ট্রেনে পাওয়া যাবে না ফ্রী Wi-Fi, রেল ইন্টারনেট সংযোগ প্রকল্প বাতিল করলো কেন্দ্র

করোনা অতিমারীর কারণে এক বছরেরও বেশি সময় ধরে বিপর্যস্ত ভারতের ট্রেন চলাচল। কিন্তু এতে রেল পরিষেবা নিয়ে সরকারের পরিকল্পনা বা কাজ যে থেমে নেই, তা সাম্প্রতিক রিপোর্ট থেকেই প্রমাণ হয়েছে; যদিও সামনে আসা সে খবর খুব একটা ইতিবাচক নয়! আসলে কেন্দ্র সরকার গতকাল, সংসদে অধিবেশন চলাকালীন রেলওয়ে ইন্টারনেট সংযোগ সংক্রান্ত একটি প্রকল্প বাতিল করেছে। মূলত প্রকল্পটি যথেষ্ঠ ব্যয়বহুল বলেই এই আকস্মিক সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

কী ছিল বাতিল হওয়া রেল ইন্টারনেট সংযোগ প্রকল্পে?

রিপোর্ট অনুযায়ী, লোকসভায় একটি প্রশ্নের লিখিত উত্তরে নতুন রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব বলেছেন যে একটি পাইলট প্রকল্প হিসাবে এবং স্যাটেলাইট যোগাযোগ প্রযুক্তির মাধ্যমে, হাওড়া রাজধানী এক্সপ্রেস ট্রেনে ওয়াই-ফাই ভিত্তিক ইন্টারনেট সুবিধা দেওয়া হয়েছিল। সেক্ষেত্রে এই প্রযুক্তির জন্য ব্যান্ডউইথ চার্জসহ আরো বেশি কিছু খরচ লাগছিল বলে তাঁর অভিমত।

তবে শুধু খরচ নয়, বলা হচ্ছে এই প্রকল্পে যাত্রীদের জন্য ইন্টারনেট ব্যান্ডউইথ প্রাপ্যতা অপর্যাপ্ত ছিল। আর তাই সব দিক বিবেচনা করে প্রকল্পটি বাদ দেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, প্রাক্তন রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়াল ২০১৯ সালে বলেছিলেন যে কেন্দ্র আগামী চার-সাড়ে চার বছরের মধ্যে ট্রেনগুলিতে ওয়াই-ফাই পরিষেবা দেওয়ার পরিকল্পনা করছে। বর্তমানে ভারতীয় রেলওয়ের অধীনে ৬,০০০-এরও বেশি স্টেশনে স্বয়ংসম্পূর্ণ ভিত্তিতে ওয়াই-ফাই সুবিধা উপলব্ধ রয়েছে, যা ব্যবহারের জন্য যাত্রীদের কোন খরচ করতে হয়না। রেল মন্ত্রণালয়, রেলটেল (RailTel) নামক পাবলিক সেক্টর আন্ডারটেকিংয়ের সাহায্যে এই সুবিধা প্রদান করে থাকে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন