ভারতে লঞ্চ হল Samsung Galaxy M31 Prime, কেনার আগে অবশ্যই পড়ুন

samsung-galaxy-m31-prime-launched-in-india-at-price-rs-16499

গত মার্চে ভারতে লঞ্চ হয়েছিল Samsung Galaxy M31। আজ এই ফোনটির স্পেশাল এডিশন লঞ্চ করা হল। Samsung Galaxy M31 Prime নামে আসা এই ফোনটিকে দক্ষিণ কোরিয়ান কোম্পানি Amazon এর সাথে হাত মিলিয়ে বাজারে এনেছে। ফলে এই ফোনে আপনি পাবেন অ্যামাজনের কিছু প্রি-ইন্সটল অ্যাপ (অ্যামাজন শপিং, অ্যামাজন প্রাইম ভিডিও, অ্যামাজন প্রাইম মিউজিক, কিন্ডেল এবং অডিবল)। সাথে পাবেন ৩ মাসের অ্যামাজন প্রাইম মেম্বারশিপ। জানিয়ে রাখি স্যামসাং গ্যালাক্সি এম৩১ প্রাইম এর সমস্ত স্পেসিফিকেশন গ্যালাক্সি এম৩১ এর মতই। এমনকি কালারের ক্ষেত্রেও কোনো নতুনত্ব নেই।

জানিয়ে রাখি Samsung Galaxy M31 ভারতে তিনটি স্টোরেজের সাথে উপলব্ধ। যেগুলি হল ৬ জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজ, ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ ও ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ। এদের দাম যথাক্রমে ১৬,৪৯৯ টাকা, ১৭,৪৯৯ টাকা ও ২০,৪৯৯ টাকা। এই ফোনটি ওশেন ব্লু, স্পেস ব্ল্যাক ও আইসবার্গ ব্লু কালারে পাওয়া যায়।

Samsung Galaxy M31 Prime দাম ও সেলের তারিখ

স্যামসাং গ্যালাক্সি এম৩১ প্রাইম এর দাম ১৬,৪৯৯ টাকা। এই দাম ফোনটির ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজের। ফোনটি একটি স্টোরেজের সাথে লঞ্চ হয়েছে।

আগামী ১৬ অক্টোবর Amazon Prime মেম্বাররা এই ফোনটি কিনতে পারবে। প্রিপেড ট্রানজাকশনে মেম্বারদের ১,০০০ টাকা অ্যামাজন পে ক্যাশব্যাক দেওয়া হবে। আবার ১৭ অক্টোবর থেকে সমস্ত ইউজাররা Amazon.in, Samsung.in ও রিটেল স্টোর থেকে ফোনটি কিনতে পারবে। অ্যামাজন গ্রেট ইন্ডিয়ান ফেস্টিভাল সেলে HDFC ব্যাংকের ক্রেডিট ও ডেবিট কার্ড গ্রাহকরা ১০ শতাংশ ডিসকাউন্ট পাবে।

Samsung Galaxy M31 Prime স্পেসিফিকেশন

স্যামসাং গ্যালাক্সি এম৩১ প্রাইম ফোনে ৬.৪ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস সুপার AMOLED ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে। এর ডিসপ্লে ডিজাইন ইনফিনিটি U নচ। আবার এতে ১.৭ গিগাহার্টজ এক্সিনস ৯৬১১ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১০ বেসড ওয়ানইউআই ২.১ সিস্টেমে চলে। র‌্যাম ও স্টোরেজের কথা বললে ফোনটি ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজের সাথে এসেছে। মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে এর স্টোরেজ বাড়ানো যাবে।

ক্যামেরার কথা বললে amsung Galaxy M31 Prime ফোনের পিছনে আছে কোয়াড ক্যামেরা সেটআপ। যার প্রাইমারি ক্যামেরা হল ৬৪ মেগাপিক্সেল। এছাড়াও অন্য তিনটি ক্যামেরা হল ৮ মেগাপিক্সেল + ৫ মেগাপিক্সেল + ৫ মেগাপিক্সেল। সেলফি ও ভিডিও কলের জন্য ফোনের সামনে আছে ৩২ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা। এই ফোনে ১৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জিংয়ের সাথে ৬,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে। সিকিউরিটির জন্য এখানে পাবেন ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর।

এই ফোনটি তাদের জন্য ভালো যারা সবসময় শপিং করতে ভালোবাসেন। কারণ এই ফোনের লকস্ক্রিনে অ্যামাজনের ট্রেন্ডিং প্রোডাক্টের লিস্ট দেখা যাবে। আবার ডান দিকে সোয়াইপ করে আপনি অ্যামাজন অ্যাপে যেতে পারবেন।