Tata Nexon ও Tata Tiago আর পাওয়া যাবে না এই বিশেষ রঙে

এখন Tata Nexon ও Tata Tiago যথাক্রমে ৫টি ও ৪টি রঙের বিকল্পে বেছে নেওয়া যাবে

tata-nexon-tata-tiago-pure-silver-colour-variant-discontinue-in-india

চুপিচুপি নিজেদের দুটি গাড়ির পিওর সিলভার (Pure Silver) কালার ভ্যারিয়েন্টের বিক্রি বন্ধ করলো টাটা মোটর্স (Tata Motors)। এবার থেকে টাটা নেক্সন (Tata Nexon) ও টাটা টিয়াগো (Tata Tiago) আর রুপালি রঙে পাওয়া যাবে না। ফলে ইতিমধ্যেই যারা পিওর সিলভার রঙে গাড়ি দুটি কিনে ফেলেছেন তারা নিজেদের ভাগ্যবান ভাবতেই পারেন। এখন থেকে টাটা নেক্সন (Tata Nexon) ও টাটা টিয়াগো(Tata Tiago) যথাক্রমে ৫টি ও ৪টি রঙের বিকল্পে বেছে নেওয়া যাবে।

টাটা নেক্সনের রঙগুলি হল – অ্যাটলাস ব্ল্যাক, ফোলিয়েজ গ্রীন, ক্যালগেরি হোয়াইট, ফ্লেম রেড এবং ডেটোনা গ্ৰে। যদিও এর প্রিমিয়াম গাড়িটি ডার্ক এডিশনে উপলব্ধ। অপরদিকে টাটা টিয়াগোর চারটি রঙ – ফ্লেম রেড, অ্যারিজোনা ব্লু, পার্লসেন্ট হোয়াইট এবং ডেটোনা গ্ৰে।

Tata Tiago

ক্রেতাদের চাহিদা অনুযায়ী অটোমোবাইল সংস্থাগুলি বিভিন্ন সময়ে নিজেদের গাড়ির রঙে পরিবর্তন এনে থাকে। যেমন চলতি বছরের প্রথম দিকে টাটা নিক্সনের রঙের বিকল্প থেকে বাদ দেওয়া হয়েছিল টেকটনিক ব্লু কালারটি। একইরকমভাবে ভারতের বাজারে হলুদ এবং নীল রঙের বিকল্পে টিয়াগো গাড়িটি আত্মপ্রকাশ ঘটলেও পরে তা সরিয়ে দেওয়া হয়েছিল।

উল্লিখিত মডেল দুটি বাদ দিয়ে অন্য কোনো গাড়ির রঙে পরিবর্তন আনেনি টাটা। আগের মতই Tata Nexon ১.২ লিটারের টার্বো পেট্রোল ইঞ্জিন ১১৮ বিএইচপি শক্তি এবং ১৭০ এনএম টর্কের সাথেই পাওয়া যাচ্ছে। অন্যদিকে রয়েছে এর ১.৫ লিটারের ডিজেল ইঞ্জিন যা থেকে মিলবে ১০৮ বিএইচপি শক্তি এবং ২৬০ এনএম টর্ক। এছাড়া Tata Tiago গাড়িটি ১.২ লিটারের ন্যাচারালি-অ্যাসপিরেটেড ৮৫ বিএইচপি শক্তি এবং ১১৩ এনএম টর্ক ইঞ্জিনের ভার্সনে উপলব্ধ। ট্রান্সমিশন অপশনও উভয় ক্ষেত্রে একই রয়েছে।

Tata Nexon ও Tata Tiago দাম

টাটা নেক্সনের দাম ভারতের বাজারে ৭.২৯ লক্ষ টাকা থেকে শুরু হচ্ছে। এর টপ মডেলটির দাম ১৩.২৪ লক্ষ টাকা (এক্স-শোরুম)। অপরদিকে টাটা টিয়াগোর দাম ৫ লক্ষ টাকা থেকে ৭.০৫ লক্ষ (এক্স-শোরুম) টাকা পর্যন্ত রয়েছে।

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।