SBI গ্রাহক হলে অবশ্যই পড়ুন, জালিয়াতি থেকে বাঁচার উপায় জানালো ব্যাংক

state-bank-of-india-shares-5-tips-to-prevent-online-fraud

লকডাউনের সময় দ্রুত বাড়ছে অনলাইন জালিয়াতির ঘটনা। এইসময় অনেকেই বাড়ি থেকে কাজ করছে। যেখানে ডিভাইসগুলিতে তুলনামূলক কম সিকিউরিটি আছে। আর এর ফায়দা তুলতে চাইছে হ্যাকাররা। দেশের সবচেয়ে বড় ব্যাংক স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া এই কারণে অনলাইন জালিয়াতি থেকে বাঁচতে তাদের গ্রাহকদের কয়েকটি টিপস শেয়ার করেছে, যেগুলো আপনাকে অবশ্যই জেনে নেওয়া উচিত। আসুন জেনে নেই SBI গ্রাহকদের কিভাবে সতর্ক থাকতে বলছে।

কোনো লিংকে ক্লিক করবেন না :

এসবিআই এর তরফে বলা হয়েছে অজানা কোনো লিংকে ক্লিক করবেন না। ওটিপি বা ব্যাংকের তথ্য চায় এমন লিংকে ক্লিক করতে পুরোপুরো বারণ করা হয়েছে। এছাড়াও EMI বা DBT বা পিএম ফান্ডের নামে আসা কোনো লিংকে যা বুঝে ক্লিক করবেন না।

ক্যাশ জেতার প্রলোভনে পা দেবেন না :

চাকরি বা নগদ পুরষ্কার প্রদান করে এমন প্রতিশ্রুতিবদ্ধ স্কিমগুলি থেকে সাবধান থাকতে বলা হয়েছে। এগুলি বেশিরভাগই ব্যবহারকারীদের ফাঁদে ফেলার জন্য পাঠানো হয়। জালিয়াতিরা সাধারণত এসএমএস, ইমেল বা ফোন কলের মাধ্যমে এই ধরণের মেসেজ পাঠায়।

কাউকে পাসওয়ার্ড জানাবেন না :

আপনার ইন্টারনেট ব্যাংকিং এর লগইন আইডি এবং লেনদেনের পাসওয়ার্ড সময়ে সময়ে পরিবর্তন করুন। এই তথ্য কারোর সাথে শেয়ার করবেন না। অক্ষর ও নম্বর মিলিয়ে পাসওয়ার্ড তৈরী করুন।

OTP শেয়ার করবেন না :

আপনার ওটিপি জানতে কখনোই ব্যাংক থেকে কল, ইমেল বা এসএমএসের করা হয়না। এটি জালিয়াতদের একটি পুরানো পদ্ধতি লোক ঠকানোর। তাই ওটিপি কখনও শেয়ার করবেন না।

গুগলে সার্চ করবেন না তথ্য :

গুগলে ব্যাংকের ফোন নম্বর, ঠিকানা বা অন্য কোনও তথ্য জানতে চাইবেন না। ইন্টারনেটে সমস্ত তথ্য সঠিক নয়। অনেক সময় প্রতারকরা তাদের নম্বরটি ব্যাঙ্ককের নম্বর হিসাবে ইন্টারনেটে শেয়ার করে এবং গ্রাহকদের ফাঁদে ফেলে। সবসময় এসবিআইয়ের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট থেকে যেকোনও তথ্য জেনে নিন।