ভারতে জুম অ্যাপ ব্যান নিয়ে কেন্দ্রের মত জানতে চাইলো সুপ্রিম কোর্ট

sc-seeks-centers-response-regarding-zoom-app-ban-in-india

সুপ্রিম কোর্ট শুক্রবার একটি মামলায় কেন্দ্রের থেকে জবাব চেয়ে পাঠিয়েছে, যেখানে আধিকারিক এবং ব্যক্তিগত ব্যবহারের জন্য Zoom অ্যাপ্লিকেশনের উপর প্রতিবন্ধকতা নিয়ে আসার দাবি জানানো হয়েছিল।

মুখ্য বিচারপতি এস এ বোবদের পরিচালনায় সুপ্রিম কোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ কেন্দ্রকে এই বিষয়ে নোটিশ জারি করেছে। যাতে জানানো হয়েছে যে জুম অ্যাপ্লিকেশনের ব্যবহার মানুষের সুরক্ষার উপর প্রভাব ফেলছে এবং এই অ্যাপ্লিকেশনের লাগাতার ব্যবহারের ফলে, ব্যবহারকারীরা সংবেদনশীল এবং সাইবার হ্যাকিং এর শিকার হয়ে পড়তে পারেন।

এই মামলাটির শুনানি হয়েছিল ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে, যাতে বিচারপতি এসএ বোপান্না এবং হৃষিকেশ রায় সামিল ছিলেন। কেন্দ্রকে আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে তাদের উত্তর সুপ্রিমকোর্টের কাছে পৌঁছানোর আদেশ দেওয়া হয়েছে। আপনাদের জানিয়ে রাখি Zoom App আমেরিকায় তৈরি হওয়া একটি বিশেষ ভিডিও কমিউনিকেশন অ্যাপ্লিকেশন যা সাম্প্রতিক সময়ে বহুল ব্যবহৃত একটি অ্যাপ্লিকেশন হয়ে উঠেছে।

দিল্লির একজন বাসিন্দা হর্ষ চুঘ তার এই মামলায় কেন্দ্রের থেকে জুম অ্যাপ্লিকেশনের সুরক্ষা এবং গোপনীয়তার ব্যাপারে জানতে চেয়ে সুপ্রিম কোর্টের কাছে এই মামলা করেছেন। এবং তার এই মামলার ভিত্তিতেই সুপ্রিম কোর্ট কেন্দ্রের কাছ থেকে এই বিষয়ে একটি দিক নির্দেশ এর দাবি করেছে। উকিল ওয়াজিহ শফিকের মাধ্যমে দায়ের করা এই মামলায় জানানো হয়েছে যে, জুম অ্যাপ্লিকেশন নিরন্তর ব্যবহার করলে রাষ্ট্রীয় সুরক্ষার উপর খারাপ প্রভাব পড়তে পারে। সাথে সাথেই এই অ্যাপ্লিকেশন সাইবার হ্যাকিং এর সম্ভাবনাও বাড়িয়ে দেয়।

জানানো হয়েছে যে, জুম অ্যাপ্লিকেশন ডেটা হোর্ডিং এবং সাইবার হোর্ডিং-র সম্ভাবনা বৃদ্ধি করে। যাতে ব্যবহারকারীর সমস্ত ব্যক্তিগত তথ্য একসাথে গিয়ে জমা হয় ক্লাউড রেকর্ডিং-এ। যা থেকে হ্যাকাররা যেকোনো মানুষের ব্যক্তিগত তথ্য খুবই সহজে পেয়ে যায়। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য গোপনীয়তা এবং সুরক্ষা নিয়ে সমস্যা থাকার দরুন দুনিয়ার বেশ কিছু কোম্পানি ইতিমধ্যেই Zoom App কে ব্যান করে দিয়েছে।