BMW G 310RR এবং KTM RC 390সম্মুখ সমরে, কে এগিয়ে, পিছিয়েই বা কে?

কয়েক সপ্তাহ আগেই ভারতে আত্মপ্রকাশ করেছে BMW G 310R। “ওল্ড ওয়াইন ইন নিউ বটল” এই প্রবাদ বাক্যটা অনেকটাই খাটে এক্ষেত্রে। কারণ বলতে গেলে TVS Apache RR310 এর একপ্রকার নব সংস্করণ এটি। অন্যদিকে এই সেগমেন্ট ইতিমধ্যেই ছিল KTM RC 390 এর দখলে। তাই এক রাজার রাজত্বে নতুন রাজা এলে দ্বন্দ্ব অবশ্যম্ভাবী। উপরন্তু KTM RC 390 সম্প্রতি নতুন আপগ্রেডেশন পেয়ে আরও অধিক শক্তিতে বলিয়ান হয়েছে। তবে যাই হোক না কেন লুকস, ইঞ্জিন স্পেসিফিকেশন কিংবা পারফরমেন্স কোনো দিক থেকেই কেউ কাউকে সূচাগ্র মেদিনী ছাড়তে নারাজ।

BMW G 310RR বনাম KTM RC 390: ডিজাইন ও লুকস
স্প্লিট এলইডি প্রজেক্টর হেডল্যাম্প সাথে এলইডি ডিআরএল লাইট ও দৈত্যাকার চেহারা এবং বডি গ্রাফিক্স নিয়ে যেন রন সাজে সজ্জিত G 310R। ডিজাইনের দিক থেকে অবশ্য দুটি ভ্যারিয়েন্ট- স্ট্যান্ডার্ড ও স্টাইল। স্ট্যান্ডার্ড সংস্করণে ব্ল্যাক স্টর্ম মেটালিক রঙের আরম্বর দেখা গেলেও, স্টাইল সংস্করণটি বিএমডব্লুর নিজস্ব আঙ্গিকেই রচিত।

অপরদিকে পিছিয়ে নেই RC 390 ও। এলইডি হেডলাইট, টার্ন ইন্ডিকেটর যুক্ত ফেয়ারিং এবং উন্নত নান্দনিক লুক নিয়ে হাজির এই বাইকটি। মূলত এই বাইকটি KTM এর MotoGP রেসিং সেগমেন্টের বাইক থেকে অনুপ্রাণিত। অরেঞ্জ এবং রেসিং ব্লু এই দুটি রঙে উপলব্ধ RC 390।

BMW G 310RR বনাম KTM RC 390: ইঞ্জিন স্পেসিফিকেশন
Apache RR 310 এর মতই ৩১২ সিসির সিঙ্গেল সিলিন্ডার, লিকুইড কুল্ড ইঞ্জিন দ্বারা পরিচালিত বিএমডব্লিউর এই বাইকটি। আরবান এবং রেইন মোডে সর্বোচ্চ ২৫ বিএইচপি পাওয়ার ও ২৫ এনএম টর্ক উৎপন্ন করে এই ইঞ্জিনটি। তবে স্পোর্ট এবং ট্রাক মোডে ইঞ্জিনের সক্ষমতা বেড়ে হয় ৩৪ পিএস এবং ২৭এনএম। সাথে প্রত্যাশিতভাবেই ৬ ধাপযুক্ত গিয়ার বক্স রয়েছে।

অন্যদিকে RC 390 তে চালিকাশক্তি প্রদান করতে ৩৭৩ সিসির লিকুইড কুল্ড, সিঙ্গেল সিলিন্ডার ইঞ্জিন দেওয়া হয়েছে। এই ইঞ্জিনের সর্বাধিক আউটপুট ৪২ পিএস ও ৩৭ এন এম। এই ইঞ্জিনে ৬ স্পিড ট্রান্সমিশন এবং অতিরিক্ত ফিচার হিসেবে বাই ডাইরেক্টরাল কুইক সিফটার দেওয়া রয়েছে।

BMW G 310RR বনাম KTM RC 390: ইকুইপমেন্ট
G 310RR এর সামনের চাকায় ৩০০ মিমি ডিস্ক থাকলেও পিছনের চাকায় ২৪০ মিমি ডিস্ক ব্যবহার করা হয়েছে। অপর হাতে থাকা KTM এ সামনে ও পিছনের চাকায় যথাক্রমে ৩২০মিমি ও ২৩০ মিমির ডিস্ক দেওয়া হয়েছে। দুটি বাইকেই ডুয়েল চ্যানেল এবিএস দেওয়া থাকলেও KTM এ লিন সেনসিটিভ(Lean Sensitive) এবিএস দেখা যায়।

উভয় বাইকের ক্ষেত্রেই সামনে ইউএসডি ফর্ক ও পিছনে মনোশক অ্যাবজর্ভার রয়েছে। BMW’র ক্ষেত্রে Michelin ও KTM এর ক্ষেত্রে Metzelers এর সাসপেনশন ব্যবহার করা হয়েছে।

BMW G 310RR বনাম KTM RC 390: ফিচার্স
দুটি বাইকেই টিএফটি কালার ডিসপ্লে দেওয়া থাকলেও এদের অবস্থান কিন্তু খানিকটা ভিন্ন। BMW তে উলম্ব ভাবে অবস্থিত স্ক্রিন আর KTM এ অনুভূমিক ভাবে অবস্থিত এই ডিসপ্লে। অতিরিক্ত বৈশিষ্ট্য হিসেবে কুইক শিফটার ও ট্রাকশন কন্ট্রোল সিস্টেম দেওয়া রয়েছে KTM এ।

BMW G 310RR বনাম KTM RC 390: মূল্য
KTM RC 390 এর এক্স শোরুম মূল্য শুরু হচ্ছে ৩.১৩লাখ থেকে। তবে দামের বিচারে খানিকটা পিছিয়ে জার্মানির নির্মাতা BMW। G 310RR এর স্ট্যান্ডার্ড সংস্করণটি কিনতে খরচ হবে ২.৮৫ লাখ, আর স্পোর্টস সংস্করণটির মূল্য ২.৯৯ লাখ।