Wi-Fi মাধ্যমেই হবে স্মার্টফোন চার্জ, আর প্রয়োজন হবেনা ব্যাটারি কিংবা চার্জারের

যদি আপনার ফোন ওয়াইফাইয়ের সঙ্গে কানেক্টেড থাকে তাহলে আপনা থেকেই সেটি চার্জ হতে থাকবে

  

বর্তমানে স্মার্টফোন আমাদের নিত্য জীবনের সঙ্গে অঙ্গাঙ্গীভাবে জড়িয়ে গেছে। স্মার্টফোন ছাড়া আমরা একটি মুহূর্তও ভাবতে পারি না।তবে আমাদের কাছে ইন্টারনেট, স্মুথ পারফরম্যান্স, ছাড়াও সবথেকে বড় প্রয়োজনটি হলো অবশ্যই স্মার্টফোনটির ব্যাটারি। ফোনের ব্যাটারি শেষ হয়ে গেলে আমাদের জীবন যেন অচল হয়ে পড়ে। এই ব্যাটারি তাড়াতাড়ি শেষ হওয়ার অন্যতম বড় একটি কারণ হলো ওয়াইফাই ব্যবহার করা।ওয়াইফাই ব্যবহার করলে আপনার ফোনের ব্যাটারি কনসাম্পশন বহুগুণে বেড়ে যায়। তাই এই সমস্যার সমাধানের জন্য বিজ্ঞানীদের একটি দল এমন একটি পদ্ধতি খুঁজে বের করেছেন যার মাধ্যমে আপনি আপনার ফোনকে ওয়াইফাই এর সঙ্গে কানেক্ট করে চার্জ করতে পারেন।এই পদ্ধতিতে যদি আপনার ফোন ওয়াইফাইয়ের সঙ্গে কানেক্টেড থাকে তাহলে আপনা থেকেই সেটি চার্জ হতে থাকবে। অর্থাৎ আপনাকে আর ব্যাটারি শেষ হয়ে যাওয়া নিয়ে চিন্তা করতে হবে না। রেকটিরনা নামক একটি জিনিসের মাধ্যমে এটি করা সম্ভব হবে। তাহলে আসুন জেনে নিই এই রেকটিরনা আসলে কি এবং এটি কিভাবে কাজ করে।

রেকটিরনা আসলে কি :

এমআইটি এর বিজ্ঞানীরা এমন একটি পদার্থ তৈরি করেছেন যেটির মাধ্যমে আপনি আপনার ফোনকে ওয়াইফাই সিগন্যাল এর মাধ্যমে চার্জ করতে পারেন। এই জিনিসটিরই নাম দেওয়া হয়েছে রেকটিরনা। এটি একধরনের রেডিও অ্যান্টেনা যেটিকে সেমিকন্ডাক্টর জাতীয় পদার্থ দিয়ে বানানো হয়েছে। এই অ্যান্টেনাটিই ওয়াইফাই সিগন্যালকে ওয়্যারলেস এনার্জিতে পরিবর্তন করবে। পরবর্তীকালে যদি এই টেকনোলজি মোবাইল বা ইলেকট্রনিক ডিভাইসে ব্যবহার করা হয় তাহলে আর ব্যাটারির প্রয়োজন হবে না। এই পদ্ধতির মাধ্যমে শুধু স্মার্টফোন না ট্যাবলেট , ল্যাপটপ এছাড়াও আরও বিভিন্ন ধরনের ইলেকট্রনিক জিনিসকে আপনারা চার্জ করতে পারবেন যদি সেগুলি ওয়াইফাই এর সঙ্গে কানেক্ট হতে পারে।

রেকটিরনা কাজ কিভাবে করে :

রিসার্চাররা একটি টু-ডাইমেনশনাল ডিভাইস বানিয়েছেন যা যেকোনো ধরনের রেডিও অ্যাটেনা যুক্ত ডিভাইসের সাথে কানেক্টেড হওয়ার পরে স্মার্ট ফোন বা ল্যাপটপ জাতীয় ডিভাইস এর সাথে কানেক্ট হয়। তারপরই ওয়াইফাই থেকে এসি সিগন্যাল এসে পৌঁছলে সেগুলি ওই ডিভাইসের সেমিকন্ডাক্টরের মাধ্যমে ডিসি সিগনালে পরিবর্তিত হয়। তারপরে সেই ডিসি কারেন্ট কানেক্টেড ডিভাইসের ইলেকট্রনিক সার্কিটকে বিদ্যুৎ প্রেরণ করে ও সেটিকে চার্জ করতে থাকে।

পড়ুন : এক নজরে দেখে নিন ২০১৯ সালে হোয়াটসঅ্যাপে কি কি নতুন ফিচার যুক্ত হতে চলেছে