Starlink কে প্রি-অর্ডারকারীদের টাকা ফেরত দেওয়ার নির্দেশ, ভারতে আসার আগেই বিপাকে এলন মাস্কের সংস্থা

Starlink পরিষেবার জন্য প্রি-অর্ডার করলে কিভাবে অর্থ ফেরত পাবেন জেনে নিন

starlink-india-refund-pre-order-money-asked-how-to-get

ভারতে ব্যবসা সম্প্রসারণের শুরুতেই বড়সড় ধাক্কা খেয়ে বিপাকে ধনকুবের এলন মাস্ক অধিকৃত সংস্থা স্টারলিঙ্ক (Starlink)। সম্প্রতি ডিপার্টমেন্ট অফ টেলিকমিউনিকেশন বা ডটের (DoT) পক্ষ থেকে সংস্থাটিকে পরিষেবার প্রি-অর্ডার বাবদ গৃহীত সমস্ত টাকা ফিরিয়ে দিতে বলা হয়েছে। একইসাথে তাদের নতুন করে প্রি-অর্ডার গ্রহণের থেকে বিরত থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, যা উক্ত স্যাটকম (Satcom) সংস্থার পক্ষে ব্যাপক ক্ষতির নামান্তর।

উল্লেখ্য, সরকারের পক্ষ থেকে ব্যবসায়িক অনুমতি না পেলেও Starlink ইতিমধ্যেই পরিষেবা ব্যবহারে আগ্রহীদের কাছ থেকে অগ্রিম অর্ডার বাবদ অর্থ আদায় শুরু করে। এই পরিস্থিতিতে ভারতীয় ইন্টারনেট পরিষেবা প্রদানকারী সংস্থাগুলির প্রতি তিতিবিরক্ত বহু মানুষ স্যাটেলাইট নির্ভর স্টারলিঙ্ক পরিষেবার জন্য আগাম বুকিং সেরে রেখেছিলেন। কিন্তু টেলিকমিউনিকেশন দপ্তরের (DoT) নির্দেশে এবার সংস্থার পক্ষে প্রি-অর্ডার গ্রহণের কাজ বন্ধ করা ছাড়া অন্য কোন উপায় অবলম্বনের সুযোগ নেই। উপরন্তু সরকারি আজ্ঞা পালন করতে গিয়ে এখন তাদের অগ্রিম অর্ডার মূল্য হিসেবে গৃহীত এযাবৎকালের সমস্ত অর্থ ফিরিয়ে দিতে হবে। ফলে ভারতে ব্যবসায়িক ভিত পাকা করার আগেই সংস্থাটি যে এক বড় ক্ষতির সম্মুখীন, সেই বিষয়ে কোন সন্দেহ নেই।

লাইসেন্স না পেলে পরিষেবার জন্য প্রি-অর্ডার নিতে পারবে না Starlink

ডটের তরফে স্পষ্ট জানানো হয়েছে যে, পরিষেবার জন্য আগাম অর্ডার গ্রহণের আগে স্টারলিঙ্ক কর্তৃপক্ষকে সরকারি অনুমতিপত্র (License) আদায় করতে হবে। যদিও এই অনুমতি প্রদানে ঠিক কতটা সময় লাগবে, সেটা এখনো জানা যায়নি। এক্ষেত্রে যাবতীয় সমস্যার সমাধানের জন্য উপযুক্ত লাইসেন্সিং ফ্রেমওয়ার্ক গড়ে তোলা জরুরি বলে স্টারলিঙ্ক তাদের একটি বিবৃতিতে জানিয়েছে।

লাইসেন্স বা অনুমতি আদায়ে দেরী হলে ভারতে স্টারলিঙ্ক পরিষেবার আগমন বেশ কিছু দিন পিছিয়ে যেতে পারে। কিন্তু তার আগেই তাদের আগাম অর্ডার বাবদ গৃহীত অর্থ গ্রাহকদের মধ্যে ফিরিয়ে দিতে হবে বলে স্পেসএক্সের (SpaceX) সহযোগী সংস্থাটি স্পষ্ট করেছে।

Starlink পরিষেবার জন্য প্রি-অর্ডার করেছেন? কিভাবে অর্থ ফেরত পাবেন জেনে নিন

স্টারলিঙ্ক পরিষেবার জন্য প্রি-অর্ডার করে থাকলে খুব সহজেই একজন রিফান্ড মূল্য আদায় করতে পারবেন। এজন্য আগ্রহীকে নিজের অ্যাকাউন্টে লগ-ইন করতে হবে। তারপর ‘Cancel and Request Refund’ বিকল্পে ক্লিক করলেই রিফান্ডের আবেদন দাখিল হয়ে যাবে। আবেদন জমা করার পরবর্তী ১০ দিনের মধ্যেই গ্রাহকেরা নিজস্ব অ্যাকাউন্টে টাকা ফেরত পাবেন।

উল্লেখ্য, আগামী ৩১শে জানুয়ারি বা তার আগেই Starlink কর্তৃপক্ষ বাণিজ্যিক লাইসেন্সের জন্য আবেদন করতে পারে বলে জানা গিয়েছে। সেক্ষেত্রে বর্তমান বছরের এপ্রিল মাস নাগাদ আমরা এদেশে স্টারলিঙ্ক পরিষেবার আগমন প্রত্যক্ষ করতে পারি। যদিও স্যাটকম স্পেক্ট্রাম বন্টন সংক্রান্ত নির্দিষ্ট কোনো নিয়মকানুন না থাকার কারণে এবিষয়ে সুনিশ্চিত করে কিছু বলা সম্ভব নয়।

One of the newest members of the Techgup Family. Soumo grew his liking for gadgets almost a decade back while searching for his first smartphone, and started writing about tech recently in 2020