Homeনিউজদাম ২০ হাজার টাকার কম, Redmi, Vivo, Moto-র সেরা 5G ফোনগুলি দেখে নিন

দাম ২০ হাজার টাকার কম, Redmi, Vivo, Moto-র সেরা 5G ফোনগুলি দেখে নিন

২০,০০০ টাকার কমে Vivo T1 5G থেকে শুরু করে Moto G71 5G এবং Redmi Note 11T 5G -এর মতো 'বেস্ট সেলিং' স্মার্টফোন অন্তর্ভুক্ত

৫তম প্রজন্মের ব্রডব্যান্ড সেলুলার নেটওয়ার্ক বা সংক্ষেপে 5G -এর আগমনবার্তা স্মার্টফোন ক্রেতাদের মধ্যে যথেষ্ট হৈচৈ ফেলে দিয়েছে। যদিও, জনসাধারণের জন্য এখনো সার্বিক ভাবে 5G নেটওয়ার্ক চালু করা হয়নি। তবুও, আগাম প্রস্তুত থাকতে বহু ক্রেতাই এখন এই লেটেস্ট মোবাইল নেটওয়ার্কিং সমর্থিত হ্যান্ডসেট কিনছেন। সেক্ষেত্রে, আপনিও যদি এমনই একটি ‘নেক্সট-জেনারেশন’ নেটওয়ার্ক বিকল্পের সাথে আসা একটি অ্যাডভান্স ফিচারের স্মার্টফোন সাশ্রয়ী মূল্যে কিনতে চান, তাহলে এই প্রতিবেদন আপনার জন্যই। কেননা, আজ আমরা আপনাদের ২০,০০০ টাকার মধ্যে উপলব্ধ সেরা ৩টি ৫জি স্মার্টফোনের খোঁজ দেব। এই তালিকায় লেটেস্ট লঞ্চ হওয়া Vivo T1 5G থেকে শুরু করে Moto G71 5G এবং Redmi Note 11T 5G -এর মতো ‘বেস্ট সেলিং’ স্মার্টফোন অন্তর্ভুক্ত। এখানে উল্লেখিত প্রতিটি মডেলে ৬ জিবি র‍্যাম, ১২৮ জিবি পর্যন্ত স্টোরেজ, ৫০ মেগাপিক্সেল মুখ্য সেন্সর এবং ৫,০০০ এমএএইচ পাওয়ারের ব্যাটারি পাওয়া যাবে। চলুন তাহলে হাই-বাজেট রেঞ্জের এই ৫জি স্মার্টফোনগুলির দাম ও ফিচার সম্পর্কে বিশদে জেনে নেওয়া যাক।

২০,০০০ টাকার নিচে উপলব্ধ সেরা ৩টি ৫জি স্মার্টফোনের তালিকা

Vivo T1 5G : ভিভো টি১ ৫জি ফোনে ৬.৫৮ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস (১০৮০×২৪০৮ পিক্সেল) IPS LCD ডিসপ্লে আছে, যা ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট সাপোর্ট করে। এই ফোনে স্ন্যাপড্রাগন ৬৯৫ ৫জি প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। এটি অ্যান্ড্রয়েড ১২ ভিত্তিক ফানটাচ ওএস১২ কাস্টম স্কিনে চলে। ফটোগ্রাফির জন্য এতে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ থাকবে, যার প্রাইমারি সেন্সর ৫০ মেগাপিক্সেলের। আর সেলফি এবং ভিডিও কলিংয়ের জন্য, এতে ১৬ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা রয়েছে। ফোনটি ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট সহ ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি অফার করবে।

দাম : Vivo T1 5G ফোনের ৬ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টকে ই-কমার্স সাইট ফ্লিপকার্টে ১৬,৯৯০ টাকায় উপলব্ধ করা হয়েছে।

Moto G71 5G : মোটো জি৭১ ৫জি ফোনের সামনে দেখা যাবে ৬০ হার্টজ রিফ্রেশ রেটের ৬.৪ ইঞ্চির ফুল এইচডি+ (১০৮০x২৪০০ পিক্সেল) ম্যাক্স ভিশন ডিসপ্লে, যার অ্যাসপেক্ট রেশিও ২০:৯। এই ফোনের পাঞ্চ হোলের মধ্যে ১৬ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা পাওয়া যাবে। আবার পিছনে আছে ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ। এগুলি হল, ৫০ মেগাপিক্সেলের প্রাইমারি ক্যামেরা সেন্সর, ৮ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স ও ২ মেগাপিক্সেলের ম্যাক্রো সেন্সর। উন্নত পারফরম্যান্স অফার করার জন্য এই ফোনে ব্যবহার করা হয়েছে অক্টা কোর কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৬৯৫ প্রসেসর। ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক এমওয়াইউইএই (MYUI) কাস্টম স্কিনে চলবে। সিকিউরিটি ফিচার হিসাবে এতে সাইড-মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার উপস্থিত। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য এতে ৩০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট সহ ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে। এটি IP52 স্প্ল্যাশ রেজিস্ট্যান্স রেটিং সহ এসেছে।

দাম : Moto G71 5G ফোনের ৬ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ অপশনকে ফ্লিপকার্টের মাধ্যমে ১৮,৯৯৯ টাকায় কিনে নেওয়া যাবে।

Redmi Note 11T 5G : ডুয়েল সিমের রেডমি নোট ১১টি ৫জি ফোনে আছে, একটি ৬.৬ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস (১,০৮০x২,৪০০ পিক্সেল) IPS LCD ডিসপ্লে। এই ডিসপ্লে কর্নিং গরিলা গ্লাস ৩ প্রটেকশন সহ এসেছে এবং ৯০ হার্টজ অ্যাডাপ্টিভ রিফ্রেশ রেট ও ২০:৯ এসপেক্ট রেশিও সাপোর্ট করে। মাল্টিটাস্কিং ও ফাস্ট পারফরম্যান্সের জন্য ডিভাইসে, মালি জি৫৭ এমসি২ জিপিইউ সহ অক্টা কোর মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ৮১০ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। এটি অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক এমআইইউআই ১২.৫ কাস্টম স্কিন চালিত। ফোনটি ৩ জিবি পর্যন্ত এক্সটেন্ডেড র‌্যাম সাপোর্ট করে। ফটোগ্রাফির জন্য রেডমির এই ৫জি স্মার্টফোনে ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ বর্তমান। এগুলি হল, ৫০ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর ও ৮ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা ওয়াইড শুটার। আবার, ফোনটির ডিসপ্লেতে থাকা পাঞ্চ-হোল কাটআউটের মধ্যে থাকছে ১৬ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য, এতে ৫,০০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি আছে, যার সাথে ৩৩ ওয়াট প্রো ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে। সিকিউরিটির জন্য উক্ত হ্যান্ডসেটে সাইড মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর উপলব্ধ। এটি IP53 রেটিং প্রাপ্ত, তাই জল ও ধুলো প্রতিরোধ করতে সক্ষম।

দাম : Redmi Note 11T 5G ফোনের ৬ জিবি র‍্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টকে ১৫,৯৯৯ টাকায় এবং ৬ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ অপশনকে ১৬,৯৯৯ টাকায় কেনা যাবে ই-কমার্স সাইট অ্যামাজন থেকে।

আরও পড়ুন