আঙুলের আংটির মাধ্যমে চার্জ হবে Samsung স্মার্টফোন থেকে পাওয়ার ব্যাংক

বর্তমানে বাজারের প্রতিটি স্মার্টফোন ব্র্যান্ডই তাদের ডিভাইসে নতুনত্ব আনার চেষ্টা করে, তা সে ফোনের হার্ডওয়্যার স্পেসিফিকেশনেই হোক কিংবা সফ্টওয়্যার। নতুন ফিচার আনার ক্ষেত্রে পিছিয়ে নেই ইলেকট্রনিক্স জায়ান্ট Samsung-ও। কিছুদিন আগেই জানা গিয়েছিল, দক্ষিণ কোরিয়ার এই সংস্থাটি তার পরবর্তী ডিভাইসগুলিতে ব্যাটারি ক্যাপাসিটি আরো উন্নত করার চেষ্টা করছে। তবে আজ একটি খবর সামনে এসেছে, যেখানে বলা হয়েছে ডিভাইসের ব্যাটারি চার্জিংয়ের ক্ষেত্রেও নতুনত্ব আনতে চলেছে Samsung। রিপোর্ট অনুযায়ী, সংস্থাটি, দক্ষিণ কোরিয়ার পেটেন্ট অফিসে একটি ছোট রিং-এর মতো উইয়ারেবল বা পরিধানযোগ্য ডিভাইসের পেটেন্ট জমা করেছে যা ইউজারের স্মার্টফোনটি চার্জ করতে সক্ষম বলে দাবি করা হচ্ছে। এই ডিভাইসের পেটেন্টটি Samsung-এর GalaxyClub প্রোগ্রামেও লক্ষ্য করা গেছে। সেখানে প্রোডাক্টটির বিবরণে সংস্থাটি নিজেই বলেছে যে এটির সাহায্যে স্মার্টফোনে ওয়্যারলেস চার্জ দেওয়া যাবে। সুতরাং বলা যায়, আগামী দিনে আঙুলের আংটিই হয়ে উঠতে পারে মুঠোফোনের চার্জার!

এদিকে, পেটেন্টের বিবরণে আরো বলা হয়েছে যে, এই রিং ডিভাইসে এমন কোনো ব্যাটারি থাকবে না যার মাধ্যমে ইউজাররা যখন খুশি তাদের ফোন চার্জ করতে পারবেন বা ডিভাইসটিকে পাওয়ার ব্যাংক হিসেবে ব্যবহার করতে পারবেন। বদলে এই বিশেষ ডিভাইসতে একটি ম্যাগনেটিক বা চৌম্বকীয় ডিস্ক এবং একটি ছোট জেনারেটর রয়েছে যা ইউজারদের হাত বা আঙ্গুল নড়লেই বিদ্যুৎ উৎপন্ন করে।

তবে, এতে একটি ব্যাটারি থাকবে যার সাহায্যে এটি স্বল্প সময়ের জন্য উৎপাদিত বিদ্যুৎ ধরে রাখতে সক্ষম হবে। এছাড়া, এই রিং ডিভাইসটি দেহের তাপকে বিদ্যুতে রূপান্তরিত করতে সক্ষম হবে বলে জানা গিয়েছে। কিন্তু ডিভাইসটি কত ছোট হবে বা এর আকার কেমন হবে সেই নিয়ে এখনও পর্যন্ত কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি।

স্যামসাংয়ের এই ওয়্যারলেস চার্জিং প্রযুক্তিটি যে নিঃসন্দেহে বেশ আকর্ষণীয় এবং অভিনব হতে চলেছে তাতে কোনো সন্দেহ নেই। কিন্তু একই সাথে ডিভাইসটির কার্যকারিতা নিয়ে মনে কিছু প্রশ্নের দানা বাঁধাটাও অস্বাভাবিক নয়। বিভিন্ন ইউজারের শরীরের গঠন আলাদা হবে, সেক্ষেত্রে রিং-এর আকার কীরকম হবে বা এই কারণে ডিভাইসটির কোনো প্রতিবন্ধকতা থাকবে কিনা তা এখনও স্পষ্ট নয়। অন্যদিকে, ডিভাইসটির জন্য অতি ক্ষুদ্র কম্পোনেন্ট তৈরি করাও সংস্থার জন্য একটি বড় চ্যালেঞ্জ হতে পারে। এছাড়া, আধুনিক স্মার্টফোনগুলি চার্জ করার জন্য প্রচুর শক্তি প্রয়োজন, সেখানে এই রিং ডিভাইসটি কী পরিমাণ শক্তি উৎপন্ন করতে পারে সেটাও এখনও অজানা। তবে আশা করা যায়, আগামী দিনগুলিতে স্যামসাং এই ডিভাইসটি সম্পর্কে আরো কিছু তথ্য প্রকাশ করবে, যাতে এই সমস্ত প্রশ্নের উত্তর মিলবে!