বাজারে এল Samsung Galaxy S20+ ও Galaxy Buds+ BTS এডিশন

আনুষ্ঠানিকভাবে লঞ্চ করে দেওয়া হল স্যামসাং এর নতুন দুটি ডিভাইস Samsung Galaxy S20+ 5G BTS এডিশন এবং Samsung Galaxy S20+ BTS এডিশন। দক্ষিণ কোরিয়ার বিখ্যাত পপ ব্যান্ড BTS এর সঙ্গে যুক্ত হয়ে নতুন এডিশনটি নিয়ে এসেছে স্যামসাং। স্পেশাল এডিশন Samsung Galaxy S20+ এর প্যানেল কালার হবে বেগুনি রঙের, যার নিচে আপনারা বিটিএস এর লোগো দেখতে পাবেন। এছাড়াও স্যামসাং Galaxy Buds+ BTS এডিশনও লঞ্চ করেছে, এবং এতে আপনারা বেগুনি রঙের চার্জিং কেস এবং বিটিএস এর লোগো দেখতে পাবেন।

স্পেসিফিকেশন –

স্পেসিফিকেশনের দিক থেকে দেখতে গেলে এই দুটি নতুন স্মার্টফোন তাদের পুরোনো মডেলের মতোই স্পেসিফিকেশন নিয়ে আসে। এই এডিশনে শুধুমাত্র আপনারা বিটিএস এর লোগো এবং বেগুনি রংয়ের ব্যাক প্যানেল পাবেন। এছাড়াও আপনারা কিছু বিশেষ বিটিএস ওয়ালপেপার এবং থিম এই স্মার্টফোনে পেয়ে যাচ্ছেন। Galaxy buds+ বিটিএস এডিশনটিও একেবারে সাধারণ মডেলের মতোই। শুধুমাত্র কিছু বিটিএসের লোগো এবং রং আপনারা এই নতুন এডিশনে পেয়ে যাবেন।

Samsung Galaxy Buds + :

এই ইয়ারফোনে আপনারা তিনটি মাইক পাবেন দুটি ভিতরের এবং একটি বাইরের। ভালো নয়জ আইসোলেশন এবং অ্যামবিয়েন্ট সাউন্ড টেকনোলজি সাপোর্ট এই ইয়ারফোনে। একটি টু ওয়ে স্পিকার সিস্টেম থাকছে। এছাড়াও গ্যালাক্সি বাডস+ ইয়ারফোন গুলিতে আপনারা ১১ ঘণ্টার ব্যাটারি লাইফ পেয়ে যাবেন। এই ইয়ারফোনে ৮৫ মিলি অ্যাম্পিয়ারের ব্যাটারী রয়েছে এবং এই চার্জিং কেস আপনাকে আরো ১১ ঘন্টার পাওয়ার দিতে পারে।

Samsung Galaxy S20+ BTS এডিশন –

স্পেসিফিকেশন এর দিক থেকে এটি আগের মডেলের একেবারে সমান। এই স্মার্টফোনেও আপনারা ৬.৭ ইঞ্চির অ্যামোলেড ২x ডিসপ্লে পেয়ে যাবেন। এর সাথে থাকছে স্যামসাংয়ের এক্সিনোস ৯৯০ প্রসেসর এবং ৮ জিবি র‌্যাম। এই ফোনে রয়েছে তিনটি রিয়ার ক্যামেরা এবং একটি ১০ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা। এই ফোনের ব্যাটারি ক্যাপাসিটি ৪,৫০০ মিলি অ্যাম্পিয়ার যার সঙ্গে আপনারা অ্যান্ড্রয়েড ১০-র সাপোর্ট পেয়ে যাবেন।

আগামী ১৯ জুন থেকে আপনারা স্যামসাং এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইট samsung.com -এ ফোনটিকে প্রি-অর্ডার করতে পারবেন। এছাড়া এই তিনটি ডিভাইসের বিক্রি শুরু হবে আগামী ৯ জুলাই থেকে। এই দিনটি দক্ষিণ কোরিয়ার পপ ব্যান্ড বিটিএসের সপ্তম অ্যানিভার্সারি। আপাতত আমরা এই নতুন Galaxy Buds+ BTS এর দামের ব্যাপারে জানতে পেরেছি। স্যামসাং এর তরফ থেকে এই হেডফোনের দাম রাখা হয়েছে ১৯৯ মার্কিন ডলার যা ভারতীয় মুদ্রায় ১৫,২০০ টাকার কাছাকাছি।

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।