জলের মধ্যে ঘন্টার পর ঘন্টা থাকলেও নষ্ট হবে না, Amazfit ভারতে লঞ্চ করল নতুন স্মার্টওয়াচ

ভারতীয় বাজারে অ্যামেজফিট ফ্যালকন স্মার্টওয়াচের দাম ধার্য করা হয়েছে ৪৪,৯৯৯ টাকা। এটি কেবলমাত্র টাইটেনিয়াম কালারে পাওয়া যাবে। বর্তমানে সংস্থার নিজস্ব ওয়েবসাইট এবং ই-কমার্স সাইট অ্যামাজনে এটি প্রিঅর্ডারে উপলব্ধ

Amazfit Falcon launched in India

গতমাসে বিশ্ববাজারে আত্মপ্রকাশের পর এবার ভারতে পা রাখল Amazfit Falcon রাগড মডেলের স্মার্টওয়াচটি। এটি সংস্থার প্রথম রাগড মডেলের স্মার্টওয়াচ। তাছাড়া এতে রয়েছে একাধিক হেলথ ফিচার এবং স্পোর্টস মোড। সেই সঙ্গে এতে ডুয়াল ব্যান্ড জিপিএস সাপোর্ট করবে। সংস্থার মতে, একবার চার্জে এটি ১৪ দিন পর্যন্ত পাওয়ার ব্যাকআপ দিতে সক্ষম। চলুন দেখে নেওয়া যাক নতুন Amazfit Falcon স্মার্টওয়াচের দাম, ফিচার এবং স্পেসিফিকেশন।

Amazfit Falcon স্মার্টওয়াচের দাম ও লভ্যতা

ভারতীয় বাজারে অ্যামেজফিট ফ্যালকন স্মার্টওয়াচের দাম ধার্য করা হয়েছে ৪৪,৯৯৯ টাকা। এটি কেবলমাত্র টাইটেনিয়াম কালারে পাওয়া যাবে। বর্তমানে সংস্থার নিজস্ব ওয়েবসাইট এবং ই-কমার্স সাইট অ্যামাজনে এটি প্রিঅর্ডারে উপলব্ধ। আর আগামী ৩ ডিসেম্বর থেকে এর বিক্রি শুরু হবে। যে সমস্ত ক্রেতারা ঘড়িটি প্রি-বুকিং করবেন, তারা পাবেন ১,৯৯৯ টাকার ডাফেল/স্পোর্টস ব্যাগ সম্পূর্ণ বিনামূল্যে।

Amazfit Falcon স্মার্টওয়াচের স্পেসিফিকেশন ও ফিচার

নবাগত অ্যামেজফিট ফ্যালকন রাগড মডেলের স্মার্টওয়াচটি এয়ারক্রাফটগ্রেড টিসি৪ টাইটানিয়াম ইউনিবডি উপাদানের তৈরি এবং এর ওপর রয়েছে স্যাফায়ার ক্রিস্টাল গ্লাসের আচ্ছাদন। তাছাড়া ১৫ মিলিটারি গ্রেড প্রাপ্ত ঘড়িটি এতটাই শক্ত পোক্ত যে বড়োসড়ো আঘাত থেকেও সুরক্ষা দিতে পারবে। তাছাড়া এর ডান ধারে রয়েছে একটি বাটন। শুধু তাই নয়, ঘড়িটিতে দেওয়া হয়েছে ১.২৮ ইঞ্চি অ্যামোলেড ডিসপ্লে, যার রেজোলিউশন ৪১৬x৪১৬ পিক্সেল এবং সর্বোচ্চ উজ্জ্বলতা ১০০০ নিট।

অন্যদিকে, হেলথ ফিচার হিসেবে ওয়্যারেবলটিতে রয়েছে হার্টরেট মনিটর, SpO2 সেন্সর, স্ট্রেস এবং স্লিপ ট্র্যাকার, ব্রিদিং রিমাইন্ডার এবং মেনস্ট্রুয়াল সাইকেল মনিটর। এমনকি ব্লুটুথের মাধ্যমে হার্ট রেট বেল্ট এবং সাইক্লিং পাওয়ার মিটারের মতো বাহ্যিক ওয়ার্কআউট ডিভাইসগুলির সাথে যুক্ত করা যাবে। তদুপরি ঘড়িটিতে ১৫০টি ইনবিল্ট স্পোর্টস মোড উপলব্ধ। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য সুইমিং, ওয়াটার স্পোর্টস স্কুবা ড্রাইভিং ইত্যাদি। সেই সঙ্গে ঘড়িটি স্ট্রেন্থ এক্সাসাইজের পাশাপাশি স্পোর্টস ডেটার লাইভ সম্প্রচার করতে সক্ষম। ঘড়িটিতে পাওয়া যাবে ৪ জিবি অনবোর্ড স্টোরেজ, ডুয়াল ব্যান্ড জিপিএস সাপোর্ট।

এবার আসা যাক Amazfit Falcon স্মার্টওয়াচের ব্যাটারি প্রসঙ্গে। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য এতে ব্যবহৃত হয়েছে ৫০০ এমএইচ ব্যাটারি, যা একবার চার্জে ১৪ দিন পর্যন্ত সাধারণ ব্যবহারে এবং ৩০ দিন পর্যন্ত স্ট্যান্ডবাই মোডে ব্যাটারি ব্যাকআপ দিতে সক্ষম। তাছাড়া ঘড়িটি অ্যাপল হেলথ, গুগল ফিট এবং অ্যাডিডাস রানিং অ্যাপ সাপোর্ট করবে। সর্বোপরি জল থেকে সুরক্ষা দেওয়ার জন্য ঘড়িটি ২০ এটিএম রেটিং সহ এসেছে।