সেলফি প্রেমীরা কোথায়? আসছে ১০০ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরার স্মার্টফোন

smartphone-with-100-megapixel-selfi-camera-coming-soon

‘ফোনের বাকি সব স্পেসিফিকেশন নিয়ে জাস্ট ডোন্ট কেয়ার, ক্যামেরা ভাল হতে হবে, স্পেশালি সেলফি ক্যামেরা’। স্কুলপড়ুয়া ছেলে-মেয়ে বলুন বা সদ্য কর্মক্ষেত্রে যোগ দেওয়া তরুণ-তরুণী, সবার দাবি কিন্তু এমনই। আর তা হবে নাই বা কেন, সেলফি কেমন উঠছে, তার ওপর আমাদের ভার্চুয়াল জীবনযাপন ভীষণভাবে নির্ভর করে। স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের চাহিদার সাথে তাল মিলিয়ে সেলফি ক্যামেরাও এখন উন্নীত হয়েছে। অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহারের মাধ্যমে স্মার্টফোন নির্মাতারা তাদের ডিভাইসে ক্যামেরার সংখ্যা এবং ফিচারের পরিমান দুটোই বাড়িয়ে চলেছে। এখনও অবধি স্মার্টফোনে আমরা সর্বোচ্চ ৪৪ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা থাকতে দেখেছি। অন্যদিকে, রিয়ার ক্যামেরাতে আমরা সর্বাধিক ১০৮ মেগাপিক্সেল সেন্সর ব্যবহার হতে দেখেছি। সেলফি প্রেমী হিসেবে এখন আপনার মনে প্রশ্ন আসতেই পারে, ফোনের সামনের এবং পেছনের ক্যামেরার মধ্যে কেন এত বৈষম্য? তাহলে শুনুন, রিয়ার ক্যামেরার মতো এই ফ্রন্ট ক্যামেরাও এবার বড়োসড়ো আপগ্রেড পেতে চলেছে। নতুন একটি রিপোর্ট থেকে এমনই তথ্য সামনে এসেছে।

জনপ্রিয় টিপ্সটার ডিজিটাল চ্যাট স্টেশন উইবোতে পোস্ট করে দাবি করেছেন, সৌন্দর্য আরও উদ্ভাসিত করতে শীঘ্রই ১০০ মিলিয়ন পিক্সেল বা ১০০ মেগাপিক্সেল (পড়ুন ১০৮ মেগাপিক্সেল) সেলফি ক্যামেরার আগমন ঘটছে। যদিও কোন স্মার্টফোন কোম্পানি এই ফ্রন্ট ক্যামেরা আনছে, তা পোস্টে উল্লেখ টিপ্সটার উল্লেখ করেননি। তবে আমরা বিশ্বাস করি, এখানে কোনো চাইনিজ ব্রান্ডের কথাই বলা হয়েছে।

ছবি ক্রেডিট – Digital Chat Station/ Weibo

১০০+ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরার ফোন কিনতে পারবেন ভেবে নিশ্চই অনেকেই হয়তো এতক্ষণে খুশিতো গদ গদ হয়ে উঠেছেন। তবে প্রশ্ন উঠছে, এটি কীভাবে বাস্তবায়ন হবে? বাজারে উপলব্ধ যে কোনো ১০৮ মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরা যুক্ত ফোনের দিকে যদি তাকান, তাহলে দেখতে পাবেন সেন্সরটি আকারে বৃহৎ হওয়ার জন্য সেটি হ্যান্ডসেটের পিছনে বেশ খানিকটা জায়গা দখল করে নিয়েছে। এবার একই সেন্সরটি যদি ফোনের সামনে দেওয়া হয় তাহলে দুটি তত্ত্ব সামনে আসছে। প্রথমত, ডিসপ্লের নচ বড়ো রাখতে হবে নয়তো হোল পাঞ্চ বড়ো করতে হবে। এমনভাবে সেটি ডিজাইন করা প্রয়োজন যাতে সেন্সরটি সেখানে ঠিকমতো বসানো যায়। তবে নচ বা হোলের আকৃতি বৃদ্ধি করা ছাড়াও একটি সম্ভাবনা উঁকি দিচ্ছে। সেটা হচ্ছে পপ-আপ ক্যামেরা।

পপ-আপ ডিজাইন সেক্ষেত্রে আদর্শ হবে। কারণ বড়ো সেন্সরের স্থান সংকুলান করার জন্য পপ-আপ মেকানিজমকে আরও বৃহত্তর করা সম্ভব। আবার আসুসের Zenfon 6 এবং Zenfone 7-এর মতো মোটোরাইজড ফ্লিপ ক্যামেরাকে অনুসরণ করা যেতে পারে। এই পদ্ধতি অবলম্বন করে স্মার্টফোনের ১০০+ মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরাকে উল্টিয়ে ফ্রন্ট ক্যামেরা হিসেবে ব্যবহার করা যায়।

এদিকে রিপোর্ট অনুযায়ী, চলতি বছরে ২০০ মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরার ফোনও বাজারে আসছে। ZTE Axon 30 Pro ফ্ল্যাগশিপ ডিভাইসটি ২০০ মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরাযুক্ত বিশ্বের প্রথম স্মার্টফোন হবে বলে ইতিমধ্যে জল্পনা শুরু হয়েছে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন