চীনা স্মার্টফোনগুলিকে বুড়ো আঙুল দেখালো স্যামসাং, উঠে এল দ্বিতীয় স্থানে

samsung-becomes-second-top-smartphone-brand-in-india-in-q2-2020

এবার জনপ্রিয় চীনা স্মার্টফোনগুলিকে কার্যত বুড়ো আঙুল দেখিয়ে, অনলাইন স্মার্টফোন রিটেল চ্যানেলেও দ্বিতীয় স্থান অর্জন করল Samsung। গ্লোবাল মার্কেট ইন্টেলিজেন্স ফার্ম IDC এর রিপোর্টে এই তথ্য উঠে এসেছে। সম্প্রতি আইডিসি, দ্বিতীয় কোয়ার্টারে ভারতের স্মার্টফোন মার্কেটে কোন ব্র্যান্ডের কি অবস্থান সে সম্পর্কিত একটি রিপোর্ট সামনে আনে। এই রিপোর্টে দেখা গেছে দক্ষিণ কোরিয়ান কোম্পানি স্যামসাং দ্বিতীয় কোয়ার্টারে ভালো ফল করেছে। যদিও ৪২.৩ শতাংশ শেয়ার নিয়ে চীনা সংস্থা Xiaomi অনলাইন রিটেল চ্যানেলে শীর্ষস্থানে রয়েছে। তবে রিয়েলমি কে সরিয়ে শাওমির পরেই আছে স্যামসাং। এই রিপোর্টে Realme অনলাইন চ্যানেল শিপমেন্টের ক্ষেত্রে তৃতীয় স্থানে রয়েছে, সংস্থার মার্কেট শেয়ারের পরিমাণ ১৪.৮%।

IDC এর রিপোর্ট অনুযায়ী, এই বছরের এপ্রিল-জুন ত্রৈমাসিকে স্যামসাংয়ের অনলাইন মার্কেট শেয়ার ছিল ২২.৮%। তবে অনলাইনে দ্বিতীয় থাকলেও, ২৯.১ শতাংশ শেয়ার নিয়ে অফলাইন মার্কেটে শীর্ষে দক্ষিণ কোরিয়ান কোম্পানিটি। ইতিমধ্যে স্যামসাং, Benow নামের ব্যবসায়িক প্ল্যাটফর্ম এবং সোশ্যাল মিডিয়া জায়ান্ট ফেসবুকের সাথে জোট বেঁধেছে, যাতে সংস্থার খুচরো বিক্রেতারা ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে বিক্রি শুরু করতে পারে।

অন্য স্মার্টফোন সংস্থাগুলির কথা বললে, Vivo অনলাইন চ্যানেলে চতুর্থ নম্বরে রয়েছে। সংস্থাটি তার ‘Z’ এবং ‘U’ সিরিজের স্মার্টফোনগুলির জন্য অনলাইন বাজারে এই সাফল্য পেয়েছে। সাথে সাশ্রয়ী মূল্যের ‘Y’ সিরিজের ফোনগুলির কারণে বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে সংস্থাটি ২৬.৫ শতাংশ শেয়ার নিয়ে, অফলাইন বাজারে দ্বিতীয় অবস্থানে পৌঁছেছে।

এই বিষয়ে IDC ইন্ডিয়ার ক্লায়েন্ট ডিভাইস অ্যাসোসিয়েট রিসার্চ ম্যানেজার বলেছেন, এখন সোশ্যাল মিডিয়ার সাহায্যে বিভিন্ন ব্র্যান্ডগুলি সহজেই গ্রাহকদের কাছে পৌঁছে যাচ্ছে। সংস্থাগুলি ডোরস্টেপ ডেলিভারি, কন্ট্যাক্ট-লেস পেমেন্ট পরিষেবা দিচ্ছে। আসলে এই লকডাউন পরিস্থিতিতে ভারতে স্মার্টফোনের চাহিদা কমেনি, বরঞ্চ বেড়েছে। যদিও বছরে দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকে GST এবং আরো কিছু কারণে স্মার্টফোনের দাম বেশ কিছুটা বাড়িয়েছিল কোম্পানিগুলি। তবে তা স্মার্টফোন বিক্রিতে বাধা হয়নি।