একসঙ্গে ১০০ জনের সঙ্গে ভিডিও কল, জিও আনলো ভিডিও কলিং অ্যাপ JioMeet

এই লকডাউনে ভিডিও কনফারেন্সিং অ্যাপের চাহিদা ব্যাপক ভাবে বেড়েছে। Zoom, Teamlink, Google Meet, Google Duo ইত্যাদি অ্যাপ্লিকেশনগুলির প্রচুর ব্যবহার হচ্ছে। অ্যাপ্লিকেশনগুলিতে রোজ আসছে নতুন নতুন ফিচার। পিছিয়ে নেই জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম WhatsApp-ও।

তবে এবার সমস্ত ভিডিও কনফারেন্সিং অ্যাপকে টেক্কা দিতে Reliance Jio সংস্থা নিয়ে এসেছে ‘JioMeet’ ভিডিও কনফারেন্সিং অ্যাপ। কয়েকদিন ধরেই এই অ্যাপটি সম্পর্কে নানা চর্চা চলছিল। এই অ্যাপটি অ্যান্ড্রয়েড, iOS, উইন্ডোজ, MacOS এবং ওয়েব সহ সমস্ত প্ল্যাটফর্মেই উপলব্ধ। আগ্রহী স্মার্টফোন ইউজাররা এটি JioMeet অফিসিয়াল ওয়েবসাইট থেকে ডাউনলোড করতে পারেন।

কী বিশেষত্ব জিওমিট অ্যাপটির?

JioMeet ব্যবহার করে আপনি ১০০ জনের সাথে ভিডিও কনফারেন্সিং করতে পারবেন তাও ২৪ ঘন্টা ধরে, কোনও বাধা ছাড়াই।
এছাড়া অ্যাপটির পরিষেবা WBRTC সাপোর্টেড, যার ফলে ইউজাররা এই অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড না করেই JioMeet ইনভাইট লিঙ্কের মাধ্যমে ভিডিও কল করতে পারবেন, লিঙ্কটি ফোনের ব্রাউজারের সাহায্যে চলবে। তবে, যিনি কনফারেন্সটি আয়োজন করবেন তাকে অবশ্যই JioMeet অ্যাপটি ডাউনলোড করতে হবে। Google Meet-এর মত এই অ্যাপেও কোনো অংশগ্রহণকারী, হোস্ট ওয়েটিং রুমের অনুমতি পেলে তবেই কনফারেন্সে যোগদান করতে পারবে।

এবার আসি, অ্যাপ্লিকেশনের অন্য ফিচার সম্পর্কে। জিওমিট অ্যাপ্লিকেশনে রয়েছে স্ক্রিন শেয়ার, সেফ ড্রাইভিং মোড, মাল্টি-ডিভাইস লগইন সাপোর্ট, ডিভাইস স্যুইচিং ইত্যাদি ফিচার।

জিও জানিয়েছে, JioMeet-এ ভিডিও কনফারেন্স এনক্রিপ্টেড, এবং পাসওয়ার্ড দ্বারা সুরক্ষিত, সুতরাং ডেটা চুরির ভয় নেই। জানিয়ে রাখি, JioMeet অ্যাপটির মাধ্যমে HD অডিও এবং ভিডিও কল অফার করা যাবে। এছাড়া মিটিং শিডিউল ঠিক করা এবং মিটিং ডিটেইলস শেয়ার করা যাবে। অ্যাপটি বিনামূল্যে ব্যবহার করা যাবে। সংস্থার Jiosaavn, JioTV ইত্যাদি অ্যাপগুলি ইতিমধ্যেই বেশ জনপ্রিয়, দেখা যাক এই নতুন অ্যাপটি কিরকম সাড়া ফেলে।

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।