ভারতে লঞ্চ হল লেনোভোর প্রথম ৫জি ট্যাবলেট Lenovo Tab P11 5G, রয়েছে জেবিএল স্পিকার

ভারতের বাজারে Lenovo Tab P11 5G ট্যাবলেটকে দুটি স্টোরেজ কনফিগারেশনে নিয়ে আসা হয়েছে। যার মধ্যে ১২৮ জিবি বেস মডেলের দাম ২৯,৯৯৯ টাকা রাখা হয়েছে। আর ২৫৬ জিবি স্টোরেজ যুক্ত টপ-এন্ড ভ্যারিয়েন্টের দাম ধার্য করা হয়েছে ৩৪,৯৯৯ টাকা।

Lenovo Tab P11 5G Launched in India

আজ অর্থাৎ ১২ই জানুয়ারি Lenovo -এর প্রথম 5G ট্যাবলেট হিসাবে ভারতের বাজারে পা রাখলো Lenovo Tab P11 5G। নতুন এই অ্যান্ড্রয়েড ট্যাবলেটটি সাব-৬ গিগাহার্টজ 5G নেটওয়ার্ক সমর্থন করে যাতে ব্যবহারকারীরা হাই-স্পিডের কানেক্টিভিটি উপভোগ করতে সক্ষম হন৷ আবার এটি – 2K IPS ডিসপ্লে প্যানেল, কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৭৫০জি ৫জি চিপসেট, ১৩ মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরা, JBL স্পিকার সিস্টেম এবং ৭,৭০০ এমএএইচের বড় ব্যাটারি সহ এসেছে। প্রসঙ্গত জানিয়ে রাখি, নয়া Lenovo Tab P11 5G বিদ্যমান Lenovo Tab P11 Plus এবং Tab P11 Pro মডেলের উত্তরসূরি হিসাবে এসেছে। আর দামের নিরিখে, এদেশে Lenovo আনীত এই মিড-রেঞ্জ ট্যাবলেটটির মূল প্রতিদ্বন্দ্বী Xiaomi Pad 5 এবং Realme Pad X মডেল দুটি হবে বলে মনে করা হচ্ছে। চলুন Lenovo Tab P11 5G ট্যাবলেটের দাম, প্রাপ্যতা এবং স্পেসিফিকেশন সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।

ভারতে লেনোভো ট্যাব পি১১ ৫জি -এর দাম ও লভ্যতা (Lenovo Tab P11 5G price and availability in India)

ভারতের বাজারে লেনোভো ট্যাব পি১১ ৫জি ট্যাবলেটকে দুটি স্টোরেজ কনফিগারেশনে নিয়ে আসা হয়েছে। যার মধ্যে ১২৮ জিবি বেস মডেলের দাম ২৯,৯৯৯ টাকা রাখা হয়েছে। আর ২৫৬ জিবি স্টোরেজ যুক্ত টপ-এন্ড ভ্যারিয়েন্টের দাম ধার্য করা হয়েছে ৩৪,৯৯৯ টাকা। লভ্যতার কথা বললে, গ্রাহকেরা ট্যাবলেটটিকে ই-কমার্স সাইট অ্যামাজন (Amazon) এবং অফিসিয়াল লেনোভো স্টোরের মাধ্যমে কিনতে পারবেন।

প্রসঙ্গত জনিয়ে রাখি, পূর্বসূরি Lenovo Pad 11 Plus এবং প্রিমিয়াম Tab 11 Pro মডেল দুটিকে যথাক্রমে ২৪,৯৯৯ টাকা ও ৩৫,৯৯৯ টাকা প্রারম্ভিক মূল্যের সাথে লঞ্চ করা হয়েছিল। এক্ষেত্রে দাম বেশি থাকা সত্ত্বেও, প্রো মডেলটিতে ৫জি সাপোর্ট উপলব্ধ নেই। আর প্লাস মডেলটিও ৫জি-এনাবল নয়।

লেনোভো ট্যাব পি১১ ৫জি -এর স্পেসিফিকেশন (Lenovo Tab P11 5G specifications)

লেনোভো ট্যাব পি১১ ৫জি ট্যাবলেটে পুরু বেজেল পরিবেষ্টিত ১১-ইঞ্চির 2K (২০০০x১২০০ পিক্সেল) IPS ডিসপ্লে রয়েছে। মূলত ভালো গ্রিপিং প্রদানের জন্য এবং একই সাথে হাত থেকে পড়ে গেলে কোনো ভাবে যাতে ডিভাইস ক্ষতিগ্রস্থ না হয়, তার জন্য ট্যাবলেটের বেজেলগুলি তুলনায় পুরু থাকে৷ ট্যাবেলেটের ডিসপ্লেটি সর্বাধিক ৬০ হার্টজ রিফ্রেশ রেটে ডলবি ভিশন কনটেন্ট সমর্থন করে। অভ্যন্তরীণ স্পেসিফিকেশনের কথা বললে, আলোচ্য মডেলটি কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৭৫০জি ৫জি সহ এসেছে। এটি অ্যান্ড্রয়েড ১১ অপারেটিং সিস্টেমে রান করবে। যদিও মনে করা হচ্ছে, পরবর্তী সময়ে ট্যাবলেট এবং ফোল্ডেবল ফোনের জন্য নিয়ে আসা গুগলের অ্যান্ড্রয়েড ১২এল কাস্টম ইউজার ইন্টারফেসের আপগ্রেড পাবে ডিভাইসটি। তবে লেনোভো এখনও এই বিষয়টি আনুষ্ঠানিকভাবে নিশ্চিত করেনি। Lenovo Tab P11 5G সংস্থার ইন-হাউস অ্যাক্সেসরিজ, যেমন Lenovo Precision Pen 2 স্টাইলাস এবং কী-বোর্ডের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ। যদিও উভয় অ্যাক্সেসরিজকে পৃথকভাবে কিনতে হবে ব্যবহারকারীদের।

ক্যামেরার ক্ষেত্রে, Lenovo Tab P11 5G ট্যাবলেটে অটো-ফোকাস সহ ১৩-মেগাপিক্সেলের রিয়ার সেন্সর এবং ডিসপ্লের উপরিভাগে ToF (টাইম-অফ-ফ্লাইট) সেন্সর সহ ৮-মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা রয়েছে। এক্ষেত্রে ফ্রন্ট সেন্সরটি ৩ডি (3D) ইমেজিং ও জেসচার শনাক্তকরণ করার জন্য, ক্যামেরা এবং সাবজেক্টের মধ্যে দূরত্ব পরিমাপ করতে সক্ষম। তদুপরি ভিউয়িং অভিজ্ঞতা আরো উন্নত করতে, ডিভাইসটি JBL বিকশিত স্পিকার সিস্টেম সহ এসেছে এবং ডলবি অ্যাটমস প্রযুক্তি সমর্থন করে।

কানেক্টিভিটির জন্য এতে সামিল রয়েছে – ব্লুটুথ ৫.১, ওয়াই-ফাই ৬, এবং ইউএসবি টাইপ-সি ৩.২ জেন ১ পোর্ট। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য Lenovo Tab P11 5G ট্যাবলেটে ২০ ওয়াট চার্জিং সমর্থিত ৭,৭০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে। সংস্থার দাবি অনুসারে, এই ব্যাটারি একক চার্জে ১২ ঘন্টা পর্যন্ত ভিডিও স্ট্রিমিং টাইম অফার করে।