5G নেটওয়ার্ক সাপোর্টের সাথে ভারতে আসবে Samsung Galaxy S21 সিরিজ

আগামী জানুয়ারিতেই Samsung এর ফ্ল্যাগশিপ ফোন Galaxy S21 সিরিজ লঞ্চ হওয়ার কথা। Galaxy S21 সিরিজের রিলিজ ডেট যতই এগিয়ে আসছে এর সর্ম্পকে আরো বিস্তারিত তথ্য আমাদের সামনে আসা শুরু করেছে। পূর্বে Samsung তার ফ্ল্যাগশিপ S20 সিরিজকে 5G ভ্যারিয়েন্টে ইন্টারন্যাশনাল মার্কেটে লঞ্চ করলেও সেটি শুধুমাত্র 4G সাপোর্টের সাথেই ভারতে আনা হয়েছিল। তবে Samsung এবার 5G সাপোর্টের সাথেই ভারতে Galaxy S21 সিরিজ লঞ্চ করতে চলেছে। জনপ্রিয় টিপস্টার ইশান আগরওয়াল এই তথ্যটিই আজ ফাঁস করেছেন।

Samsung Galaxy S21 সিরিজের S21, S21 Plus এবং S21 Ultra, এই তিনটি মডেলই 5G ভ্যারিয়েন্টে ভারতে উপলব্ধ হবে। ইশান আগরওয়াল জানিয়েছেন এই ফোন তিনটির মডের নম্বর হবে G991B, SM-G996B, এবং SM-G998B। বেঞ্চমার্ক প্লাটফর্ম গিকবেঞ্চে S21-কে এক্সিনস ২১০০ ও কোয়ালকমের স্ন্যাপড্রাগন ৮৭৫ চিপসেটের সাথে অর্ন্তভুক্ত করা হয়েছিল। ফলে বলা যায়, এই সিরিজের তিনটি ফোনই মার্কেটের ভিত্তিতে স্যামসাংয়ের নিজস্ব এক্সিনস ২১০০ বা স্ন্যাপড্রাগন ৮৭৫ চিপসেটের সাথে উপলব্ধ হবে। ভারতে অবশ্য ফোনটি এক্সিনস ভ্যারিয়েন্টে আসতে চলেছে।

গত সপ্তাহে Samsung Galaxy S21 সিরিজের একগুচ্ছ স্পেসিফিকেশন ফাঁস করে Android Police একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছিল। সেই অনুযায়ী S21, S21 Plus এবং S21 Ultra-র সম্ভাব্য স্পেসিফিকেশন গুলি নিম্নরূপ।

Samsung Galaxy S21

Samsung Galaxy S21 ফোনে  ৬.২ ইঞ্চি এফএইচডি প্লাস ডিসপ্লে ব্যবহার করা হবে। এর রিফ্রেশ রেট ১২০ হার্টজ। ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপের এই ফোনে থাকবে ১২ মেগাপিক্সেলের প্রাইমারি সেন্সর, ১২ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা ওয়াইড লেন্স, এবং ৬৪ মেগাপিক্সেলের টেলিফটো লেন্স। পাওয়ারের জন্য থাকবে ৪০০০ এমএইচ ব্যাটারি। S21 সিরিজের প্রত্যেকটি ফোনেই অ্যান্ড্রয়েড ১১ অপারেটিং সিস্টেমে চলবে। এই ফোনে ইউজার ইন্টারফেস হিসেবে পাবেন ওয়ান ইউআই ৩.১। কানেক্টিভিটি অপশান হিসেবে থাকবে 5G, Wi-Fi 6, ব্লুটুথ ৫.১। ফোনটি ফ্যান্টম ব্ল্যাক, ফ্যান্টম পিঙ্ক, ফ্যান্টম গ্রে, এবং ফ্যান্টম হোয়াইট রঙের বিকল্পে পাওয়া যাবে।

Samsung Galaxy S21+

Samsung Galaxy S21+ ফোনে ৬.৭ ইঞ্চি এফএইচডি প্লাস এলটিপিএস ডিসপ্লে দেওয়া হবে। যার রিফ্রেশ রেট থাকবে ১২০ হার্টজ। ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপের এই ফোনে থাকবে ১২ মেগাপিক্সেলের প্রাইমারি সেন্সর, ১২ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা ওয়াইড লেন্স, এবং ৬৪ মেগাপিক্সেলের টেলিফটো লেন্স। এই ফোনে পাওয়া যাবে ৪৮০০ এমএইচ ব্যাটারি। কানেক্টিভিটি অপশান হিসেবে থাকবে 5G, Wi-Fi 6, ব্লুটুথ ৫.১। এটি ফ্যান্টম সিলভার, ফ্যান্টম ব্ল্যাক, এবং ফ্যান্টম ভায়োলেট কালার অপশানে উপলব্ধ হবে।

Samsung Galaxy S21 Ultra

Samsung Galaxy S21 Ultra ফোনে ব্যবহার করা হবে ৬.৮ ইঞ্চি কোয়াডএইচডি ডিসপ্লে। এতে ১২০ হার্টজ অ্যাডাপ্টিভ রিফ্রেশ রেট থাকবে। ক্যামেরার কথায় আসলে এর প্রাইমারি সেন্সর হবে ১০৮ মেগাপিক্সেলের। এছাড়া থাকবে ১২ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা ওয়াইড সেন্সর, এবং ১০ মেগাপিক্সেলের অপটিকাল টেলিফটো ও সুপার টেলিফটো লেন্স। কানেক্টিভিটি অপশান হিসেবে থাকবে 5G, Wi-Fi 6E, ব্লুটুথ ৫.১ ৷ ফোনটি ফ্যান্টম সিলভার, ফ্যান্টম সিলভার রঙে কেনা যাবে।

S21 সিরিজের তিনটি ফোনেই নূন্যতম ২৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং থাকতে পারে বলে জানা গেছে। কিছু রিপোর্টে বলা হয়েছে, Galaxy S21 Ultra ফোনটি S পেন সাপোর্টের সাথে আসতে চলেছে। তবে এর জন্য ফোনটিতে ডেডিকেটেড স্লট থাকবে না।  ফোনগুলির আনুমানিক দাম সর্ম্পকে এখনই কিছু জানা যায় নি। তবে আশা করা যায়, ফোনগুলির বাকি স্পেসিফিকেশনের সাথে চূড়ান্ত দামের একটি চিত্রও শীঘ্রই আমাদের সামনে চলে আসবে।