লঞ্চের আগেই অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে দেখা গেল Samsung Galaxy S20 FE কে

কয়েকদিন আগেই টেক সাইট, Pricebaba থেকে সামনে আনা হয়েছিল Samsung Galaxy S20 FE এর ছবি ও কিছু স্পেসিফিকেশন। এবার Samsung এর ফিলিপাইনের ওয়েবসাইটে এই ফোনকে অন্তর্ভুক্ত করা হল। যদিও ওয়েবসাইট থেকে গ্যালাক্সি এস ২০ এফই এর কেবল কালার, স্টোরেজ ও সিম সাপোর্ট সম্পর্কে জানা গেছে। এছাড়া অন্য কোনো স্পেসিফিকেশন এখানে উল্লেখ করা হয়নি। তবে এথেকে একটি ব্যাপারে নিশ্চিত হওয়া গেছে যে, Samsung খুব শীঘ্রই Galaxy S20 FE লঞ্চ করবে। হয়তো সেপ্টম্বরের শেষে বা অক্টোবরের শুরুতেই এই ফোনকে আমরা বাজারে দেখতে পাবো।

টিপ্সটার, Evan Blass স্যামসাংয়ের অফিসিয়াল ফিলিপাইনের ওয়েবসাইটে ফোনটি প্রথম দেখতে পায়। এছাড়াও ৯১মোবাইলস থেকেও ওয়েবসাইটে অন্তর্ভুক্ত থাকা অবস্থায় এই ফোনের ছবি শেয়ার করা হয়। যদিও এর কিছুক্ষনের মধ্যেই পেজটিকে ডিলিট করে দেওয়া হয়। তবে ৯১মোবাইলস এর এই ছবি থেকে জানা গেছে, Galaxy S20 FE ফোনটি ডুয়েল সিমের সাথে আসবে। এতে দুটি কালার অপশন থাকবে- ক্লাউড নেভি ও ক্লাউড ল্যাভেন্ডার।

ছবি – ৯১মোবাইলস

এর আগে Pricebaba থেকে জানা গিয়েছিল, এতে একটি সাধারণ ফ্ল্যাট ডিসপ্লে থাকবে। এটি আদতে একটি AMOLED প্যানেল যাতে পাঞ্চ-হোল ডিজাইন দেখতে পাওয়া যাবে। এই ফোনে হালকা বেজেল থাকবে। ফোনটির সামনে একটি ধাতব ফ্রেম থাকতে পারে, যাতে ক্রোমের মতো ফিনিস থাকবে। পেছনের দিকে ম্যাট ফিনিস যুক্ত প্লাস্টিকের ব্যাক প্যানেল থাকবে, ফলে এতে ইউজারের আঙুলের ছাপ দৃশ্যমান হবে না।

ক্যামেরা এবং অন্যান্য স্পেসিফিকেশনের কথা বললে, Samsung Galaxy S20 FE 5G ফোনে ১২০ হার্জ রিফ্রেশ রেট, স্ন্যাপড্রাগন ৮৬৫ প্রসেসর এবং ৪,৫০০ এমএএইচ ব্যাটারি থাকতে পারে। অন্যদিকে ফোনটিতে LED ফ্ল্যাশ সহ ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ দেখা যেতে পারে।

বেশ কয়েকদিন আগেও এই ফোনটি সম্পর্কে কিছু জল্পনা শোনা গিয়েছিল, যেখানে বলা হয়েছিল ফোনের প্রাথমিক ক্যামেরা সেন্সরটি ১২-মেগাপিক্সেল সনি সেন্সর হতে পারে। এছাড়া ১২-মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা-ওয়াইড অ্যাঙ্গেল ক্যামেরা এবং ৮-মেগাপিক্সেলের টেলিফোটো ক্যামেরা থাকতে পারে। তবে মনে হচ্ছে, স্মার্টফোনটিতে কোনো অডিও জ্যাক থাকবে না। বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন এই ফোনের দাম ৭৫০ ডলার অর্থাৎ প্রায় ৫৬ হাজার টাকা হতে পারে।