নিউজমোবাইল ফোনের তুলনা

Smartphones: দুর্দান্ত ক্যামেরা ও 6000mAh ব্যাটারির সেরা মোবাইল ফোন দেখে নিন

পকেট-বান্ধব বাজেটের মধ্যে উন্নত ক্যামেরা এবং দীর্ঘ ব্যাটারি লাইফ অফার করবে এমন একটি স্মার্টফোন যদি কিনতে চান, তাহলে ভারতের বাজারে বিকল্পের কমতি পাবেন না। যদিও বিকল্পের আধিক্যের জন্য, কোন মডেলটি সর্বাধিক সেরা, তা নিয়ে মনে ধন্দ দেখা দেওয়া খুবই স্বাভাবিক। তাই আজ আমরা এদেশের বাজারে বিদ্যমান সেরা ৪টি বাজেট রেঞ্জের স্মার্টফোনের হদিস দেব আপনাকে। এই তালিকায় – Samsung, Motorola এবং Redmi এর মতো নামজাদা টেক সংস্থার হ্যান্ডসেট সামিল আছে। প্রতিবেদনে উল্লেখিত প্রত্যেকটি স্মার্টফোনেই আপনারা ট্রিপল বা কোয়াড রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ এবং সর্বাধিক ৬,০০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির শক্তিশালী ব্যাটারি পেয়ে যাবেন। আর দামের নিরিখে কোনো মডেলই ১৫,০০০ টাকার গন্ডি পারবে না। তাহলে চলুন এবার সেরা ৪টি বাজেট স্মার্টফোনের দাম ও ফিচার সম্পর্কে বিশদে জেনে নেওয়া যাক।

Samsung Galaxy M32: ১১,৯৯৯ টাকা

স্যামসাং গ্যালাক্সি এম৩২ ফোনে ৯০ হার্টজ রিফ্রেশ রেটের ৬.৪ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস (১০৮০ x ২০০৯ পিক্সেল) AMOLED Infinity-U ডিসপ্লে আছে। আবার, ডিসপ্লের সুরক্ষার জন্য কর্নিং গরিলা গ্লাস ৫ প্রোটেকশন দেওয়া হয়েছে। ফাস্ট পারফরম্যান্সের জন্য এতে ব্যবহার করা হয়েছে মালি জি৫২ জিপিইউ সহ মিডিয়াটেক হেলিও জি৮০ প্রসেসর। ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক ওয়ান ইউআই কাস্টম স্কিন চালিত। ফটোগ্রাফির জন্য ডিভাইসের পিছনে কোয়াড ক্যামেরা সেটআপ বর্তমান। এই ক্যামেরাগুলি হল – ৬৪ মেগাপিক্সেল ISOCELL GW3 প্রাইমারি সেন্সর, ৮ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স, ২ মেগাপিক্সেল ডেপ্থ সেন্সর ও ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো সেন্সর। সেলফি ও ভিডিও কলের জন্য Samsung Galaxy M32 ফোনের সামনে রয়েছে ২০ মেগাপিক্সেল সেন্সর। ফোনটি ৬,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি সহ এসেছে, যার সাথে ১৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করবে।

Moto G40 Fusion: ১৪,২৮০ টাকা

অ্যান্ড্রয়েড ১১ অপারেটিং সিস্টেম চালিত মোটো জি৪০ ফিউশন স্মার্টফোনে আছে একটি ৬.৮ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস (১০৮০×২৪০০ পিক্সেল) পাঞ্চ হোল ডিসপ্লে। এই ডিসপ্লে – ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট, ২০.৫:৯ এসপেক্ট রেশিও এবং HDR10 টেকনোলজি সাপোর্ট করে। অভ্যন্তরীণ ফিচারের কথা বললে, এতে ২.৩ গিগাহার্টজ ক্লক রেটের অক্টা-কোর স্ন্যাপড্রাগন ৭৩২জি প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। ফটোগ্রাফির জন্য এই ডিভাইসে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ বর্তমান। এই ক্যামেরাগুলি হল – ৬৪ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর (f/1.7 অ্যাপারচার), ৮ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা ওয়াইড লেন্স + ম্যাক্রো সেন্সর এবং ২ মেগাপিক্সেল ডেপ্থ সেন্সর। আবার সেলফি ও ভিডিও কলিংয়ের জন্য এতে ১৬ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট-ফেসিং ক্যামেরা উপলব্ধ। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য এই ফোনে আছে ৬,০০০এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি, যার সাথে ২০ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে। আর, সিকিউরিটির জন্য মোটো জি৪০ ফিউশন ফোনে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর ও ফেস আনলক ফিচার উপস্থিত।

Redmi 10 Prime: ১২,৪৯৯ টাকা

রেডমি ১০ প্রাইম স্মার্টফোনে রয়েছে একটি ৬.৫ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস ডিসপ্লে। উন্নত পারফরম্যান্স অফার করার জন্য এটি মিডিয়াটেক হেলিও জি৮৮ প্রসেসর সহ এসেছে। আর অপারেটিং সিস্টেম হিসাবে ফোনে অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক এমআইইউআই ১২.৫ কাস্টম ওএস পাওয়া যাবে। এতে কোয়াড রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ বর্তমান। এই ক্যামেরাগুলি হল, ৫০ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর, ৮ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা-ওয়াইড অ্যাঙ্গেল সেন্সর, ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো লেন্স, এবং ২ মেগাপিক্সেল ডেপ্থ সেন্সর। আর ডিসপ্লের উপরিভাগে থাকছে ৮ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা। এতে ৬,০০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি আছে, যা ৯ ওয়াট রিভার্স চার্জিং এবং ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং টেকনোলজি সাপোর্ট করে।

Motorola G30: ১০,৯৯৯ টাকা

মোটো জি৩০ স্মার্টফোনে একটি ৬.৫ ইঞ্চির এইচডি প্লাস (৭২০x১৬০০ পিক্সেল) IPS LCD ম্যাক্স ভিশন ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে, যার রিফ্রেশ রেট ৯০ হার্টজ। উন্নত পারফরম্যান্সের জন্য এতে অক্টা-কোর কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৬৬২ ৪জি প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। ক্যামেরা সেটআপের কথা বললে, ফোনটির রিয়ার প্যানেলে কোয়াড ক্যামেরা সেটআপ বর্তমান। এগুলি হল – ৬৪ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর, ৮ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স, ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো লেন্স এবং ২ মেগাপিক্সেল ডেপ্থ সেন্সর। আবার সেলফি তোলার জন্য উক্ত ডিভাইসে ১৩ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা উপস্থিত রয়েছে। মোটোরোলার এই হ্যান্ডসেটে ৫,০০০ এমএএইচ পাওয়ারের ব্যাটারি আছে, যা ২০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে। আবার এটি IP52 ওয়াটার ও ডাস্ট রেজিস্ট্যান্স রেটিং যুক্ত।

Back to top button