Homeবিজ্ঞানNASA DART: নাসার অভাবনীয় সাফল্য, ছুটে আসা গ্রহাণু থেকে রক্ষা পাবে পৃথিবী

NASA DART: নাসার অভাবনীয় সাফল্য, ছুটে আসা গ্রহাণু থেকে রক্ষা পাবে পৃথিবী

পৃথিবী থেকে ডায়নোসর অবলুপ্তির জন্য গ্রহাণুর আঘাত কে দায়ী করে অনেক বিজ্ঞানী

মহাজাগতিক অঘটন থেকে পৃথিবীকে রক্ষা করার চেষ্টায় সাফল্য পেল নাসা (NASA)। সোমবার তাদের ডাবল অ্যাস্টেরয়েড রিডাইরেকশন টেস্ট বা ডার্ট (Double Asteroid Redirection Test or DART) মহাকাশযান এক গ্রহাণুকে তার কক্ষপথ থেকে বিচ্যুত করতে সফল হয়েছে। নাসার বিশ্বাস তাদের যুগান্তকারী এই সাফল্য পৃথিবীর দিকে ছুটে আসা গ্রহাণু, উল্কাপিন্ড বা মহাজাগতিক বস্তুকে কক্ষচ্যুত করবে।

উল্লেখ্য, ১০ মাস আগে ক্যালিফোর্নিয়া থেকে ডার্ট মহাকাশযান কে লিসিয়াকিউব নামে এক কৃত্রিম উপগ্রহ সহ মহাকাশে পাঠানো হয়, যার উদ্দেশ্য ছিল ডিডিমস নামের অভিভাবক গ্রহাণুর চারপাশে পাক খাওয়া ডিমরোফোস গ্রহাণু কে ধ্বংস করা, যার আকার মিশরের বড় বড় পিরামিডের মত। ঘন্টায় ২৩ হাজার ৫০০ কিলোমিটার বেগে ডিমরোফোস গ্রহাণু কে ধাক্কা মারে ডার্ট, আর এই কান্ড ক্যামেরা বন্দি করে লিসিয়াকিউব কৃত্রিম উপগ্রহে থাকা গ্রাউন্ড টেলিস্কোপ, যেটি ডিমরোফোস কে ধাক্কা মারার আগে ডার্ট থেকে আলাদা হয়ে যায়।

নাসার থেকে প্রকাশ করা ভিডিওতে দেখা গেছে, ডার্ট ডিমরোফোসের উপর আছড়ে পড়তেই তার কক্ষপথ থেকে ছিটকে যায়, যা তার প্রদক্ষিনের সময়কে আরও ১০ মিনিট পিছিয়ে দিয়েছে। প্রসঙ্গত, আগে ডিডিমস কে প্রদক্ষিণ করতে ডিমরোফোসের সময় লাগত ১১ ঘন্টা ৫৫ মিনিট। নাসা মনে করছে, এরফলে পৃথিবীতে আঘাত হানার আর কোনো সুযোগই থাকলো না ডিমরোফোসের।

আর এই সাফল্যের পর তারা প্রেস রিলিজে জানিয়েছেন যে, তাদের হাত ধরে মহাকাশ বিজ্ঞানের নতুন যুগের সূচনা হল। পৃথিবীর উপর গ্রহানু আছড়ে পড়ার বিপদ আর থাকলো না।

জানিয়ে রাখি, পৃথিবী থেকে ডায়নোসর অবলুপ্তির জন্য গ্রহাণুর আঘাত কে দায়ী করে অনেক বিজ্ঞানী। বর্তমান সময়ে আমরা ঘন ঘন পৃথিবীর দিকে বিভিন্ন গ্রহাণু ছুটে আসছে বলে খবর পাই। যদিও নাসার প্ল্যানেটরি ডিফেন্স টেস্ট (Planetary defence test) এর সাফল্য আমাদের এইসমস্ত গ্রহাণুর থেকে রক্ষা করবে বলেই বিশ্বাস করা যায়।

আরও পড়ুন