জল লাগলে নষ্ট হবে না, Samsung, Xiaomi, Apple ও Oppo-র সেরা ওয়াটারপ্রুফ ফোনগুলি দেখে নিন

Best Waterproof Smartphone Xiaomi Mi 11X Pro
ওয়াটারপ্রুফ সার্টিফাইড স্মার্টফোনের তালিকা দেখুন

ভারতীয় ইলেক্ট্রনিক্স বাজারে নানাবিধ ফিচারে ভরা অগুনিত স্মার্টফোনের উপস্থিতি লক্ষ্য করা যায়। এর ফলে লেটেস্ট প্রসেসর হোক বা ভালো মানের ক্যামেরা, অথবা শক্তিশালী ব্যাটারি, সবাই সবার চাহিদা মতো স্মার্টফোন খুঁজে পান। কিন্তু, এই তথাকথিত ফিচারগুলি বাদেও, এখন অনেক ক্রেতাই আইপি (IP) রেটিং যুক্ত স্মার্টফোন কিনতে পছন্দ করছেন। বৃষ্টিতে বা সামান্য জলের ছেটাতে যাতে স্মার্টফোন নষ্ট না হয়ে যায় তার জন্য এখন প্রায় প্রত্যেকটা স্মার্টফোনই ওয়াটারপ্রুফ রেটিং সহ আসছে। তাই আপনারা যারা ওয়াটারপ্রুফ সার্টিফাইড স্মার্টফোন কিনতে চান, তারা Apple iPhone SE 2020, Samsung Galaxy A72, Oppo Reno 5 Pro 5G, Xiaomi Mi 11X Pro এবং Samsung Galaxy S20 FE -এই পাঁচটি স্মার্টফোনের মধ্যে কোনো একটি বেছে নিতে পারেন। কারণ বাজারে উপলব্ধ ওয়াটারপ্রুফ সার্টিফাইড স্মার্টফোনগুলির মধ্যে এই পাঁচটি হ্যান্ডসেট সবচেয়ে সেরা। আর এই প্রত্যেকটি স্মার্টফোনই ই-কমার্স সাইট Amazon থেকে কেনা যাবে।

৪০,০০০ টাকার নিচে উপলব্ধ ওয়াটারপ্রুফ সার্টিফাইড স্মার্টফোনের তালিকা

Samsung Galaxy A72: অ্যান্ড্রয়েড ১১ বেসড ওয়ানইউআই ৩.১ কাস্টম ওএস ভার্সন চালিত স্যামসাং গ্যালাক্সি এ৭২ স্মার্টফোনে, ৬.৭০ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস (১,০৮০x২,৪০৪) ডিসপ্লে আছে। থাকছে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৭২০জি প্রসেসর। উক্ত স্মার্টফোনের ব্যাক প্যানেলে চারটি ক্যামেরা আছে। এগুলি হলো, ৬৪ মেগাপিক্সেল (অ্যাপারচার : এফ/১.৮) প্রাইমারি সেন্সর, ১২ মেগাপিক্সেল (অ্যাপারচার : এফ/২.২) সেকেন্ডারি সেন্সর, ৮ মেগাপিক্সেল (অ্যাপারচার : এফ/২.৪) সেন্সর এবং ৫ মেগাপিক্সেল (অ্যাপারচার : এফ/২.৪) সেন্সর। আর সামনের অংশে রয়েছে, ৩২ মেগাপিক্সেল (অ্যাপারচার : এফ/২.২) সেলফি ক্যামেরা। এতে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর বর্তমান। আর পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য ৫,০০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি আছে।

দাম: অ্যামাজনে Samsung Galaxy A72 স্মার্টফোনের ৮ জিবি র‍্যাম এবং ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের দাম ৩৪,৯৯৯ টাকা। এটিকে আওসম ব্ল্যাক, আওসম ব্লু, আওসম ভায়োলেট এবং আওসম হোয়াইট কালারে পাওয়া যাবে।

Apple iPhone SE 2020: ৪.৭০ ইঞ্চির ডিসপ্লে (৭৫০x১,৩৩৪ পিক্সেল) যুক্ত আইফোন এসই ২০২০ সংস্থার নিজস্ব A13 বায়োনিক প্রসেসরের সাথে এসেছে। এটি আইওএস ১৩ (IOS 13) ওএস সিস্টেমে চলে। ক্যামেরা ফ্রন্টের কথা বললে, উক্ত আইফোনে ১২ মেগাপিক্সেল (অ্যাপারচার : এফ/১.৮) রিয়ার ক্যামেরা এবং ৭ মেগাপিক্সেলের (অ্যাপারচার : এফ/২.৪) ফ্রন্ট-ফেসিং ক্যামেরা আছে। আবার, সেন্সর অপশনের মধ্যে, ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর, কম্পাস / ম্যাগনেটোমিটার সেন্সর, অ্যাক্সেলেরোমিটার, অ্যাম্বিয়েন্ট লাইট সেন্সর, জাইরোস্কোপ, প্রক্সিমিটি এবং ব্যারোমিটার সেন্সর সামিল থাকছে। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য এতে, ১,৮২১ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি আছে। ১৪৮ গ্রাম ওজনের এই আইফোন এসই ২০২০ -এর পরিমাপ, ১৩৮.৪০x৬৭.৩০x৭.৩০ মিমি।

দাম : অ্যামাজনে Apple iPhone SE 2020 এর ৩ জিবি র‍্যাম এবং ৬৪ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের দাম ৩৯,৯৯০ টাকা। এটিকে ব্ল্যাক, হোয়াইট এবং রেড কালারে পাওয়া যাবে।

Oppo Reno 5 Pro 5G: অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক অপারেটিং সিস্টেমে চালিত ওপ্পো রেনো ৫ প্রো ৫জি স্মার্টফোনে, ৬.৫৫ ইঞ্চির সুপার অ্যামোলেড ডিসপ্লে আছে। এই ডিসপ্লের রেজোলিউশন ১,০৮০x২,৪০০ এবং পিক্সেল ডেনসিটি ৪০২ পিপিআই। এতে মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ১০০০ প্লাস প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। ক্যামেরা ফ্রন্টের কথা বললে, এই ফোনে কোয়াড-রিয়ার ক্যামেরা (৬৪ মেগাপিক্সেল, ৮ মেগাপিক্সেল, ২ মেগাপিক্সেল, ২ মেগাপিক্সেল) সেটআপ এবং ৩২ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা পাওয়া যাবে। আবার, এই স্মার্টফোনের সেন্সর অপশনের মধ্যে, ফেস আনলক, ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর, অ্যাক্সেলেরোমিটার, অ্যাম্বিয়েন্ট লাইট সেন্সর, জাইরোস্কোপ এবং প্রক্সিমিটি সেন্সরকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। এতে ৪,৩৫০ এমএএইচ পাওয়ারের একটি ব্যাটারি আছে, যা ডিভাইসকে দীর্ঘক্ষণ সক্রিয় রাখবে।

দাম : অ্যামাজনে Oppo Reno 5 Pro 5G স্মার্টফোনের ৮ জিবি র‍্যাম এবং ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের দাম ৩৫,৯৯০ টাকা। এটিকে অরোরা ব্লু, মুনলাইট নাইট, স্টারি নাইট এবং স্টার উইশ রেড কালারে পাওয়া যাবে।

Xiaomi Mi 11X Pro: শাওমি এমআই ১১এক্স প্রো স্মার্টফোনে, ৬.৬৭ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস (১,০৮০x২,৪০০ পিক্সেল) ডিসপ্লে আছে। এটি অক্টা-কোর স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ প্রসেসর দ্বারা চালিত। ফটোগ্রাফির জন্য এই ফোনে ট্রিপল-রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ বর্তমান। এই ক্যামেরাগুলি হলো, ১০৮ মেগাপিক্সেল (অ্যাপারচার : এফ/১.৭৫) প্রাইমারি সেন্সর, ৮ মেগাপিক্সেলের (অ্যাপারচার : এফ/২.২) সেকেন্ডারি সেন্সর এবং ৫ মেগাপিক্সেলের (অ্যাপারচার : এফ/২.৪) সেন্সর। এরই সাথে সেলফি বা ভিডিও কল করার জন্য ফোনে ২০ মেগাপিক্সেলের (অ্যাপারচার : এফ/২.৪৫) ফ্রন্ট ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে। এতে ৪,৫২০ এমএএইচ পাওয়ারের ব্যাটারি আছে। ১৯৬ গ্রাম ওজনের এই এমআই স্মার্টফোনের পরিমাপ ১৬৩.৭x৭৬.৪x৭.৮ মিমি।

দাম : অ্যামাজনে Xiaomi Mi 11X Pro স্মার্টফোনের ৮ জিবি র‍্যাম এবং ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের দাম ৩৯,৯৯৯ টাকা। এটিকে সেলেস্টিয়াল সিলভার, কসমিক ব্ল্যাক এবং ফ্রস্টি হোয়াইট কালারে পাওয়া যাবে।

Samsung Galaxy S20 FE: ৬.৫০ ইঞ্চি ডিসপ্লের সাথে আসা স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২০ এফই স্মার্টফোনে অক্টা-কোর স্যামসাং এক্সিনস ৯৯০ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১০ বেসড ওয়ানইউআই ২.৫ (OneUI 2.5) কাস্টম ওএস-এ চলে। গ্যালাক্সি সিরিজের এই হ্যান্ডসেটের পিছনে তিনটি ক্যামেরা দেখা যাবে। এগুলি হলো, ১২ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর, ১২ মেগাপিক্সেল সেকেন্ডারি সেন্সর এবং ৮ মেগাপিক্সেল সেন্সর। আর সেলফি ও ভিডিও কলিংয়ের জন্য ৩২ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট-ফেসিং ক্যামেরা মিলবে। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য ফোনে ৪,৫০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি আছে।

দাম : অ্যামাজনে Samsung Galaxy S20 FE স্মার্টফোনের ৮ জিবি র‍্যাম এবং ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের দাম ৩৭,৫০০ টাকা। এটিকে ক্লাউড নেভি, ক্লাউড হোয়াইট, ক্লাউড পিঙ্ক, ক্লাউড রেড এবং ক্লাউড নেভি কালারে পাওয়া যাবে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

শুভেচ্ছা বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী। তিনি একদিকে যেমন ফটোগ্রাফার, তেমনি পাশাপাশি লেখিকাও। এছাড়াও তার শখের মধ্যে আছে বই পড়া, গান গাওয়া, ছবি আঁকা এবং ওয়েব ডিজাইন। শুভেচ্ছা আমাদের টেকগাপ পরিবারের একজন নতুন সদস্য।