাল মার্কেটে লঞ্চ হল Redmi Note 9T এবং Redmi 9T। এরমধ্যে রেডমি নোট ৯টি হল 5G ডিভাইস, যেটি আসলে নভেম্বরে চীনে লঞ্চ হওয়া Redmi Note 9 5G এর রিব্র্যান্ডেড ভার্সন। আবার গ্লোবাল মার্কেটে POCO M3 এবং পরবর্তীতে চীনে Redmi Note 9 4G ও ভারতে Redmi 9 Power নামের আসা ফোনগুলির রিব্র্যান্ডেড ভার্সন Redmi 9T। বলার অপেক্ষা রাখেনা এটি একটি 4G ডিভাইস। যদিও দুটি ডিভাইসে সামান্য কিছু পরিবর্তন করা হয়েছে। সেক্ষেত্রে রেডমি নোট ৯টি ফোনে আছে ফুল এইচডি প্লাস পাঞ্চ হোল ডিসপ্লে, মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ৮০০ইউ প্রসেসর ও ৪৮ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর যুক্ত ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা। আবার রেডমি ৯টি ৬,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি, ওয়াটারড্রপ ডিসপ্লে ও স্ন্যাপড্রাগন ৬৬২ প্রসেসর সহ এসেছে।

Redmi Note 9T এবং Redmi 9T এর দাম

রেডমি নোট ৯টি দুটি স্টোরেজের সাথে লঞ্চ হয়েছে। এর ৪ জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজের দাম ২২৯ ইউরো ( প্রায় ২০,৫৫০ টাকা)। আবার ৪ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজের দাম ২২৯ ইউরো ( প্রায় ২০,৫৫০ টাকা)। ফোনটি দুটি কালারে এসেছে- নাইটফল ব্ল্যাক ও ডেব্রেক পার্পেল। কোম্পানির তরফে জানানো হয়েছে, প্রাথমিক অবস্থায় এই ফোনটি যথাক্রমে ১৯৯ ইউরো (৬৪ জিবি), ২৪৯ ইউরোতে (১২৮ জিবি) পাওয়া যাবে।

রেডমি ৯টি ফোনের দাম শুরু হয়েছে ১৫৯ ইউরো ( প্রায় ১৪,২৮০ টাকা) থেকে। এই দাম ফোনটির ৪ জিবি র‌্যাম + ৬৪ জিবি স্টোরেজের। আবার ফোনটি ৪ জিবি র‌্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজ, ৬ জিবি র‌্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজের সাথে পাওয়া যাবে। যাদের দাম যথাক্রমে ১৮৯ ইউরো (প্রায় ১৬,৯৯০ টাকা ) ও ১৯৯ ইউরো (প্রায় ১৭,৮৯০ টাকা)। ফোনটি কার্বন গ্রে, টুইলাইট ব্লু, সানরাইজ অরেঞ্জ, এবং ওশেন গ্রিন কালারে পাওয়া যাবে।

Redmi Note 9T এর স্পেসিফিকেশন

রেডমি নোট ৯টি কর্নিং গরিলা গ্লাস ৫ প্রটেকশন সহ ৬.৫৩ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস (২৩৪০ X ১০৮০ পিক্সেল) ডিসপ্লের সাথে এসেছে। পাঞ্চ হোল ডিজাইনের এই ডিসপ্লের আসপেক্ট রেশিও ১৯.৫:৯, স্ক্রিন টু বডি রেশিও ৯০.৮ শতাংশ। এই ফোনে মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ৮০০ইউ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। সাথে আছে ৪ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি পর্যন্ত স্টোরেজের। ফোনটিতে সাইড মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর উপলব্ধ।

Redmi Note 9T ফোনে আছে ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সহ ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি। চার্জিংয়ের জন্য এতে ইউএসবি টাইপ সি পোর্ট উপলব্ধ। এই ফোনের ক্যামেরার কথা বললে, এর পিছনে তিনটি ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে। যার প্রাইমারি ক্যামেরা ৪৮ মেগাপিক্সেল (এফ/১.৭৯)। এছাড়াও অন্য দুটি ক্যামেরা হল ৮ মেগাপিক্সেল সুপার ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স (এফ/২.২ অ্যাপারচার ও ১১৮ ডিগ্রী ফিল্ড অফ ভিউ) ও ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো লেন্স। সেলফির জন্য ফোনটিতে আছে ১৩ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা (এফ/২.২৫)। এই ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১০ বেসড এমআইইউআই ১২ ইন্টারফেসে চলবে।

Redmi 9T এর স্পেসিফিকেশন

রেডমি ৯টি ফোনে আছে ৬.৫৩ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস (১০৮০ x ২৩৪০ পিক্সেল) ওয়াটারড্রপ নচ ডিসপ্লে। এর আসপেক্ট রেশিও ১৯.৫:৯ এবং স্ক্রিন টু বডি রেশিও ৯০.৩৪ শতাংশ। ডিসপ্লের প্রটেকশনের জন্য এতে আছে কর্নিং গোরিলা গ্লাস ৩। এতে এড্রেনো ৬১০ জিপিইউ এর সাথে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৬৬২ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। এতে ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সহ ৬,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি আছে। যদিও বক্সে ২২.৫ ওয়াট চার্জার উপলব্ধ।

ফটোগ্রাফির জন্য এই ফোনের পিছনে আছে চারটি ক্যামেরা। এই ক্যামেরাগুলি হল ৪৮ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর (এফ/১.৭৯) + ৮ মেগাপিক্সসেল আলট্রা ওয়াইড লেন্স + ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো লেন্স (এফ/২.২) + ২ মেগাপিক্সেল ডেপ্থ সেন্সর (এফ/২.৪)। এই ফোনের সামনে আছে ৮ মেগাপিক্সেল এআই ফ্রন্ট ক্যামেরা। অন্যান্য ফিচারের কথা বললে এতে আছে আইআর ট্রান্সমিটার ,৩.৫ মিমি হেডফোন জ্যাক, ও ডুয়েল স্টিরিও স্পিকার।