কত জিবি মেমরি সহ আসছে Samsung Galaxy Z Fold 3 ও Galaxy Z Flip 3, জেনে নিন

samsung-galaxy-z-fold-3-flip-3-storage-model-number-os-leaked.jpg

চলতি বছরের জুলাইয়ে লঞ্চ হতে পারে Samsung Galaxy Z Fold 3 এবং Galaxy Z Flip 3। এরমধ্যে জেড ফোল্ড ৩ হবে ফোল্ডেবল ডিভাইস। আবার ক্ল্যামশেল ডিজাইনের সাথে আসবে জেড ফ্লিপ ৩ ফোনটি। ইতিমধ্যেই এই ফোন দুটি সম্পর্কে নানা রকম তথ্য ইন্টারনেটে ফাঁস হয়েছে। এবার এদের মডেল নম্বর, স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্ট ও অপারেটিং সিস্টেম সম্পর্কে জানা গেল। প্রসঙ্গত গ্যালাক্সি জেড ফ্লিপ ৩ গতবছরে লঞ্চ হওয়া গ্যালাক্সি জেড ফ্লিপ এর আপগ্রেড ভার্সন হবে। আবার গ্যালাক্সি জেড ফোল্ড ২ এর উত্তরসূরি হিসাবে আসবে গ্যালাক্সি জেড ফোল্ড ৩। 

Sammobile এর রিপোর্ট অনুযায়ী, Samsung Galaxy Z Fold 3 ফোল্ডেবল ফোনটির মডেল নম্বর হবে SM-F926। আবার SM-F711 মডেল নম্বর থাকবে পরবর্তী ক্ল্যামশেল ডিভাইস Galaxy Z Flip 3 এর। এরমধ্যে ফোল্ডেবল ফোনটি ২৫৬ জিবি স্টোরেজ সহ আসবে। অন্যদিকে ক্ল্যামশেল ডিভাইসটি পাওয়া যাবে ১২৮ জিবি ও ২৫৬ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের।

এই প্রসঙ্গে জানিয়ে রাখা ভালো যে, গ্যালাক্সি জেড ফ্লিপ ও গ্যালাক্সি জেড ফোল্ড ২ গতবছর একই স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্ট সহ লঞ্চ হয়েছিল। সেক্ষেত্রে আপগ্রেড ভার্সনে কোনো নতুনত্ব থাকছেনা। আবার এই দুটি ফোন অ্যান্ড্রয়েড ১১ বেসড ওয়ান ইউআই ৩.৫ সিস্টেম চলবে বলে রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে।

রিপোর্ট অনুযায়ী, স্যামসাং গ্যালাক্সি ফোল্ড ৩ ফোনের প্রাইমারি ডিসপ্লের সাইজ হবে ৭.৫৫ ইঞ্চি। আবার সেকেন্ডারি ডিসপ্লের সাইজ হবে ৬.২১ ইঞ্চি। এতে  S Pen সাপোর্ট থাকবে। আবার ফোনটি আন্ডার ডিসপ্লে ক্যামেরা সহ আসতে পারে। এতে ব্যবহার করা হবে এক্সিনস ২১০০ প্রসেসর।

অন্যদিকে জেড ফ্লিপ ৩ ফোনের দুটি ডিসপ্লের সাইজ হতে পারে যথাক্রমে ৬.৭০ ইঞ্চি ও ১.৮১ ইঞ্চি। প্রাইমারি ডিসপ্লের রিফ্রেশ রেট হবে ১২০ হার্টজ। Samsung Galaxy Z Flip 3 ফোনটি ১,৪৯৯ ডলার (প্রায় ১,০৯,৬০০ টাকা) মূল্যে বাজারে আসতে পারে, যা আগের ভার্সনের থেকে ৫০ ডলার বেশি।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন