এক চার্জে চলবে 3 দিন, বড় ব্যাটারি সহ ভারতে Nokia T21 ট্যাব লঞ্চ হল, 1,999 টাকার ফ্লিপ কভার ফ্রি

Nokia T21 Tab launched in India

২০২১ সালের নভেম্বর মাসে, নোকিয়া (Nokia) ভারতে তাদের Nokia T20 ট্যাবলেটটি উন্মোচন করেছিল। আবার, ফিনল্যান্ড-ভিত্তিক কোম্পানিটি গতবছর সেপ্টেম্বর মাসে গ্লোবাল মার্কেটে এর উত্তরসূরি, Nokia T21 লঞ্চ করে। আর আজ (১৭ জানুয়ারি) অবশেষে এই নতুন নোকিয়া ট্যাবলেটটি ভারতের বাজারে পা রেখেছে। Nokia T21 এলসিডি ডিসপ্লে, Unisoc T612 চিপসেট, ৮ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ক্যামেরা এবং বিশাল ৮,২০০ এমএএইচ ব্যাটারি অফার করে। আসুন তাহলে নবাগত Nokia T21-এর দাম, ফিচার এবং স্পেসিফিকেশনগুলি সম্পর্কে বিস্তারিতভাবে জেনে নেওয়া যাক।

ভারতে নোকিয়া টি২১-এর দাম – Nokia T21 Price in India

ভারতীয় বাজারে নোকিয়া টি২১-এর একমাত্র ৪ জিবি র‍্যাম + ৬৪ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টে পাওয়া যাবে। মিলবে শুধু ওয়াই-ফাই এবং ওয়াই-ফাই + ৪জি অপশনে। দাম রাখা হয়েছে যথাক্রমে ১৭,৯৯৯ টাকা ও ১৮,৯৯৯ টাকা। এটি শুধুমাত্র চারকোল গ্রে কালারে উপলব্ধ হবে। আগ্রহী ক্রেতারা এই ট্যাবটি নোকিয়া ইন্ডিয়ার ওয়েবসাইট এবং ফ্লিপকার্ট থেকে কিনতে পারবেন। আর প্রি বুক করলে ১,০০০ টাকা ডিসকাউন্ট এবং ১,৯৯৯ টাকা মূল্যের ফ্লিপ কভার বিনামূল্যে পাবেন ক্রেতারা।

নোকিয়া টি২১-এর স্পেসিফিকেশন এবং ফিচার – Nokia T21 Specifications and Features

নোকিয়া টি২১-এ ১০.৩৬ ইঞ্চির এলসিডি প্যানেল রয়েছে, যা ১,২০০ x ২,০০০ পিক্সেলের ২কে (2K) রেজোলিউশন, ৫:৩ অ্যাসপেক্ট রেশিও, ৩৬০ নিট পর্যন্ত ব্রাইটনেস এবং নেটফ্লিক্স এইচডি-এর জন্য ওয়াইডভাইন এল১ সাপোর্ট করে। স্ক্রিনটি শক্ত কাচ দ্বারা সুরক্ষিত। এই ট্যাবলেটটি একটি পার্সোনাল কম্পিউটারের স্ক্রিন হিসাবে ব্যবহার করা যেতে পারে এবং এটি ওয়াকম ডাব্লুজিপি এবং ওয়াকম অ্যাক্টিভ ইএসই ২.০ স্টাইলাস সাপোর্ট করে। তবে, ডিভাইসটির সাথে কোনও অ্যাক্টিভ পেন পাঠানো হয়নি।

পারফরম্যান্সের জন্য, এই নতুন নোকিয়া ট্যাবে ইউনিসক টি৬১২ চিপসেটটি ব্যবহার করা হয়েছে, যা ৪ জিবি র‍্যাম এবং ৬৪ জিবি স্টোরেজের সাথে যুক্ত। তবে, মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে Nokia T21-এর স্টোরেজ সম্প্রসারণও করা যাবে। এটি একটি অ্যান্ড্রয়েড এন্টারপ্রাইজের প্রস্তাবিত ট্যাবলেট যা অ্যান্ড্রয়েড ১২ অপারেটিং সিস্টেমে চলে। কোম্পানির তরফে নিশ্চিত করা হয়েছে, তাদের এই ট্যাবটি দুটি ওএস আপগ্রেড এবং তিন বছরের মাসিক সিকিউরিটি আপডেট পাবে।

ফটোগ্রাফির জন্য, Nokia T21-এর ডিসপ্লের ওপরে এবং ব্যাক প্যানেলে একটি করে ৮ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা রয়েছে। রিয়ার ক্যামেরাটি অটোফোকাস সাপোর্ট করে এবং এটির সাথে একটি এলইডি ফ্ল্যাশও যুক্ত রয়েছে। অডিওর জন্য, T21-এ ওজো (OZO) প্লেব্যাক সাপোর্ট সহ ডুয়েল স্টেরিও স্পিকার রয়েছে, যা ৯৬ ডেসিবেল (dB) পর্যন্ত ভলিউম সরবরাহ করে। পাওয়ার ব্যাকআপের ক্ষেত্রে, এই নয়া ট্যাবে ৮,২০০ এমএএইচ ক্ষমতাসম্পন্ন ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে, যা সম্পূর্ণ চার্জে ৩ দিন পর্যন্ত স্থায়ী হতে পারে।

ডিভাইসের রিটেইল বক্সে একটি ১৮ ওয়াটের চার্জার রয়েছে। Nokia T21-এর অন্যান্য বৈশিষ্ট্যগুলির মধ্যে রয়েছে কিডস স্পেস, ওয়াই-ফাই ৮০২. ১১এসি, ব্লুটুথ ৫.০, জিপিএস, এনএফসিএ ইউএসবি-সি পোর্ট, একটি ৩.৫ মিলিমিটারের অডিও জ্যাক এবং আইপি৫২ রেটিং যুক্ত চ্যাসিস।