ভারতে বিক্রি শুরু হল Apple iPad Pro (2022) ও iPad (2022) এর, কি কি অফার পাওয়া যাচ্ছে

A14 Bionic প্রসেসরের সাথে সজ্জিত হয়ে এসেছে iPad (2022) এবং এতে অপশনাল 5G সেলুলার নেটওয়ার্ক সাপোর্ট করে

Apple iPad Pro 2022 Sale Today India

টেক জায়ান্ট Apple গত সপ্তাহে ১১-ইঞ্চি ও ১২.৯-ইঞ্চি ডিসপ্লে সাইজ সহ iPad Pro (2022) এবং রি-ডিজাইন করা iPad (2022) মডেল দুটিকে লঞ্চ করেছিল ভারতে। আর আজ অর্থাৎ ২৯শে অক্টোবর এই দুটি ট্যাব সংস্থার অনলাইন স্টোর এবং ই-কমার্স সাইট Amazon -এর মাধ্যমে প্রথমবার সেলে বিক্রির জন্য উপলব্ধ হল। বিশেষত্বের কথা বললে, নতুন ২০২২ সংস্করণের iPad Pro মডেলটি উন্নত প্রিসিশনের জন্য স্ক্রীনের উপরে ১২মিমি পর্যন্ত অ্যাপল হোভারিং ডিটেক্ট করতে সক্ষম এবং এটি Apple M2 চিপসেট দ্বারা চালিত। অন্যদিকে, A14 Bionic প্রসেসরের সাথে সজ্জিত হয়ে এসেছে iPad (2022) এবং এতে অপশনাল 5G সেলুলার নেটওয়ার্ক সাপোর্ট করে। আর উভয় ট্যাবলেটেই iPadOS 16 ওএস পাওয়া যাবে। চলুন iPad Pro (2022) এবং iPad (2022) মডেলের দাম, সেল অফার ও স্পেসিফিকেশন সম্পর্কে বিশদে জেনে নেওয়া যাক৷

ভারতে Apple iPad Pro (2022) দাম ও সেল অফার

ভারতে অ্যাপল আইপ্যাড প্রো (২০২২) ট্যাবলেটের ১১-ইঞ্চি ডিসপ্লে ভ্যারিয়েন্টের বেস ওয়াই-ফাই মডেলের দাম ৮১,৯০০ টাকা রাখা হয়েছে এবং ওয়াই-ফাই প্লাস সেলুলার ভ্যারিয়েন্টের প্রারম্ভিক মূল্য থাকছে ৯৬,৯০০ টাকা। অন্যদিকে, ১২.৯-ইঞ্চি ডিসপ্লে সাইজের মডেলের বেস ওয়াই-ফাই ভ্যারিয়েন্টের দাম শুরু হচ্ছে ১,১২,৯০০ টাকা থেকে এবং ওয়াই-ফাই প্লাস সেলুলার মডেলের প্রারম্ভিক মূল্য রাখা হয়েছে ১,২৭,৯০০ টাকা। আইপ্যাড প্রো (২০২২) মডেলে আলোচ্য দুটি ডিসপ্লে ভ্যারিয়েন্টই অ্যাপল ইন্ডিয়া স্টোর এবং ই-কমার্স সাইট অ্যামাজনে তালিকাভুক্ত।

উক্ত অ্যাপল ট্যাবলেটটি স্পেস গ্রে এবং সিলভার কালার অপশনে এসেছে। আর ট্যাবটির উভয় বিকল্পকেই – ১২৮ জিবি, ২৫৬ জিবি, ৫১২ জিবি, ১ টেরাবাইট, এবং ২ টেরাবাইট স্টোরেজ বিকল্পে পাওয়া যাবে।

সেল অফারের কথা বললে, অ্যামাজন থেকে ট্যাবটি কিনলে ১৪,০৫০ টাকা পর্যন্ত এক্সচেঞ্জ বোনাস উপলব্ধ থাকছে৷

ভারতে Apple iPad (2022) দাম ও সেল অফার

ভারতে আইপ্যাড (২০২২) মডেলের ওয়াই-ফাই বিকল্পের ৬৪ জিবি স্টোরেজের দাম শুরু হচ্ছে ৪৪,৯৯০ টাকা থেকে। আর, ২৫৬ জিবি স্টোরেজ অপশনের দাম ধার্য করা হয়েছে ৫৯,৯০০ টাকা। অন্যদিকে, ওয়াই-ফাই প্লাস সেলুলার মডেলের ৬৪ জিবি স্টোরেজ ও ২৫৬ জিবি ভ্যারিয়েন্ট কিনলে যথাক্রমে ৫৯,৯০০ টাকা এবং ৭৪,৯০০ টাকা খরচ করতে হবে।

সেল অফারের হিসেবে, আলোচ্য মডেলটিকে অ্যাপল ইন্ডিয়া স্টোর থেকে ইএমআই এবং নো-কস্ট ইএমআই উভয় বিকল্পের অধীনেই কেনা যাবে। এছাড়া, অ্যামাজন থেকে খরিদ করলে ১৪,০৫০ টাকা পর্যন্ত এক্সচেঞ্জ বোনাসও পেয়ে যেতে পারেন ক্রেতারা। এটি – ব্লু, পিঙ্ক, সিলভার এবং ইয়ালো কালারে উপলব্ধ।

Apple iPad Pro (2022) স্পেসিফিকেশন ও ফিচার

আইপ্যাড প্রো (২০২২) দুটি ডিসপ্লে বিকল্পের সাথে এসেছে। প্রথমটিতে একটি ১১-ইঞ্চির লিকুইড রেটিনা ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে, যা ১,৬৮৮x২,৩৮৮ পিক্সেল রেজোলিউশন সাপোর্ট করে। আর দ্বিতীয়টি এসেছে একটি ১২-ইঞ্চির (২,০৪৮x২,৭৩২ পিক্সেল) লিকুইড রেটিনা XDR মিনি-LED ডিসপ্লে সহ। উভয় ভ্যারিয়েন্টই সর্বোচ্চ ১২০ রিফ্রেশ রেট এবং প্রোমোশন টেকনোলজি সাপোর্ট করে। ডিভাইসটি স্কেচিং বা অন্যান্য কাজ করার ক্ষেত্রে উন্নত প্রিসিশনের জন্য স্ক্রীনের উপরে ১২মিমি পর্যন্ত অ্যাপল হোভারিং ডিটেক্ট করতে সক্ষম। আর ফাস্ট পারফরম্যান্সের জন্য এতে পাওয়া যাবে অ্যাপলের নিজস্ব এম২ (M2) প্রসেসর।

Apple iPad Pro (2022), সেন্টার স্টেজ প্রযুক্তি সমর্থিত একটি ১২-মেগাপিক্সেল আল্ট্রা-ওয়াইড অ্যাঙ্গেল ফ্রন্ট ক্যামেরা সহ এসেছে। আর পেছনে ডুয়েল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ রয়েছে। এই ক্যামেরাগুলি হল – ১২-মেগাপিক্সেল ওয়াইড-অ্যাঙ্গেল লেন্স এবং ১০-মেগাপিক্সেল আল্ট্রা-ওয়াইড অ্যাঙ্গেল সেন্সর। এই রিয়ার ক্যামেরা ইউনিটের সাথে LiDAR স্ক্যানারও সংযুক্ত। তদুপরি, আলোচ্য ট্যাবলেটে কোয়াড স্পিকার সেটআপ সিস্টেম এবং পাঁচটি মাইক্রোফোন বর্তমান। আর এটির সাথে একটি ২০ ওয়াটের ইউএসবি টাইপ-সি পাওয়ার অ্যাডাপ্টার পাওয়া যাবে।

Apple iPad (2022) স্পেসিফিকেশন ও ফিচার

অ্যাপল আইপ্যাড (২০২২) মডেলে ১০.৯-ইঞ্চির (১,৬৪০x২,৩৬০ পিক্সেল) লিকুইড রেটিনা ডিসপ্লে রয়েছে, যা ৫০০ নিট পিক ব্রাইটনেস সাপোর্ট করে। উন্নত পারফরম্যান্সের জন্য এই ট্যাবলেটে অ্যাপলের ইন-হাউজ এ১৪ বায়োনিক (A14 Bionic) প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। সংস্থার দাবি অনুসারে, উক্ত চিপসেটটি পূর্ববর্তী মডেলের তুলনায় ২০% পর্যন্ত ভাল পারফরম্যান্স এবং ১০% পর্যন্ত ভাল গ্রাফিক্স প্রদান করতে সক্ষম।

iPad (2022) ট্যাবলেটের সামনে ল্যান্ডস্কেপ মোডে ১২-মেগাপিক্সেলের একটি সেলফি সেন্সর ইনস্টল করা আছে। আর ডিভাইসটি আপডেটেড রিয়ার ক্যামেরা ইউনিটের সাথে এসেছে। এটি আইপ্যাডওএস ১৬ (iPadOS 16) অপারেটিং সিস্টেম দ্বারা চালিত, যা ফ্রি-ফর্ম প্রোডাক্টিভিটি অ্যাপ সহ আরো বেশ কয়েকটি নতুন ফিচার অফার করবে। পরিশেষে, iPad (2022) ওয়াই-ফাই ৬ এবং অপশনাল ৫জি সেলুলার নেটওয়ার্ক সাপোর্ট করে।