Shiba Inu: জনপ্রিয় ক্রিপ্টোকারেন্সি নিয়ে নয়া প্রতারণা, সর্তক করলো শিবা ইনু টিম

বিনিয়োগকারীদের প্রতি এই দায়িত্বশীল আচরণের জন্য গোটা শিব (Shib) টিম কে সাধুবাদ জানিয়েছেন ব্যবহারকারীদের অধিকাংশ

ক্রিপ্টো বিনিয়োগ মাধ্যমে, ‘শিবা ইনু’ (Shiba Inu) নামের মিমভিত্তিক এক ক্রিপ্টো মুদ্রার জনপ্রিয়তা ইদানীং কালে বেশ লক্ষণীয় ভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে এই জনপ্রিয়তাকে কাজে লাগিয়ে নিজেদের কার্যসিদ্ধি করতে ব্যস্ত কিছু অসাধু মানুষ। সম্প্রতি, ‘শিবা ইনু’ কমিউনিটি তাদের অফিশিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে একটি ভিডিওর মাধ্যমে বিনিয়োগকারীদের নতুন প্রতারণা সম্পর্কে সতর্ক করেছে।

ভিডিও অনুযায়ী, জনপ্রিয় মেসেজিং অ্যাপ, টেলিগ্রামে ছড়িয়ে রয়েছে এই ধরনের ভুঁয়ো ব্যবহারকারী, যারা শিব টোকেন সম্পর্কিত পোস্ট গুলিতে শিবা ইনুর অফিশিয়াল অ্যাকাউন্ট এর ছদ্মবেশে রিপ্লাই করছে এবং বিনিয়োগকারীদের নানাভাবে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা চালাচ্ছে। অন্যান্য ছক কষার পাশাপাশিই, প্রতারকরা নিরীহ ব্যবহারকারীদের প্রলুব্ধ করার উদ্দেশ্যে SHIB টোকেন সম্পর্কিত বিভিন্ন উপহার ও বোনাস টোকেনের তথ্য সমৃদ্ধ পোস্টগুলি জোগাড় করছে ও সেগুলিকে সামাজিক গণমাধ্যমগুলিতে ছড়িয়ে দিচ্ছে। তাই কোম্পানির তরফে, শিব বিনিয়োগকারীদের কে এই প্রতারণার জালে পা দিয়ে ওয়ালেটের চাবি সম্পর্কিত কোনোরকম তথ্য প্রদানের থেকে বিরত থাকার উপদেশ দেওয়া হচ্ছে বারংবার।

২ মিলিয়ন ফলোয়ারের উদ্দেশ্যে পোস্ট করা ৫০ সেকেন্ডের একটি ভিডিওর মাধ্যমে শিবা ইনু টিম জানিয়েছে, প্রতারকরা মূলত শিবআর্মি (ShibArmy), শিবাসোয়াপ (ShibaSwap), শিব (Shib), বোন (Bone) প্রমুখ হ্যাশট্যাগগুলি ব্যবহার করে প্রচার চালাচ্ছে। শুধু তাই নয়, সামাজিক গণ মাধ্যমের সর্বত্র বিছিয়ে রেখেছে ভুঁয়ো টেলিগ্রাম গ্রুপ। তবে শিবা ইনু কোম্পানি যে আপাতত কোনো উপহার, বোনাস টোকেন বা অন্য কোনো বড় ইভেন্টের পরিকল্পনা করছে না, সে সম্পর্কেও ব্যবহারকারীদের সম্পূর্ণরূপে অবগত করেছ এই ভিডিওটি।

পাশাপাশি, এইসব ভুঁয়ো গ্রুপে যুক্ত না হওয়া, পাসওয়ার্ড, ইমেল অ্যাকাউন্ট সহ অন্য কোনো ব্যক্তিগত তথ্য গ্রুপে প্রকাশ না করা ও টোকেন না পাঠানোর উপদেশ দেওয়া হয়েছে বিনিয়োগকারীদের উদ্দেশ্যে। কোনো সন্দেহজনক ভুঁয়ো অ্যাকাউন্ট দেখলে, সেটিতে কোনোরকম রিপ্লাই না দিয়ে তৎক্ষণাত সেটিকে ব্লক ও রিপোর্ট করে সতর্ক থাকার কথাও বলা হয়েছে কোম্পানির তরফে।

এখনও পর্যন্ত, এই ছকের ফাঁদে পড়ে কেউ আর্থিক ক্ষতির শিকার হয়েছেন কিনা সে বিষয়ে কোনো নির্ভরযোগ্য তথ্য পাওয়া যায়নি। তবে, টুইটারে পোস্ট করা এই সতর্কতামূলক ভিডিওটিতে ব্যাপক সাড়া মিলেছে শিব- বিনিয়োগকারীরা পক্ষ থেকে। বিনিয়োগকারীদের প্রতি এই দায়িত্বশীল আচরণের জন্য গোটা শিব (Shib) টিম কে সাধুবাদও জানিয়েছেন ব্যবহারকারীদের অধিকাংশ।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, আগষ্ট ২০২০ তে রোয়সি ( Ryoshi) ছদ্মনামধারী কোনো একজন ব্যক্তি ডোজকয়েনের (Dogecoin) অনুকরণে, ‘শিবা ইনু’ নামের এক জাপানি কুকুরের আদলে এই মিমভিত্তিক ক্রিপ্টো কয়েনটি তৈরি করেন। Watcher guru-র তথ্য বলছে, মুদ্রাটি সাম্প্রতিক কালে বাজারদরে ৫০% বৃদ্ধি ঘটিয়ে ট্রেডমূল্যের নিরিখে বিশ্বের একাদশ বৃহত্তম ক্রিপ্টোমুদ্রা হয়ে উঠেছে। রিপোর্ট অনুযায়ী, বর্তমানে মুদ্রাটির ট্রেড মূল্য ০.০০৩২৭৯ ডলার (প্রায় ০.০০০০৪৪ টাকা)।

অন্যদিকে, যুক্তরাষ্ট্রসহ পৃথিবীর নানা প্রান্তে ক্রিপ্টো সংক্রান্ত অপরাধ প্রবণতা ক্রমশ বাড়ছে। চলতি বছরের এপ্রিল মাসের প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, ২০২০ সালে সংঘটিত ক্রিপ্টো অপরাধের পরিমাণ মোট ১০.৫২ বিলিয়ন ডলার (প্রায় ৭৯,১৯৪ কোটি টাকা ) মূল্যের কাছাকাছি।

রিপোর্টটি থেকে আরও জানা যায়, ২০২০ তে ঘটে যাওয়া মোট ক্রিপ্টো সম্পর্কিত অপরাধের ৬৭.৮ % -ই জালিয়াতি এবং প্রতারণার সাথে সম্বন্ধিত।

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।