নিউজ

শোনা যাবে না কাশি বা বকবকানি! টেলকোগুলিকে সমস্ত Covid-19 কলার টিউন বন্ধের নির্দেশ দিল DoT

কাউকে ফোন করতে গেলেই আর শুনতে হবে না করোনার কলার টিউন (Covid-19 Caller Tune)। হ্যাঁ, এবার দু-বছর ধরে একনাগাড়ে বেজে চলা করোনা ভাইরাস সম্পর্কিত সাবধানবাণীর অবসান ঘটতে চলেছে মোবাইলের কলার টিউনে। মূলত কোভিড-১৯ মহামারী সম্পর্কে সচেতনতা ছড়াতে এবং নাগরিকরা যাতে সময়মতো করোনার টিকা নেন, তার জন্য সরকারের নির্দেশে সকল টেলিকম সংস্থাগুলিকে বাধ্যতামূলকভাবে এই সাবধানবাণী সেট করতে হয়েছিল ভোক্তাদের কলার টিউনে। কিন্তু দীর্ঘদিন ধরে এই একই কথা শুনতে শুনতে অনেকের কাছেই এটা একটা বিরক্তিকর তথা একঘেয়েমির বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছিল। তবে এখন যেহেতু দেশে কোভিড কেস অনেকটাই কমে গেছে, তাই ডিপার্টমেন্ট অফ টেলিকমিউনিকেশনস অর্থাৎ DoT (ডিওটি) দেশের সমস্ত টেলিকম অপারেটরকে প্রাক-কল কোভিড-১৯ ঘোষণাগুলি সরিয়ে ফেলার নির্দেশ দিয়েছে। আসুন এই বিষয়ে বিস্তারিত জেনে নিই…

বন্ধ হচ্ছে করোনার কলার টিউন

PTI-এ প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন অনুসারে, DoT ভারতের সমস্ত টেলিকম অপারেটরদের সমস্ত কোভিড-১৯ প্রাক-কল ঘোষণা এবং কলার টিউন বন্ধ করতে বলেছে। টেলিকম বিভাগের এই সিদ্ধান্ত নেওয়ার পিছনে মূল কারণ হল, দেশে সাম্প্রতিক কোভিড সংক্রমণের হার অনেকটাই নিম্নমুখী, আর সেইসাথে প্রাক-কল ঘোষণাগুলি নেটওয়ার্ককে ওভারলোড করার পাশাপাশি কলগুলিকে কয়েক মিনিট বিলম্বিত করছে, যা দিন কে দিন সকল ইউজারদের কাছেই রীতিমতো এক বিরক্তির বিষয় হয়ে দাঁড়াচ্ছে। তবে সাম্প্রতিক এই ঘোষণায় স্বস্তি পাবেন অধিকাংশ ব্যবহারকারী। এক্ষেত্রে বলে রাখি, টেলিকম অপারেটরদের কোভিড-১৯ সম্পর্কিত ঘোষণা বন্ধ করতে বলার আগে টেলিকম বিভাগ স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের কাছ থেকে অনুমতি চেয়েছিল। আর সেখান থেকে সম্মতি মেলার পরই ফোনের কোভিড কলার টিউন বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য যে, ২০২০ সালে দেশে করোনা সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়তেই কোভিড-১৯ কলার টিউনটি চালু করা হয়েছিল। এয়ারটেল (Airtel), বিএসএনএল (BSNL), রিলায়েন্স জিও (Reliance Jio), এবং ভোডাফোন আইডিয়া (Vodafone Idea) ২০২০ সালের মার্চ মাসে কেন্দ্রীয় সরকারের জারি করা এক নির্দেশিকা অনুযায়ী এই কলার টিউন বাজানো শুরু করেছিল। তার পর থেকে টানা দু-বছর ধরে কোভিড ১৯-এর সতর্কতার চিহ্ন হিসেবে এই কলার টিউন বেজে চলেছে। মাঝে কয়েকবার এটি পরিবর্তন হলেও কখনও কিন্তু বন্ধ করা হয়নি। জনসচেতনতা বাড়াতে কেন্দ্রের তরফে নেওয়া এই উদ্যোগ কিন্তু নিঃসন্দেহে প্রশংসনীয়। তবে এবার অবশেষে এই সাবধানবাণীর অবসান ঘটতে চলেছে।

কী আছে করোনার কলার টিউনে?

একদম প্রথম দিকে এই কলার টিউনটির শুরুতে থাকত একজন মানুষের কাশি এবং হাঁচির শব্দ, তারপরে কোভিড থেকে নিরাপদে থাকার জন্য কী কী সতর্কতা অবলম্বন করা দরকার সে সম্পর্কে পরামর্শ দেওয়া হত। পরে ২০২১ সালের জানুয়ারিতে দেশব্যাপী টিকাকরণ কর্মসূচি চালু হওয়ার সময় এই কলার টিউনটিতে পরিবর্তন করা হয়। নতুন কলার টিউনটিতে ছিল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর স্লোগান ‘দাওয়াই ভি, কড়াই ভি’। সেইসাথে টিকা সম্পর্কিত গুজব এবং ভুল তথ্যের শিকার না হয়ে সকল মানুষকে টিকা নেওয়ার জন্য আহ্বান জানানো হয়েছিল। আপাতদৃষ্টিতে দীর্ঘদিন ধরে চলা এই কলার টিউন লোকের কাছে বিরক্তিকর বলে মনে হলেও যাদের কাছে টিভি বা ইন্টারনেটের কোনোরকম অ্যাক্সেস নেই, তাদের মধ্যে এই প্রাণঘাতী ভাইরাস সম্পর্কে সচেতনতা বাড়াতে এই কলার টিউনটি ব্যাপকভাবে সাহায্য করেছিল।

Back to top button