সরকারের গ্রীন সিগন্যাল, ভারতে স্মার্টফোন উৎপাদন ফের শুরু করছে স্যামসাং ও রিয়েলমি

স্যামসাং শুক্রবার জানিয়েছে যে তারা রাজ্য সরকারের কাছ থেকে নিজের নয়ডা সেক্টরে স্মার্টফোন উৎপাদন আবার শুরু করার অনুমতি পেয়ে গিয়েছে। কোম্পানি সকলকে এই আশ্বাস দিয়েছে যে, তারা ঐ সেক্টরে আরো বেশি পরিমাণে মোবাইল উৎপাদন শুরু করবে এবং পাশাপাশি সামাজিক সমস্যা এবং অন্যান্য আবশ্যক বিষয়ের দিকেও নজর রাখবে।

এদিন স্যামসাংয়ের দক্ষিণ-পশ্চিমের এরিয়ার কর্পোরেট কমিউনিকেশনের মুখপাত্র পার্থ ঘোষ জানান, ” কারখানা নিজের মত কাজ করা শুরু করে দিয়েছে, যাকে সময়ের সাথে সাথে বৃদ্ধি করা হবে। কর্মচারী সুরক্ষা এবং প্রোডাক্টের মানোন্নয়ন আমাদের প্রথম লক্ষ্য। আমরা এই বিষয়টি সুনিশ্চিত করেছি যে, সরকারি নির্দেশ অনুযায়ী আমাদের কারখানায় সমস্ত রকম সামাজিক সুরক্ষা বজায় রাখা হবে। “

পাশাপাশি স্যামসাং এর মত চীনের প্রসিদ্ধ মোবাইল ব্র্যান্ড রিয়েলমিও মাত্র ২৫ শতাংশ কর্মী নিয়ে তাদের কাজকর্ম শুরু করতে চলেছে আর কিছুদিনের মধ্যে। তারা তাদের গ্রেটার নয়ডা ফ্যাসিলিটিতে প্রায় ২,০০০ কর্মী নিয়ে নিজেদের কাজ শুরু করছে। রিয়েলমি ইন্ডিয়ার ভাইস প্রেসিডেন্ট এবং সিইও মাধব শেঠ জানিয়েছেন যে তারা তাদের ফ্যাক্টরি চালু করার জন্য সমস্ত রকম পারমিশন পেয়ে গিয়েছেন।

তিনি আরো জানান যে, রিয়েলমি সেক্টরে কর্মীদের সুরক্ষা সবথেকে বড় বিষয়। তাই জন্য কর্মীরা যাতে সুষ্ঠুভাবে কাজ চালাতে পারেন সেইদিকে রিয়েলমি নজর রাখবে। শুধু তাই নয় এই কোম্পানিটি বাইরে থাকা কর্মীদের বাড়ি থেকে নিয়ে আসার জন্য এবং গ্রেটার নয়ডায় থাকার জন্য সমস্ত ব্যবস্থা করে দেবে। পাশাপাশি কাজে যোগ দেওয়ার আগে প্রত্যেক কর্মীর রক্ত পরীক্ষা করা হবে।

ভারত সরকার কমলা এবং সবুজ জোনে করোনাভাইরাস লকডাউনের প্রতিবন্ধকতা একটু কমিয়ে দেওয়ার পরেই এই কারখানাগুলি আবার খোলার পরিকল্পনা করা হয়েছে, বলে জানা গিয়েছে সংবাদ সূত্রে।

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।