জোর ধাক্কা খেল চীন! ভিয়েতনামের ফ্যাক্টরির কিছু অংশ ভারতে আনছে Samsung: রিপোর্ট

Samsung তাদের ভিয়েতনামের ম্যানুফ্যাকচারিং ইউনিটের একটি প্রধান অংশ ভারতে স্থানান্তর করতে পারে বলে সংবাদ সূত্রে জানা গিয়েছে

সাউথ কোরিয়ান টেকজায়ান্ট Samsung তাদের ভিয়েতনামের ম্যানুফ্যাকচারিং ইউনিটের একটি প্রধান অংশ ভারতে স্থানান্তর করতে পারে বলে সংবাদ সূত্রে জানা গিয়েছে। সংস্থাটি এখন এদেশে ৪০ বিলিয়ন ডলার অর্থাৎ ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৩ লক্ষ কোটি টাকা মূল্যের ইলেকট্রনিক ডিভাইস উৎপাদন করার চূড়ান্ত পর্যায়ের পরিকল্পনা করছে।

এই রিপোর্ট যদি সত্যি হয় তাহলে, ভিয়েতনামে থাকা Samsung এর বর্তমান ইউনিটের ওপর একটি বড়সড় প্রভাব পড়তে চলেছে। প্রসঙ্গত, চীনের পর ভিয়েতনাম বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম স্মার্টফোন ম্যানুফ্যাকচারিং হাব। রিপোর্টে এটাও বলা হয়েছে, আগামি পাঁচ বছরের জন্য এদেশে ৪০ বিলিয়ন ডলার মূল্যের স্মাটফোন উৎপাদনের উদ্দ্যেশে স্যামসাং ভারত সরকারেও কাছে একটি এস্টিমেট সাবমিট করেছে। এই প্রস্তাবিত ইনভেস্টমেন্টের মধ্যে ২৫ বিলিয়ন ডলারই হয়তো বিনিয়োগ করা হবে সংস্থার যেসব স্মার্টফোনের বাজার মূল্য ২০০ ডলার অর্থাৎ ১৫,০০০ টাকার বেশী সেগুলি বানানোর জন্য। এছাড়া স্যামসাং এই মেড ইন ইন্ডিয়া ফোনগুলিকে দেশের বাইরেও রপ্তানি করবে বলে জানা গিয়েছে।

লার্জ স্কেল ইলেকট্রনিস্ক গুডস প্রোডাকশানের জন্য ভারত সরকার যে Production Linked Incentive Scheme (PLI) ঘোষণা করেছিল, তার প্রধান উদ্যেশ্য ছিল মোবাইল ফোন ম্যানুফ্যাকচারিং এবং স্পেসিফায়েড ইলেকট্রনিক্স কম্পোনেন্টস যেমন- অ্যাসেম্বলি, টেস্টিং, মার্কিং ও প্যাকেজিং ইউনিটসে বিদেশী বিনিয়োগ টানা এবং ডোমেস্টিক প্রোডাকশান বৃদ্ধি করার জন্য আগ্রহী সংস্থাগুলোকে অর্থনৈতিক ইনসেন্টিভ দেওয়া। এই PLI স্কিম একটি কারণ হতে পারে যার জন্য Samsung এদেশে তাদের স্মার্টফোনের প্রোডাকশান লাইনকে বহুমুখী করে তুলতে চাইছে।

জানিয়ে রাখি, বিশ্বে স্যামসাংয়ের সবচেয়ে বড়ো স্মার্টফোন ম্যানুফ্যাকচারিং হাব নয়ডায় অবস্থিত। এখানে উৎপাদিত ফোনগুলিও স্যামসাং বাইরের দেশগুলিতে এক্সপোর্ট করে। এখন দেখার স্যামসাং ভারত সরকারের সমস্ত সুবিধা গ্রহণ করে তাদের প্রোডাকশান লাইন আরও বৃদ্ধি করে কিনা। যদিও স্যামসাংয়ের পক্ষ থেকে এই ব্যাপারে এখনও অফিসিয়ালি কোনো মন্তব্য করা হয়নি।

সম্প্রতি আরও একটি খবর সামনে এসেছিল, যেখানে বলা হয়েছিল Apple তাদের ম্যানুফ্যাকচারিং ইউনিট চীন থেকে সরিয়ে ভারতে স্থানান্তরি করবে। এরফলে কোম্পানির সর্বশেষ লঞ্চ করা iPhone 11 এবং iPhone SE 2020 ভারতে তৈরী হবে।

Shuvro is very much passionate about quiz, writing and extremely enthusiastic to learn the modern scientific and technological discoveries in all over the world.