সাধ্যের মধ্যে সাধ পূরণ! Renault Kwid চাহিদা মেটাচ্ছে মধ্যবিত্তদের

নিরাপত্তার ক্ষেত্রে Renault Kwid মাত্র একটি তারা‌ (১ স্টার) জোগাড় করতে সক্ষম হয়েছিল ২০১৬ সালে

renault-kwid-4-lakhs-unit-sales-complete-in-india-despite-safety-issue

ফ্রেঞ্চ অটোমোবাইল সংস্থা Renault ভারতে পদার্পণ করেছে ১০ বছর হয়ে গেল। সংস্থাটি এদেশের বাজারে বিভিন্ন মডেলের গাড়ি নিয়ে এসেছে। তবে তার মধ্যে একটির চাহিদা সবচেয়ে বেশি, যার নাম Renault Kwid। সম্প্রতি এই গাড়ির ৪ লাখ তম ইউনিটটি একজন গ্রাহকের হাতে তুলে দেওয়ার কথা ঘোষণা করা হয়েছে। দেশের বাজারে এর আত্মপ্রকাশ ঘটার ৫ বছর পূর্ণ হয়ে গেলেও, ভারতের ছোট গাড়ি সেগমেন্টে Renault Kwid একটি অন্যতম জনপ্রিয় নাম হয়ে উঠেছে।

গাড়িটি বিশেষত ভারতীয়দের কথা ভেবেই নির্মাণ করা হয়েছিল বলে জানায় রেনল্ট। কিন্তু এত কিছুর পরেও নিরাপত্তা পরীক্ষায় এর ফাঁকফোকরের জন্য রেনল্ট কুইড সম্পর্কে প্রশ্ন থেকেই যায়। গাড়িটি ২০১৬ সালে আসার আগে এর সুরক্ষার পরীক্ষা নিয়েছিল গ্লোবাল NCAP। কিন্তু পরীক্ষায় প্রাপ্ত মান হতাশ করেছিল সকলকে। নিরাপত্তার ক্ষেত্রে গাড়িটি মাত্র একটি তারা‌ (১ স্টার) জোগাড় করতে সক্ষম হয়েছিল। এরপর সংস্থার তরফে যদিও কুইড-এর সুরক্ষা ক্ষেত্রটি আরো জোরদার করা হয়েছে বলে দাবি করেছে রেনল্ট।

রেনল্ট কুইড-এর একটি ভার্সন ব্রাজিলেও ম্যানুফ্যাকচার করা হয়েছিল, যেটি ল্যাটিন NCAP-র সুরক্ষা সংক্রান্ত পরীক্ষায় তিন তারার (৩ স্টার) মানপত্র পেয়েছিল। গাড়িটির সাইড বডি এবং সম্মুখ সারিতে এয়ার ব্যাগ ও এবিএস ব্রেকিং সিস্টেম দেওয়াতে এই সাফল্য বলে জানা যায়।

রেনল্টের তরফে দাবি করা হয়েছে মারুতি সুজুকি অল্টো-র প্রতিপক্ষ, এই গাড়িতে বর্তমানে একাধিক ফিচার যোগ করা হয়েছে। যেমন ২০.৩১ সেমি টাচস্ক্রীন মিডিয়ান্যাভ যা অ্যান্ড্রয়েড অটো এবং অ্যাপেল কারপ্লে দ্বারা কানেক্ট করা যাবে, ফ্লোর কনসলে এএমটি ডায়েল, ইলেকট্রনিক ওআরভিএম ইত্যাদি।

প্রসঙ্গত, Renault Kwid-কে যে এসইউভি গাড়ির ডিজাইন এবং ফিচার সমৃদ্ধ করে তোলা হয়েছে তা নিঃসন্দেহে বলা যায়। যেইসব ক্রেতারা বাজেটের মধ্যে একটু বেশি ফিচার ও ডিজাইনের গাড়ি পছন্দ করেন এটি তাদের জন্য সেরা প্রমাণিত হতে পারে। যে কারণে এত বছর পরও এর জনপ্রিয়তা ভারতে তাৎপর্যপূর্ণ হারে বেড়ে চলেছে।

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।