দুর্ধর্ষ ফিচারের সাথে সস্তায় লঞ্চ হল Samsung Galaxy A11 এবং Galaxy A31

Samsung Galaxy A11

দক্ষিণ কোরিয়ান কোম্পানি স্যামসাং তাদের A সিরিজের নতুন দুটি ফোন বাজারে আনলো। কোম্পানির এই বাজেট ও মিড বাজেট ফোনের নাম Samsung Galaxy A11 এবং Galaxy A31 । যদিও এই ফোনগুলি আগেই গ্লোবাল মার্কেটে এসেছিলো। তবে কোনো দেশে এই দুটি ফোন পাওয়া যাচ্ছিলো না এবং এর দাম ও জানা যায়নি। কিন্তু এবার কোম্পানি স্যামসাং গালাক্সি এ ১১ ও গ্যালাক্সি এ ৩১ কে থাইল্যান্ডে উপলব্ধ করলো। আসুন Galaxy A11 এবং Galaxy A31 এর দাম ও স্পেসিফিকেশন জেনে নিই।

Samsung Galaxy A11 এবং Galaxy A31 দাম :

স্যামসাং গ্যালাক্সি এ ১১ এর ৩ জিবি র‌্যাম ও ৩২ জিবি স্টোরেজের দাম প্রায় ১২,৩০০ টাকা। আবার ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি গ্যালাক্সি এ ৩১ এর দাম ২১,৩০০ টাকা। যদিও এই দুটি আরও কয়েকটি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের সাথে লঞ্চ হয়েছে, যাদের দাম এখনও জানা যায়নি। দুটো ফোনই নীল রঙে কিনতে পাওয়া যাবে।

Samsung Galaxy A11 : 

স্যামসাংয়ের এই ফোনে ৬.৪ ইঞ্চি এইচডি প্লাস ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে। যার রেজুলেশন ৭২০ × ১৫৬০ পিক্সেল। এই ফোনটি ১.৮ গিগাহার্টজ অক্টা কোর প্রসেসর, ২ জিবি ও ৩ জিবি র‌্যাম এবং ৩২ জিবি স্টোরেজের সাথে এসেছে। মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে এর স্টোরেজ বাড়ানো যাবে।

ফটোগ্রাফির জন্য গ্যালাক্সি এ ১১ ফোনে আপনি পাবেন ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ। যার প্রাইমারি ক্যামেরা ১৩ মেগাপিক্সেল, সেকেন্ডারি ক্যামেরা ২ মেগাপিক্সেল ডেপ্থ সেন্সর। এছাড়াও আছে ৫ মেগাপিক্সেল আলট্রা ওয়াইড লেন্স। সেলফির জন্য এই ফোনে পাবেন ৮ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা। এই ফোনে ১৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং যুক্ত ৪,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি আছে।

Samsung Galaxy A31 স্পেসিফিকেশন :

স্যামসাংয়ের এই ফোনে পাবেন ৬.৪ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস AMOLED ডিসপ্লে। যার স্ক্রিন রেজুলেশন ১০৮০ x ২৪০০ পিক্সেল। স্যামসাং গ্যালাক্সি এ ৩১ ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১০ এর উপর চলে। আবার এই ফোনে পাবেন অক্টা কোর মিডিয়াটেক প্রসেসর। গ্রাফিক্সের জন্য এখানে ARM মালি জি৫২ জিপিইউ ব্যবহার করা হয়েছে। ডিভাইসটি ৪ জিবি ও ৬ জিবি র‌্যাম এবং ৬৪ জিবি ও ১২৮ জিবি স্টোরেজের সাথে পাওয়া যাবে। মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে এর স্টোরেজ বাড়ানো যাবে ৫১২ জিবি পর্যন্ত।

ডুয়েল সিমের এই ফোনের পিছনে কোয়াড ক্যামেরা সেটআপ উপলব্ধ। যার প্রধান ক্যামেরা এফ/২.০ অ্যাপারচারের সাথে ৪৮ মেগাপিক্সেল। এছাড়াও অন্য দ্বিতীয় ক্যামেরা হল ৮ মেগাপিক্সেল আলট্রা ওয়াইড এঙ্গেল লেন্স, যার অ্যাপারচার এফ/২.০। এছাড়াও আছে ৫ মেগাপিক্সেলের ম্যাক্রো লেন্স ও ৫ মেগাপিক্সেল ডেপ্থ সেন্সর। সেলফির জন্য এখানে ২০ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা ও পাওয়া যাবে।

আবার সিকিউরিটির জন্য এখানে পাবেন ইন-ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর। আবার এই ফোনে কোম্পানি ৫,০০০ এমএএইচ এর বড় ব্যাটারি দিয়েছে। যার সাথে ১৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করবে। কানেক্টিভিটির জন্য এখানে ডুয়েল ফোরজি, ওয়াই-ফাই, ব্লুটুথ, ইউএসবি টাইপ সি পোর্ট এর মতো ফিচার উপলব্ধ।