পরীক্ষার পর ভারতে বিক্রি হবে চীনে তৈরি স্মার্টফোন, নিয়ম আনছে সরকার

নতুন নিয়ম যদি কার্যকর হয় তবে এতে Huawei বা ZTE-এর মত চীনা ব্র্যান্ডগুলি সরকারের নজরে থাকবে

গত বছর জুনে ভারত-চীন সীমান্ত উত্তেজনার পর থেকেই প্রতিবেশী দেশের তৈরি নানাবিধ পণ্য, অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহারের ওপর শঙ্কা প্রকাশ করে চলেছে আপামর ভারতবাসী তথা কেন্দ্র সরকার। ২০২০ সালে আমরা প্রচুর চীনা অ্যাপ বা ওয়েবসাইট ব্যান হতে দেখেছি; সামনে এসেছে চীনা পণ্যের কাস্টম ক্লিয়ারেন্স বা প্রয়োজনীয় সুরক্ষা যাচাইয়ের সমস্যার কথাও। তবে এখন রিপোর্ট বলছে যে, ভারত সরকার এবার এমন একটি রেগুলেশন বা প্রবিধান প্রণয়ন করতে পারে যা চীনে নির্মিত হ্যান্ডসেটগুলি গভীরভাবে পরীক্ষা করার বিষয় নিশ্চিত করবে। এমনকি সাইবার স্ন্যাপিং চেক করার জন্য, সরকার টেলিকম সরঞ্জাম এবং নেটওয়ার্কিং পণ্যের ক্ষেত্রে বিশ্বস্ত উৎস এবং কোম্পানিগুলির একটি তালিকা তৈরি করছে বলে জানা গেছে।

সরকারের নতুন রেগুলেশনে লক্ষ্যবস্তু হবে এই কোম্পানিগুলি

ইকোনমিক টাইমস (ET)-এর মতে, উল্লিখিত নিয়ম যদি কার্যকর হয় তবে এতে Huawei বা ZTE-এর মত চীনা ব্র্যান্ডগুলি সরকারের নজরে থাকবে। একটি সূত্র, ET-কে জানিয়েছে যে এইভাবে সরকার কোম্পানিগুলিকে ভয় দেখাতে চায় না, বরঞ্চ নিজের দেশের নিরাপত্তা সংক্রান্ত সমস্যার বিষয়টি নিশ্চিত করতে চায়।

এদিকে শোনা যাচ্ছে MEITY অর্থাৎ তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রক, ন্যাশনাল টেকনিক্যাল রিসার্চ অর্গানাইজেশন এবং অন্যান্য সরকারী সংস্থাগুলি এই ধরনের একটি নিয়ম অন্বেষণের সম্ভাবনা অনুসন্ধান করছে। যদিও ঠিক কবে এই নিয়ম বাস্তবায়িত হবে, তা এখনই বলা যাচ্ছে না।

প্রসঙ্গত, এখনো পর্যন্ত ভারত সরকার স্পষ্টভাবে তেমন কোনো চীনা পণ্যের উপর নিষেধাজ্ঞা ঘোষণা করেনি, কিন্তু চীন সংক্রান্ত যেকোনো বিষয়েই সন্দিহান বা প্রতিবাদমূলক মনোভাব প্রকাশ করে চলেছে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন