Samsung Galaxy S20 FE 4G স্ন্যাপড্রাগন ৮৬৫ প্রসেসরের সাথে শীঘ্রই লঞ্চ হচ্ছে, দেখা গেল অফিসিয়াল সাইটে

Samsung Galaxy S20 FE 4G with Snapdragon 865 soc listed on company website

Galaxy S20 FE (Fan Edition) স্মার্টফোনকে ঘিরে Samsung-এর প্রত্যাশা চরম বললে খুব একটা ভুল হবে না। গত বছর Exynos 990  চিপসেট সহ 4G ভ্যারিয়েন্টে Galaxy S20 FE লঞ্চ হয়েছিল। আবার সম্প্রতি Snapdragon 865 চিপসেট সহ ফোনটির 5G ভার্সন ভারতে এসেছে। আবার একই চিপসেট কিন্তু ৫জি মডেম বিহীন Galaxy S20 FE-এর নয়া 4G ভার্সনের ওপর স্যামসাংয়ের কাজ করার কথা বিভিন্ন রিপোর্ট মারফত সম্প্রতি উঠে এসেছিল। স্ন্যাপড্রাগন ৮৬৫ প্রসেসরযুক্ত স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২০ ৪জি  ইতিমধ্যে থাইল্যান্ডের ন্যাশনাল ব্রডকাস্টিং এন্ড টেলিকমিউনিকেশনস কমিশন বা এনবিটিসি এবং ওয়্যারলেস পাওয়ার কনসোর্টিয়ামে ( WPC Certification)-এ দেখা গিয়েছে৷ এবার অফিসিয়াল ভাবে SN-G780G মডেল নম্বর সহ Galay S20 FE 4G স্যামসাং সুইডেনের ওয়েবসাইটে লিস্টেড হয়েছে।

স্যামসাং সুইডেনের ওয়েবসাইটে গ্যালাক্সি এস২০ এফই ৪জি-র নতুন ভার্সন কে ক্লাউড লেভেন্ডার, ক্লাউড নেভি,  ক্লাউড মিন্ট, এবং ক্লাউড রেড কালার অপশনে দেখা গিয়েছে৷ সেখানে ফোনের ৬ জিবি র‌্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টই এখন উপলব্ধ। তবে পরে ৮ জিবি র‌্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভার্সন সংযুক্ত করা হবে বলে ধরে নেওয়া যায়।

Winfuture.de গ্যালাক্সি এস২০ এফই ৪জি-র লিস্টিং সর্বপ্রথম দেখতে পায় এবং তাদের রিপোর্ট অনুযায়ী, জার্মানিতে এটি ৬০০ ইউরোতে (৫৪,১৯২ টাকা) বিক্রি হবে৷ অঞ্চলভেদে দাম পৃথক হওয়ার ঘটনা নিয়ে নতুন করে কিছু বলার নেই।

Samsung Galaxy S20 FE 4G

ওয়্যারলেস পাওয়ার কনসোর্টিয়ামের লিস্টিং থেকে জানা গিয়েছিল যে, গ্যালাক্সি এস২০ এফই এর নতুন ৪জি ভ্যারিয়েন্টে ৪.৪ ওয়াট ওয়্যারলেস চার্জিং সাপোর্ট থাকবে। এছাড়াও, এতে ২৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট থাকার সম্ভাবনা রয়েছে।

গ্যালাক্সি এস২০ এফই এর সুপার অ্যামোলেড ১২০ হার্টজ ডিসপ্লে, শক্তিশালী ব্যাটারি, ফ্ল্যাগশিপ চিপসেট, চমৎকার ক্যামেরার মিশেল প্রিমিয়াম স্মার্টফোনের অন্বেষনে থাকা ক্রেতাদের নজর কাড়বেই। পাশাপাশি, স্ন্যাপড্রাগন ৮৬৫ প্রসেসরের সংযুক্তি স্যামসাংকে চাইনিজ স্মার্টফোন ব্র্যান্ডগুলির সাথে সমানে টক্কর দিতে সাহায্য করবে। Samsung Galaxy S20 FE এর সমকক্ষ ফোনগুলিতে এখন স্ন্যাপড্রাগন ৮৭০ দেখা যাচ্ছে। প্রযুক্তির ভাষায়  বললে, প্রাইম কোরের ওভারক্লক স্পিড ব্যতীত স্ন্যাপড্রাগন ৮৭০ ও স্ন্যাপড্রাগন ৮৬৫ এর পারফরম্যান্সে তেমন কোনো বড় ফারাক নেই। এতএব, প্রিমিয়াম ফোন হিসেবে আপকামিং গ্যালাক্সি এস২০ এফই ৪জি ভাল বিকল্প হয়ে উঠতে পারে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

টেকগাপে শুভ্রর প্রথম প্রযুক্তি বিষয়ক লেখায় হাতেখরি৷ স্নাতক স্তরের পড়াশোনার পাশাপাশি এখানেই চলতে থাকে শুভ্রর লেখালেখি৷ কলেজের অধ্যায় শেষ হওয়ার পর শুভ্র এখন টেকগাপের কনটেন্ট টিমের একজন গুরুত্বপূর্ণ সদস্য৷