ভারতে এল Samsung Galaxy M11 এবং Galaxy M01, দাম শুরু ৯ হাজার টাকা থেকে

samsung-galaxy-m11-and-galaxy-m01-launched-in-india

কথা মতো আজ ভারতে লঞ্চ Samsung Galaxy M11 এবং Galaxy M01। কোম্পানি এই দুটি ফোনকে ১০ টাকার রেঞ্জে লঞ্চ করেছে। দুটি ফোনের মধ্যে ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারির সাথে আসছে Galaxy M11। আবার গ্যালাক্সি এম ০১ ফোনে পাবেন ৪,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি। স্যামসাংয়ের এই দুটি ফোনে ভালো সাউন্ড এক্সপেরিয়েন্সের জন্য ডলবি আটমস প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে। সাথে স্যামসাং হেল্থ অ্যাপটি দুটি ফোনেই প্রিইন্সটল আছে।

Samsung Galaxy M11 এবং Galaxy M01 দাম :

স্যামসাং গ্যালাক্সি এম ১১ ফোনের ৩ জিবি র‌্যাম ও ৩২ জিবি স্টোরেজের দাম ১০,৯৯৯ টাকা। বার ৪ জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজের দাম পড়বে ১২,৯৯৯ টাকা। ফোনটি নীল কালো ও বেগুনি রঙে পাওয়া যাবে।

অন্যদিকে Samsung Galaxy M01 এর ৩ জিবি র‌্যাম ও ৩২ জিবি স্টোরেজের দাম ৮,৯৯৯ টাকা। ফোনটি কালো, নীল ও লাল রঙে পাওয়া যাবে। গ্যালাক্সি এম ১১ ও গ্যালাক্সি এম ০১ ফোনটি Amazon ও Flipkart থেকে কেনা যাবে। এছাড়াও অফলাইনেও ফোন দুটি কেনা যাবে।

Samsung Galaxy M11 স্পেসিফিকেশন :

স্পেসিফিকেশনের কথা বললে স্যামসাং গ্যালাক্সি এম ১১ ফোনে ৬.৪ ইঞ্চি এইচডি প্লাস ইনফিনিটি ও ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে। এর ডিসপ্লে ডিজাইন পাঞ্চ হোল। ফোনটির উপরের দিকে বাম দিকের কোনায় পাঞ্চ হোলের মধ্যে ৮ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা রয়েছে। যার অ্যাপারচার এফ/২.০। আবার ফোনটির পিছনে তিনটি ক্যামেরা পাবেন। যার প্রধান ক্যামেরা এফ/১.৮ অ্যাপারচার সহ ১৩ মেগাপিক্সেল। এছাড়াও আছে ৫ মেগাপিক্সেল আলট্রা ওয়াইড এঙ্গেল ক্যামেরা এবং পোর্ট্রেট শটের জন্য ২ মেগাপিক্সেল ডেপ্থ সেন্সর।

এই ফোনে স্ন্যাপড্রাগন ৪৫০ প্রসেসর আছে। অক্টা কোর এই প্রসেসরটির ক্লক স্পিড ১.৮ গিগাহার্টজ। এই ফোনে ৩ জিবি র‌্যাম ও ৩২ জিবি স্টোরেজ আছে। মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে এর স্টোরেজ বাড়ানো যাবে। এই ফোনে ১৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং যুক্ত ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি রয়েছে। এই ফোনে ‘Alive Keyboard’ ফিচার উপলব্ধ। সিকিউরিটির জন্য এখানে পাবেন ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর।

Samsung Galaxy M01 স্পেসিফিকেশন :

এই ফোনে ৫.৭ ইঞ্চি এইচডি প্লাস ইনফিনিটি ভি ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে। ফোনটি কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৪৩৯ প্রসেসরের সাথে এসেছে। র‌্যাম ও স্টোরেজের কথা বললে এতে ৩ জিবি র‌্যাম ও ৩২ জিবি স্টোরেজে রয়েছে। সিকিউরিটির জন্য এখানে পাবেন ফেস আনলক ফিচার। মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে এর স্টোরেজ ৫১২ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে।

ফটোগ্রাফির জন্য এই ফোনের পিছনে আছে ডুয়েল ক্যামেরা। যার প্রাইমারি ক্যামেরা ১৩ মেগাপিক্সেল এবং অন্য ক্যামেরাটি ২ মেগাপিক্সেল। সেলফির জন্য এখানে ৫ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা উপলব্ধ। কানেক্টিভিটির জন্য, এই স্যামসাং ফোনটিতে ৪ জি ভোল্টি, জিপিএস / এ-জিপিএস এফএম রেডিও, মাইক্রো-ইউএসবি এবং ৩.৫ মিমি হেডফোন জ্যাকের মতো ফিচার উপস্থিত।