অ্যাপলের A14 Bionic কে টেক্কা দিতে শক্তিশালী এক্সিনস প্রসেসর আনছে Samsung

samsung-working-on-exynos-chipset-to-beat-apple-a14-bionic.jpg

Apple কে ছুঁতে এবার কোমর বেঁধে নামছে Samsung। আসলে স্মার্টফোনের মত প্রসেসরের দিক থেকেও অ্যাপলকে কড়া টক্কর দেওয়ার পরিকল্পনা করছে দক্ষিণ কোরিয়ান টেক জায়ান্টটি। প্রযুক্তি কেন্দ্রিক নিউজ পোর্টাল ithome, কোরিয়ান কমিউনিটি ওয়েবসাইট Clien-এর একটি প্রতিবেদন উদ্ধৃত করে জানিয়েছে, পারফরম্যান্সের দিক থেকে Apple-এর A14 Bionic চিপসেটকে ছাপিয়ে যাওয়ার লক্ষ্যে Samsung একটি নতুন Exynos চিপসেটের ওপর কাজ করছে।

অতি সম্প্রতি Samsung তাদের S21 সিরিজের অধীনে S21, S21+, এবং S21 নামে তিনটি ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন বাজারে এনেছে। অঞ্চলভেদে এই ডিভাইসগুলিতে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ ও এক্সিনস ২১০০ চিপসেট ব্যবহার করা হয়েছে। প্রাথমিক টেস্টে এক্সিনস ২১০০-এর সিপিইউ পারফরম্যান্স স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮-এর সমকক্ষ হলেও জিপিইউ পারফরম্যান্সে এক্সিনস ২১০০ বেশ অনেকখানি পিছিয়ে। যদিও পূর্ববর্তী এক্সিনস ৯৯০-এর তুলনায় এক্সিনস ২১০০ আরও বেশী কার্যকারিতার সাথে এসেছে।

বলা বাহুল্য, পারফরম্যান্স বিচার করলে এ১৪ বায়োনিক-এর তুলনায় এক্সিনস ২১০০ বেশ অনেকটাই পিছিয়ে। এই পটভূমিতে স্যামসাং এবার তাদের আসন্ন চিপসেটগুলিতে গ্রাফিক্সের কার্যকারিতা বৃদ্ধি করার জন্য এএমডি (AMD)-র সাথে কাজ করছে। রিপোর্ট বলছে, Apple iPhone 12 সিরিজে ব্যবহৃত এ১৪ বায়োনিক-কে টেক্কা দিতে স্যামসাং এই নতুন চিপসেট চলতি বছরের প্রথম বা দ্বিতীয় প্রান্তিকে লঞ্চ করতে পারে।

এদিকে স্যামসাংয়ের নতুন চিপ নিয়ে প্রত্যাশাও বাড়ছে। কারন GFXBench-এর ডেটা অনুযায়ী এর পারফরম্যান্সের ফলাফলগুলিও চিত্তাকর্ষক এবং এটি বেশ বড়ো ব্যবধানে A14 Bionic-এর তুলনায় এগিয়ে। তবে অপ্টিমাইজেশনের পর এই চিপের আসল কার্যকারিতা দেখার জন্য আমাদের অপেক্ষা করতে হবে। সেইসঙ্গে গ্যালাক্সি নোট সিরিজের নতুন ফোন আসা নিয়ে যেহেতু প্রশ্ন আছে, তাই স্যামসাং প্রথম কোন ডিভাইসে এই নতুন চিপসেট ব্যবহার করবে তা এখনও স্পষ্ট নয়।