Homeটেলিকমবিনামূল্যে পাওয়া যাবে JioPhone, Reliance Jio-র এই বিশেষ অফার সম্পর্কে জানেন তো?

বিনামূল্যে পাওয়া যাবে JioPhone, Reliance Jio-র এই বিশেষ অফার সম্পর্কে জানেন তো?

আজ আমরা Reliance Jio-র এমন একটি দীর্ঘ মেয়াদি প্ল্যানের সম্পর্কে আপনাদের জানাবো, যেটি রিচার্জ করলে JioPhone সম্পূর্ণ বিনামূল্যে পেয়ে যাবেন

Free JioPhone: ভারতের প্রথমসারির টেলিকম সংস্থা Reliance Jio গ্রাহক-বেসকে আকর্ষিত করার জন্য প্রায়শই নানাবিধ প্রিপেইড ও পোস্টপেইড প্ল্যান অফার করে থাকে। সেক্ষেত্রে, সংস্থাটি তাদের পোর্টফোলিওতে বিদ্যমান প্রায় প্রত্যেক প্ল্যানের সাথেই আনলিমিটেড ভয়েস কলিং, ডেটা, ফ্রি এসএমএস সহ নানাবিধ অতিরিক্ত বেনিফিটও দিয়ে থাকে। তবে আজ আমরা বিশেষ ভাবে এমন একটি দীর্ঘ মেয়াদি প্ল্যানের সম্পর্কে আপনাদের জানাবো, যার মাধ্যমে আপনারা উল্লেখিত যাবতীয় বেনিফিটের সাথে একটি JioPhone সম্পূর্ণ বিনামূল্যে পেয়ে যাবেন। এই ফিচার ফোনটি 4G কানেক্টিভিটির সাথে আসায়, আপনারা ইন্টারনেট ব্রাউজ করতে পারবেন। প্রসঙ্গত, JioPhone এর জন্য সম্পূর্ণ স্বতন্ত্র একটি রিচার্জ প্ল্যান অফার করে সংস্থা। এরমধ্যে কিছু প্ল্যানের সাথে বিনামূল্যে JioPhone অফার করা হয়। আসুন Reliance Jio-র এই অফার সম্পর্কে বিশদে জেনে নেওয়া যাক।

Reliance Jio -এর ১,৯৯৯ টাকার প্ল্যান: ১,৯৯৯ টাকা দামের জিও প্ল্যানটির বৈধতা ২ বছর বা ৭৩০ দিন। এই প্ল্যানের অধীনে গ্রাহকেরা মাসিক ২ জিবি ডেটা ব্যবহার করতে পারবেন। অর্থাৎ বৈধতাসীমা পর্যন্ত মোট ২৪ জিবি ডেটা সরবরাহ করবে সংস্থাটি। এছাড়া এই দীর্ঘ মেয়াদি প্ল্যানে যে কোনো নেটওয়ার্কে আনলিমিটেড ফ্রি ভয়েস কলিং পরিষেবা মিলবে। শুধু তাই নয়, অতিরিক্ত বেনিফিট হিসাবে পুরো এক বছরের জন্য সমস্ত জিও অ্যাপের অ্যাক্সেস বিনামূল্যে পাওয়া যাবে। তবে এই প্ল্যানটির সবথেকে উল্লেখযোগ্য বিষয় হলো, গ্রাহকরা এই প্ল্যানের অধীনে একটি নতুন জিওফোন (JioPhone) পেয়ে যাবেন। আর এর জন্য তাদের একটিও গ্যাঁটের কড়ি খসাতে হবে না।

JioPhone এর স্পেসিফিকেশন

জিওফোনে একটি ২.৪০ ইঞ্চির QVGA (২৪০x৩২০ পিক্সেল) ডিসপ্লে রয়েছে। এটি স্প্রেডট্রাম এসসি৯৮২০এ প্রসেসর সহ এসেছে। আবার, অপারেটিং সিস্টেম হিসাবে এতে কাইওএস পাওয়া যাবে। উক্ত ফোনে, ২ মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরা এবং ০.৩ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা বর্তমান। এতে, ৫১২ এমবি র‌্যাম এবং ৪ জিবি অনবোর্ড স্টোরেজ পাওয়া যাবে। যদিও, মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে এর স্টোরেজ ক্যাপাসিটি ১২৮ জিবি পর্যন্ত বর্ধিত করা যাবে।

অন্যান্য ফিচারের কথা বললে, জিও এর এই ফিচার ফোনে ইউজাররা – My Jio, JioPay, JioCinema, JioSaavn, JioGames, JioRail, WhatsApp, GoogleAssistant, JioVideocall, Messages এর মতো অ্যাপগুলির সমর্থন পেয়ে যাবেন। এছাড়া, একটি আলফানিউমেরিক কীপ্যাড, টর্চ লাইট, মাইক্রোফোন, অডিও স্পিকার ইত্যাদিও অন্তর্ভুক্ত থাকছে। এই হ্যান্ডসেটকে – হিন্দি, ইংরেজি সহ ১৮টি ভাষায় অ্যাক্সেস করা যাবে। আর, পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য এই কমপ্যাক্ট ডিজাইনের হ্যান্ডসেটে ২,০০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন