Samsung Galaxy S20 4G আর পাওয়া যাবে না, জানুন কারণ

samsung-galaxy-s20-4g-exynos-990-version-to-discontinue-soon

Samsung গতবছর 4G ও 5G কানেক্টিভিটির সাথে Galaxy S20 FE লঞ্চ করেছিল। যদিও ভারতে এসেছিল কেবল এর 4G মডেলটি, যেখানে এক্সিনস ৯৯০ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছিল। তবে সম্প্রতি স্ন্যাপড্রাগন ৮৬৫ প্রসেসরের 5G মডেলটি ভারতে পা রেখেছে। যারপরে জল্পনা শুরু হয়েছে স্যামসাং গ্যালাক্সি এস ২০ ফ্যান এডিশনের ৪জি মডেল টি আর পাওয়া যাবে না।

জনপ্রিয় টিপস্টার @IceUniverse একটি টুইটে জানিয়েছেন, Samsung, Galaxy S20 FE এর স্ন্যাপড্রাগন ৮৬৫ ভার্সনের চাহিদা বেশি দেখার কারণে, এক্সিনস ৯৯০ ভার্সনের প্রোডাকশন বন্ধ করতে পারে। ফলে কিছুদিনের মধ্যে এই মডেলটি আর পাওয়া যাবে না।

যদিও স্যামসাংয়ের তরফে এই বিষয়ে এখনও কিছুই জানানো হয়নি। তবে দুটি ফোনের দামের মধ্যে বেশি পার্থক্য না থাকার কারণে, টিপস্টারের দাবিটি সত্য বলেই মনে হচ্ছে।

জানিয়ে রাখি স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২০ ফ্যান এডিশন ৫জি এর দাম রাখা হয়েছে ৫৫,৯৯৯ টাকা। তবে লঞ্চ অফার হিসাবে ফোনটি ৮,০০০ টাকা ডিসকাউন্টে ৪৭,৯৯৯ টাকায় পাওয়া যাবে। আবার এর ৪জি মডেল ভারতে এখন ৪৪,৯৯৯ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। ফলে মানুষ যে ৩,০০০ টাকা বেশি দিয়ে স্বাভাবিকভাবেই স্ন্যাপড্রাগন প্রসেসর ও ৫জি মডেলের দিকে ঝুঁকবেন, তা বলার অপেক্ষা রাখেনা।

স্পেসিফিকেশনের কথা বললে Samsung Galaxy S20 FE এর 4G ও 5G মডেলের মধ্যে কেবল প্রসেসরের পার্থক্য আছে। এছাড়া এদের মধ্যে আর কোন পার্থক্য দেখা যাবে না। দুটি মডেলেই আছে কর্নিং গরিলা গ্লাস ৩ প্রটেকশন সহ ৬.৫ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস সুপার অ্যামোলেড Infinity-O ডিসপ্লে। আবার এতে ২৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট সহ ৪,৫০০ এমএএইচ ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে। 

পিছনে আছে ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ। এই ক্যামেরাগুলি হল ১২ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর + ১২ মেগাপিক্সেল সেকেন্ডারি সেন্সর + ৮ মেগাপিক্সেল টেলিফোটো সেন্সর, যার সাথে ৩এক্স জুম সাপোর্ট করবে। সেলফি ও ভিডিও কলের জন্য আছে ৩২ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা। ইন ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর সহ এই ফোনে পাওয়া যাবে ওয়াই-ফাই ৬ ও ব্লুটুথ এলই কানেক্টিভিটি।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

A person who is very knowledgeable or enthusiastic about technology and especially high technology