২০০ মেগাপিক্সেল ক্যামেরার সেরা ফোন, সাথে ১২০ ওয়াট পর্যন্ত চার্জিং, দেখুন লিস্ট

আপনি যদি ফটোগ্রাফির জন্য সেরা ক্যামেরা ফোন খুঁজে থাকেন, তবে ভারতীয় বাজারে আপনার জন্য অনেক দুর্দান্ত বিকল্প রয়েছে। এখানে আমরা আপনাকে ২০০ মেগাপিক্সেল প্রধান ক্যামেরা সহ কিছু অসাধারণ স্মার্টফোন সম্পর্কে বলবো। ৩০ হাজার টাকার রেঞ্জে আসা এই দুর্দান্ত স্মার্টফোনগুলিতে আপনি ক্যামেরা সহ পাবেন অসাধারণ ডিসপ্লে এবং শক্তিশালী প্রসেসর। আবার এগুলিতে ১২০ ওয়াট পর্যন্ত চার্জিং সাপোর্ট করবে।

রেডমি নোট ১৩ প্রো

রেডমির এই ফোনে আছে ২০০ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি রিয়ার ক্যামেরা। এই ক্যামেরা ওআইএস ও ইআইএস সাপোর্ট করবে। আবার ফোনের রিয়ার প্যানেলে রয়েছে ৮ মেগাপিক্সেল আল্ট্রাওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স এবং ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো সেন্সর। একই সঙ্গে সেলফির জন্য ফোনটিতে পাবেন ১৬ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা। এতে দেওয়া ডিসপ্লে ৬.৬৭ ইঞ্চি। এই অ্যামোলেড ডিসপ্লে ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট সাপোর্ট করে। প্রসেসর হিসেবে এতে স্ন্যাপড্রাগন ৭এস জেন ২ ব্যবহার করা হয়েছে। এই ডিভাইসের ব্যাটারি ৫১০০ এমএএইচ, যা ৬৭ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে।

রেডমি নোট ১৩ প্রো প্লাস

রেডমির এই ফোনে আছে এলইডি ফ্ল্যাশসহ তিনটি ক্যামেরা। এই ক্যামেরাগুলি হল ২০০ মেগাপিক্সেলের প্রধান লেন্স সহ ৮ মেগাপিক্সেল আল্ট্রাওয়াইড অ্যাঙ্গেল এবং ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো সেন্সর। ফোনের মূল ক্যামেরায় ওআইএস ও ইআইএস সাপোর্ট করবে। এই স্মার্টফোনে ২৭১২x১২২০ পিক্সেল রেজোলিউশনের ৬.৬৭ -ইঞ্চি থ্রিডি কার্ভড অ্যামোলেড ডিসপ্লে উপস্থিত। ডিসপ্লেটি ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট সমর্থন করে। প্রসেসর হিসেবে এই ফোনে ব্যবহার করা হয়েছে মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ৭২০০ চিপসেট। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য এতে ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে, যা ১২০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে। এই ফোনের দাম ৩০,৯৯৯ টাকা।

রিয়েলমি ১১ প্রো প্লাস ৫জি

২০০ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা সহ এই ফোনটিও আপনার জন্য সেরা হবে। ২০০-মেগাপিক্সেল প্রধান লেন্স ছাড়াও, আপনি ৮ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা-ওয়াইড এঙ্গেল লেন্স এবং একটি ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো ক্যামেরা পাবেন। সেলফির জন্য এই স্মার্টফোনে পাবেন ৩২ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা। প্রিমিয়াম ভেগান লেদার ডিজাইনের এই ডিভাইসে ২৪ জিবি পর্যন্ত র‌্যাম (ফিজিক্যাল + ভার্চুয়াল) পাবেন। ফোনটি ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেটের কার্ভড ভিশন ডি ডিসপ্লের সাথে এসেছে।