বড় ডিসপ্লে সহ সামনে এল Samsung Galaxy Z Fold 2 ফোল্ডিং ফোন, সেপ্টেম্বর থেকে প্রি-বুকিং

samsung-galaxy-z-fold-2-price-not-unveiled-sale-sate-1-september-features-specifications

অবশেষে সামনে এল Galaxy Fold এর আপগ্রেড ভার্সন Samsung Galaxy Z Fold 2। দক্ষিণ কোরিয়ায় আয়োজিত গ্যালাক্সি আনপ্যাকেড ২০২০ ইভেন্টে স্যামসাং এই ফোল্ডিং ফোনের বিষয়ে জানিয়েছে। যদিও কোম্পানি এখনো পর্যন্ত সম্পূর্ণরূপে তাদের Galaxy Z Fold 2 লঞ্চ করেনি, তবে তারা এই ফোনের একটি টিজার নিয়ে এসেছে যাতে আমরা এই ফোল্ডিং ফোনের ব্যাপারে কিছুটা জানতে পেরেছি। স্যামসাংয়ের এই ভিডিওটিতে মূলত Galaxy Z Fold 2 এর দুটি ডিসপ্লেকে দেখানো হয়েছে। আসুন স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফোল্ড ২ ফোনের বিষয়ে বিস্তারিত জেনে নিই।

Samsung Galaxy Z Fold 2 এর ভিতরের স্ক্রীনটি ৭.৬ ইঞ্চির, যেখানে আগের ভার্সনে স্ক্রিনের দৈর্ঘ্য ছিল ৭.৩ ইঞ্চি এবং এই ডিসপ্লেতে আপনারা পাবেন আল্ট্রা থিং গ্লাস (UTG) টেকনোলজি। এই টেকনোলজির কারণে ইমেজ কোয়ালটি অনেক ভালো হবে এই ফোল্ডিংফোনে।

ফোনের বাইরের স্ক্রীন অনেকটা বেশি বড় করা হয়েছে – ৬.২ ইঞ্চি। এই স্মার্টফোন যখন আপনি ফোল্ড করবেন তখন সম্পূর্ণ জায়গা স্ক্রিন দখল করে নেবে। কোম্পানির দাবি Fold 2 স্মার্টফোন সম্পূর্ণরূপে ফোল্ড করেও ব্যবহার করা যাবে, যদিও তখন আপনার সাধারন স্মার্টফোনের মতো ফিল আসবে। এছাড়াও এই ফোনের ফ্রন্ট ফেসিং এবং ইন্টার্নাল ক্যামেরাগুলিতে পাঞ্চ হোল টেকনোলজি ব্যবহার করা হয়েছে।

তবে স্যামসাং এর তরফ থেকে অফিশিয়ালি, এর থেকে বেশি কোন তথ্য দেওয়া হয়নি। এখনো আমরা ঠিকভাবে জানিনা যে, এই স্মার্টফোনে কোন চিপসেট, ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়েছে। তবে জনপ্রিয় ইন্টারনেট ওয়েবসাইট XDA আমাদের কাছে এই স্মার্টফোনের ব্যাপারে আরও কিছু তথ্য নিয়ে এসেছে। এই তথ্য মূলত তাদের ধারণার উপর তৈরি করা হয়েছে, স্যামসাং এর তরফ থেকে এই স্পেসিফিকেশন জানানো হয়নি।

XDA রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে, Samsung Galaxy Z Fold 2 স্মার্টফোনের ভিতর দিকে স্ক্রীন অ্যামোলেড 2x কোয়ালিটির হবে এবং রিফ্রেশ রেট হবে ১২০ হার্টজ। তবে আপনারা কোনো এস – পেন সাপোর্ট পাবেন না এই স্মার্টফোনে। এই স্মার্টফোনের প্যানেলের রেজুলেশন ১৭৬৮×২২০৮ পিক্সেল এবং অ্যাসপেক্ট রেশিও ৫:৪ হবে। তবে এবারে কোন রকম নচ নেই এই ডিভাইসে। আগের থেকে এই ডিভাইসে বেজল এর পরিমাণ অনেকটা কম বলে রিপোর্টে জানানো হয়েছে।

বাইরের দিকের ডিসপ্লেতে সুপার অ্যামোলেড ৬০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট যুক্ত প্যানেল ব্যবহার করা হয়েছে। এই প্যানেলের রেজুলেশন ৮১৬×২২৬০ পিক্সেল এবং অ্যাসপেক্ট রেশিও ২৫:৯। দুটি প্যানেলই HDR 10+ সাপোর্ট করছে এবং এই স্মার্টফোনের সাইডে ফিঙ্গারপ্রিন্ট রিডার রয়েছে।

রিপোর্টে বলা হয়েছে Samsung Galaxy Z Fold 2 ফোনে থাকবে ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ, যার মধ্যে প্রধান ক্যামেরা হবে ১২ মেগাপিক্সেল। এই ক্যামেরায় অপটিক্যাল ইমেজ স্ট্যাবিলাইজেশন, এবং এফ/২.০ এর অ্যাপারচার ব্যবহার করা হয়েছে। বাকি দুটি ক্যামেরার মধ্যে একটি হলো টেলিফটো লেন্স এবং অন্যটি আল্ট্রা ওয়াইড লেন্স। দুটি ফ্রন্ট ফেসিং ক্যামেরা হবে ১০ মেগাপিক্সেল এবং এফ/২.২ অ্যাপারচার যুক্ত।

হাই এন্ডেড স্মার্টফোন হওয়ায় মনে করা হচ্ছে গ্যালাক্সি জেড ফোল্ড ২ স্মার্টফোনে ব্যবহার করা হবে স্ন্যাপড্রাগন এর ৮৬৫+ চিপসেট। এছাড়াও দেওয়া হবে ১২ জিবি LPDDR5 র‌্যাম এবং ২৫৬ জিবি অন বোর্ড স্টোরেজ। এই ফোন ৫জি কানেক্টিভিটি সাপোর্ট করে। এই ফোনে ব্যাটারি থাকতে পারে ৪,৫০০ মিলি অ্যাম্পিয়ারের। এবং এটি সাপোর্ট করবে ২৫ ওয়াটের ফাস্ট ওয়্যারড চার্জিং এবং ১১ ওয়াটের ওয়্যারলেস চার্জিং।

Samsung Galaxy Z Fold 2 কালার অপশন:

এই স্মার্টফোনে আপনারা পাবেন দুটি কালার অপশন – মিষ্টিক ব্ল্যাক এবং মিষ্টিক ব্রোঞ্জ। এছাড়াও গ্যালাক্সি জেড ফোল্ড ২ এর একটি ফ্যাশন ফোকাস লিমিটেড এডিশনও আসতে পারে।

গ্যালাক্সি জেড ফোল্ড ২ স্মার্টফোনে ব্যবহার করা হতে পারে নতুন হিঞ্জ টেকনোলজি – ফ্লেক্স মোড। এর মাধ্যমে আপনারা আপনার ফোন স্ট্যান্ড আপ করতে পারবেন। এছাড়াও আপনি হিঞ্জ কভার কাস্টমাইজ করতে পারবেন নিজের মত। অর্ডার করার সময় আপনারা নিজের ইচ্ছামত রং পছন্দ করতে পারেন। তবে এই ফিচার ভারতের জন্য আসবে কিনা সে ব্যাপারে সন্দেহ আছে। যদি আসে তাহলে আপনি, এই হিঞ্জের রং এর জন্য – রুবি রেড, রিচ গোল্ড, প্লাটিনাম সিলভার এবং স্যাফায়ার ব্লু , এই চারটির মধ্যে যেকোনো একটি পছন্দ করতে পারেন।

আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে এই নতুন Samsung Galaxy Z Fold 2 প্রি অর্ডার করা শুরু হবে। তখনই আমরা এই নতুন স্মার্টফোনের সকল ফিচার এবং দাম অফিশিয়ালি জানা যাবে।