দুর্দান্ত সাউন্ড কোয়ালিটি সহ লঞ্চ হল Samsung Galaxy Buds Pro ট্রু ওয়্যারলেস ইয়ারফোন

samsung-galaxy-buds-pro-true-wireless-earphones-launched-price-in-india-specifications-features

গ্যালাক্সি আনপ্যাকড ইভেন্টে Samsung আজ Galaxy S21 সিরিজের ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন লঞ্চ করার পাশাপাশি Samsung Galaxy Buds Pro নামের একটি প্রিমিয়াম ট্রুলি ওয়্যারলেস ইয়ারবাড (TWS) লঞ্চ করলো। ডিজাইনের দিক থেকে এটি অনেকটা গ্যালাক্সি বাডস+ ইয়ারবাড থেকে অনুপ্রাণিত। স্যামসাং গ্যালাক্সি বাডস প্রো-এর বিশেষত্বের কথা বললে এটি ইমারসিভ সাউন্ড, সুপারিওর কল কোয়ালিটি, ইন্টেলিজেন্ট এএনসি (অ্যাক্টিভ নয়েজ ক্যানসেলেশন) সহ একাধিক ফিচারে সজ্জিত হয়ে এসেছে। এছাড়াও এখানে আছে IPX7 ওয়াটার রেসিস্টেন্স, ২০ ঘন্টা পর্যন্ত ব্যাটারি ব্যাকআপ ও ব্লুটুথ ৫ কানেক্টিভিটি। এই ইভেন্টে কোম্পানি SmartTags লঞ্চ করেছে, যার দাম ২৯.৯৯ ডলার (প্রায় ২,২০০ টাকা)। আসুন Samsung Galaxy Buds Pro এর দাম ও স্পেসিফিকেশন জেনে নিই।

Samsung Galaxy Buds Pro এর দাম

প্রিমিয়াম স্যামসাং গ্যালাক্সি বাডস প্রো ইয়ারবাডের দাম ২২৯ ইউরো/২০০ ডলার (প্রায় ১৫,০০০ টাকা) রাখা হয়েছে৷ কাল থেকেই এর প্রি-অর্ডার শুরু হচ্ছে। এটি ফ্যান্টম সিলভার, ফ্যান্টম ভায়োলেট, এবং ফ্যান্টম ব্ল্যাক কালার অপশনে উপলব্ধ হবে। ভারতে Samsung Galaxy Buds Pro কবে পাওয়া যাবে এখনও জানা যায়নি।

Samsung Galaxy Buds Pro এর স্পেসিফিকেশন ও ফিচার

স্যামসাং গ্যালিক্সি বাডস প্রো-তে ১১ মিমি উফার ও ৬.৫ মিমি টুইটার রয়েছে। স্যামসাং বলেছে, ডায়নামিক ও ব্যালেন্সড সাউন্ড সহবরাহের মাধ্যমে এটি স্যামসাংয়ের সেরা অডিও অভিজ্ঞতা সরবরাহ করবে। কল কোয়ালিটির ক্ষেত্রেও এখানে যথেষ্ট উন্নতি লক্ষ্য করা যাবে। গ্যালিক্সি বাডস প্রো ইউজারের কন্ঠকে তিনটি মাইক্রোফোন এবং একটি ভয়েস পিকআপ ইউনিট দিয়ে অবাঞ্ছিত শব্দ থেকে পৃথক করবে, যাতে তার ভয়েস যতটা সম্ভব পরিস্কারভাবে শোনা যায়। এছাড়াও Samsung Galaxy Buds Pro ইয়ারবাডে বাইরে থাকা একটি মাইক্রোফোনে হাই-সিগন্যাল-টু-নয়েজ রেশিও রয়েছে, যা ব্যাকগ্রাউন্ড নয়েজকে আরও নির্মূল করতে পারবে। এই ইয়ারবাডে স্যামসাং তার ব্রান্ড নিউ উইন্ড শিল্ড টেকনোলজি ইন্টিগ্রেট করেছে। ফলে বাইরে থাকা অবস্থায় বাতাসের প্রবাহ বেশী হলে বা বাইকে সওয়ার হওয়ার সময় ইয়ারবাডের মাধ্যমে কথা বলার সময়ও ফোন কলের ক্ল্যারিটি বজায় থাকবে।

ট্রুলি ওয়্যারলেস ইয়ারবাডের মধ্যে গ্যালাক্সি বাডস প্রো সবচেয়ে ইন্টেলিজেন্ট অ্যাক্টিভ নয়েজ ক্যানসেলেশন ফিচারের সাথে এসেছে বলে দাবি করা হয়েছে। কাজে মনোনিবেশ করা বা বিশ্রাম নেওয়ার সময়, এটি ব্যাকগ্রাউন্ড নয়েজকে আপনার পছন্দসই স্তরে ৯৯ শতাংশ পর্যন্ত হ্রাস করতে পারবে। আপনি যদি আবার কোনও কথোপকথন করতে চান, নিকটবর্তী শব্দকে ২০ ডেসিবেল পর্যন্ত অ্যামপ্লিফাই করে নেওয়া যাবে। অর্থাৎ নিজের প্রয়োজন অনুযায়ী অ্যাডজাস্ট ও পার্সোনালাইজ করা যাবে।

ইউজারের অডিও এক্সপেরিয়েন্স অপটিমাইজ করতে এএনসি ও অ্যাম্বিয়েন্ট সাউন্ড তার আশেপাশের সাথে খাপ খাইয়ে নিয়ে স্বয়ংক্রিয়ভাবে একসাথে কাজ করবে। যখন আপনি কথা বলবেন, গ্যালাক্সি বাডস প্রো সেটি সনাক্ত করতে পারবে, এবং তারপর সেটি আশেপাশের সাউন্ড ক্যানসেল বা অ্যামপ্লিফাই করার মধ্যে অটোমেটিক্যালি সুইচ করতে সক্ষম।

গ্যালাক্সি বাডস প্রো-তে অটো সুইচ নামে একটি নতুন ফিচার দেওয়া হয়েছে। এটি কিভাবে কাজ করবে জেনে নেওয়া যাক। আসলে একইসাথে এই ইয়ারবাডটি দুটো স্যামসাং ডিভাইসে (ফোন/ট্যাবলেট) কানেক্ট করা যাবে। এই অবস্থায় ট্যাবলেটে সিনেমা দেখার সময়, ফোনে কল এলে, ইয়ারবাড সিনেমা পজ করে ফোনে সুইচ করবে, যাতে আপনি কল রিসিভ করতে পারবেন। ফোনে কথা বলা হয়ে গেলে এটি আবার ট্যাবলেটে সিনেমা পুনরায় চালু করে দেবে। অন্যদিকে গ্যালাক্সি বাডস প্রো-তে অ্যাপেলের Spatial অডিওর অনুরূপ ডলবি হেড ট্র্যাকিং প্রযুক্তি ভিত্তিক ৩৬০ অডিও রয়েছে এবং সবচেয়ে কম ল্যাটেন্সির প্রয়োজন হলে এতে গেম মোড তো থাকছেই।

Samsung Galaxy Buds Pro প্রত্যেকটি ইয়ারবাডে ৬১ এমএএইচের ব্যাটারি রয়েছে। ফুল চার্জে এটি ৮ ঘন্টা মতন ব্যবহার করা যাবে। এএনসি মোড অন থাকলে সেক্ষেত্রে এটি ৫ ঘন্টা নন-স্টপ ব্যবহার করা যাবে। এএনসি অফ থাকলে ৫ ঘন্টা আর অন থাকলে এটি ৪ ঘন্টার টকটাইম প্রোভাইড করবে। আবার ইয়ারবাডের ওয়্যারলেস চার্জিং কেসের ভেতরে থাকা ৪৭২ এমএএইচ ব্যাটারির দৌলতে অতিরিক্তি ২০ ঘন্টা পাওয়ার রিজার্ভ উপলব্ধ হবে। মাত্র পাঁচ মিনিটের ফাস্ট চার্জিংয়েই এতে ১ ঘন্টার প্লেব্যাক টাইম পাওয়া যাবে। চার্জিংয়ের জন্য আছে ইউএসবি টাইপ সি পোর্ট।

গ্যালাক্সি বাডস প্রো IPX78 ওয়াটার রেজিট্যান্স রেটিংয়ের সাথে এসেছে। SmartThings Find ফিচার থাকার ফলে ইয়ারবাড হারানোর কোনো ভয় থাকবে না। ব্লুটুথ সীমা বা সম্পূর্ণ দৃষ্টির বাইরে থাকলেও এই ফিচার গ্যালাক্সি বাডস প্রো-র সঠিক অবস্থান খুঁজে বের করতে পারবে। কানেক্টিভিটির জন্য এখানে ব্লুটুথ ৫.০ আছে। অ্যান্ড্রয়েড ৭ বা অন্তত ১.৫ জিবি র‌্যাম থাকলেই এটি ডিভাইসের সাথে কানেক্ট করা যাবে।