দুর্ধর্ষ ক্যামেরা ও AI ফিচার্সেই বাজিমাত, 18 জুলাই ভারতে লঞ্চ হবে Honor 200 সিরিজ

জুলাইতে নতুন নতুন স্মার্টফোনের মেলা বসার মতো অবস্থা। নাথিং, রেডমি, স্যামসাং, ওপ্পো, আইকো, রিয়েলমির মতো প্রথম সারির সংস্থাগুলি ইতিমধ্যেই তাদের আপকামিং ফোনের লঞ্চ ডেট ঘোষণা করেছে। এবার সেই তালিকায় নাম লেখাল অনার। চীন ও ইউরোপে লঞ্চ হওয়ার পর এই মাসে ভারতে আসছে অনার ২০০ এবং অনার ২০০ প্রো মডেল নিয়ে গঠিত অনর ২০০ সিরিজ।

ভারতে অনার ২০০ সিরিজ লঞ্চের তারিখ

অনার ২০০ এবংবং অনার ২০০ প্রো আগামী ১৮ই জুলাই দুপুর ১২.৩০টায় এদেশে লঞ্চ হবে। সংস্থার অফিশিয়াল ওয়েবসাইট, আমাজন, ও বিভিন্ন রিটেল স্টোরে কিনতে পাওয়া যাবে। বেস মডেল মুনলাইন হোয়াইট ও ব্ল্যাক এবং প্রো ভার্সন ওশেন সায়ান ও ব্ল্যাক কালারে উপলব্ধ হবে।

এআই ফিচার্স

অনার ২০০ সিরিজ অ্যান্ড্রয়েড ১৪ অপারেটিং সিস্টেম নির্ভর ম্যাজিক ওএস ৮.০ কাস্টম সফটওয়্যারে চলবে। একে দুনিয়ার প্রথম ইনটেন্ট বেসড ইউআই বলে দাবি করা হয়েছে। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার অভিজ্ঞতা পাওয়া যাবে এই সিস্টেমে। গোটাটাই পরিচালনা করবে অনারের নিজস্ব ম্যাজিকএলএম অন-ডিভাইস এআই লার্জ ল্যাঙ্গুয়েজ মডেল। ম্যাজিক ক্যাপসুল, ম্যাজিক পোর্টাল এবং ম্যাজিক রিং-এর মতো এআই ক্ষমতা অনার ২০০ সিরিজকে বাকি ফোনের থেকে এগিয়ে রাখবে।

স্পেসিফিকেশন

ডিসপ্লে: ভারতের আগে বিভিন্ন দেশে লঞ্চ হওয়ার কারণে অনার ২০০ সিরিজের স্পেসিফিকেশন আর অজানা নেই। বেস ও প্রো দু’টো মডেলেই ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট সহ ৬.৭ ইঞ্চি কোয়াড কার্ভড ওলেড ডিসপ্লে রয়েছে, যার পিক ব্রাইটনেস ৪,০০০ নিটস। প্রসঙ্গত, অনার ১০০ সিরিজের ডিসপ্লে সাইজও এক ছিল।

চিপসেট: অনার ২০০ ফোনে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৭ জেন ৩ প্রসেসর রয়েছে। এটি আগে মোটোরোলা এজ ৫০ প্রো, ভিভো ভি৪০, এবং ওয়ানপ্লাস নর্ড সিই ৪ হ্যান্ডসেটে ব্যবহার করা হয়েছে। অন্যদিকে, অনার ২০০ প্রো ফ্ল্যাগশিপ গ্রেড কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮এস জেন ৩ দিয়ে সজ্জিত। নিঃসন্দেহে প্রো মডেলের চিপসেট অনেক বেশি শক্তিশালী। এই চিপের সঙ্গে রিয়েলমি জিটি ৬, শাওমি ১৪ সিভি সহ অনেক ফোন বাজারে এসেছে।

ক্যামেরা: অনার ২০০ সিরিজের দু’টো ফোনেই ৫০ মেগাপিক্সেল প্রাইমাসি ওআইএস ক্যামেরা, ৫০ মেগাপিক্সেল টেলিফটো ওআইএস ক্যামেরা, ও ১২ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা ওয়াইড সেন্সর বর্তমান। ফারাক শুধু ফ্রন্ট ক্যামেরায়। স্ট্যান্ডার্ড মডেলের সামনে ৫০ মেগাপিক্সেলের একটাই ক্যামেরা পাওয়া যাবে। প্রো মডেলটি ৫০ মেগাপিক্সেল + ২ মেগাপিক্সেল ডুয়েল সেলফি ক্যামেরা অফার করবে।

ব্যাটারি ও চার্জিং: পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য স্মার্টফোন দু’টি ৫,২০০ এমএএইচ ব্যাটারি পেয়েছে। ১০০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সিস্টেম করার কারণে ব্যাটারি ফুল হতে বেশি সময় লাগবে না। প্রো মডেলটি আবার ৬৬ ওয়াট ওয়্যারলেস চার্জিং সাপোর্ট করবে।

চমৎকার স্পেসিফিকেশন ও এআই ফিচার্সের পাশাপাশি অনার ২০০ সিরিজের আকর্ষণ হল চোখ ধাঁধানো ডিজাইন। অফিশিয়াল লঞ্চ হতে আর মাত্র ১৩ দিন। তার আগে অনার একে একে বিভিন্ন বৈশিষ্ট্য প্রকাশ করবে বলে আশা করা যায়। ফোনটির ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টে কোনও ফিচার বাদ পড়বে বা যুক্ত হবে কিনা, সেটা লঞ্চের দিন স্পষ্ট হয়ে যাবে।