ডাউনলোড স্পিডে সবার শীর্ষে Reliance Jio, আপলোডে এগিয়ে ভোডাফোন আইডিয়া

reliance-jio-and-idea-vodafone-become-top-download-and-upload-speed-data-provider-respectively

মুকেশ আম্বানির রিলায়েন্স জিও আসার পর এক ধাক্কায় অনেকটা বদলে গেছে মোবাইল ব্যবহারকারীদের জীবনযাত্রা। বাজারে Jio এবং Vodafone-Idea বা Airtel এর মত অন্যান্য সংস্থাগুলির মধ্যে সবসময় হাড্ডাহাড্ডি লড়াই চলছে, কে বেশি ভালো পরিষেবা দিতে পারে এই নিয়ে। আপনি যদি জিও ইউজার হন তবে জানলে খুশি হবেন, 4G ইন্টারনেটের ডাউনলোড স্পিডের জন্য অন্যান্য সমস্ত সংস্থাকে ছাড়িয়ে গেছে জিও। অন্যদিকে, ভোডাফোন বা আইডিয়ার মত টেলিকম সংস্থাও পিছিয়ে নেই, তারা ইউজারদের সেরা আপলোড এক্সপিরিয়েন্স দিয়েছে।

প্রসঙ্গত, মার্চ-এপ্রিল মাসে বিভিন্ন টেলিকম সংস্থার নেটওয়ার্ক স্পিড অনেকটাই কমে গেছিল। ওই সময়ে জিওর ডাউনলোড স্পিড ছিল ১৩.৩ এমবিপিএস, ভোডাফোন, এয়ারটেল এবং আইডিয়ার ডাউনলোড স্পিড ছিল যথাক্রমে ৫.৬ এমবিপিএস, ৫.৫ এমবিপিএস এবং ৫.১ এমবিপিএস। জুন মাসে টেলিকম সংস্থাগুলির নেটওয়ার্ক গতি বৃদ্ধি পেয়েছে।

Reliance Jio:

টেলিকম রেগুলেটরি অথরিটি অফ ইন্ডিয়া (TRAI)-এর সর্বশেষ রিপোর্টে জানা গেছে, জুন মাসে রিলায়েন্স জিওর গড় ডাউনলোড স্পিড ছিল ১৬.৫ এমবিপিএস। কিন্তু আপলোড স্পিড ছিল সেকেন্ডে ৩.৪ এমবিপিএস।

Idea:

ট্রাইয়ের তথ্য অনুযায়ী ডাউনলোডের স্পিডের ক্ষেত্রে আইডিয়া জিওর পরের স্থানেই রয়েছে। গত মাসে, আইডিয়া ব্যবহারকারীরা ৮ এমবিপিএস ডাউনলোডের স্পিড পেয়েছে। আবার কোম্পানির আপলোড স্পিড ছিল ৬.২ এমবিপিএস।

Airtel:

মনে করা হচ্ছে, এয়ারটেলের পরিষেবা কিছুটা পিছিয়ে পড়েছে। ওই একই সময়ে এয়ারটেলের ডাউনলোড স্পিড ছিল ৭.২ এমবিপিএস, অথচ আপলোড স্পিড জিওর মতই – ৩.৪ এমবিপিএস।

Vodafone:

আপলোডের স্পিডের কথা বললে, ভোডাফোন-আইডিয়া সেক্ষেত্রে এগিয়ে আছে। জুনে, ভোডাফোনের ও আপলোড স্পিড ছিল ৬.২ এমবিপিএস। এই সংস্থার ডাউনলোড স্পিডও এয়ারটেলের থেকে বেশ কিছুটা বেশি ছিল – প্রায় ৭.৫ এমবিপিএস।